গাছে ইনো দিলে কি হয় জানেন! অনেকেরই অজানা এই ট্রিকস, ফলাফল দেখে ভাববেন আগে জানলে ভালো হতো

নিজস্ব প্রতিবেদন: প্রতিবেদনের শিরোনাম পড়ে আপনারাও কি অবাক হয়ে গিয়েছেন? বদহজমের সমস্যায় ব্যবহৃত ইনো গাছে ব্যবহার করা যেতে পারে এটা নিশ্চয়ই আপনারা সকলেই জানেন না। তবে যারা বাগান প্রেমী মানুষ রয়েছেন তাদের কিন্তু এই বিষয়টা জেনে রাখা ভীষণ প্রয়োজন।

কারণ এই ইনো খুব সহজেই যেকোন বড় সমস্যা থেকে আপনাকে দূরে রাখতে সাহায্য করতে পারে। কোন গাছের পাতা হলুদ হয়ে যাওয়া থেকে শুরু করে গাছটি রোগাক্রান্ত হয়ে যাওয়া অথবা ফুল বা ফল ঝরে যাওয়া সব সমস্যায় কিন্তু এই ইনোর প্রয়োগে দূরীভূত হয়ে যাবে। তবে অবশ্যই আপনাকে সঠিক প্রয়োগ পদ্ধতি জানতে হবে না হলে কোন জিনিসই ঠিক করে কাজে দেবে না।

কিভাবে প্রয়োগ করবেন?
১) বাজারে অনেক ফ্লেভারের ইনো পাওয়া যায় তার মধ্যে যে কোন একটা নিয়ে নেবেন। এরপর একটা পাত্র নিয়ে তাতে ২৫০ মিলি জল নেবেন। এই জলের মধ্যে এক চামচ পরিমাণ চা যোগ করুন। ভালোভাবে নাড়াচাড়া করে হাফ চামচ ইনো যোগ করে দিন। এবার এই জলের মধ্যে এন্টিফাঙ্গাল উপাদান হিসেবে হাফ চামচ হলুদ গুঁড়ো যোগ করুন। মিশ্রণটিকে এই বার আধ ঘন্টা পর্যন্ত রেখে দেবেন।

এবার এই মিশ্রণের সাথে সামান্য পরিমাণ হ্যান্ডওয়াশ মিশিয়ে দেবেন। এবার মিশ্রণটাকে ছেঁকে নিয়ে তাতে আরো ৫০০ মিলি জল মিশিয়ে ফেলুন। ঠান্ডা জল ব্যবহার করার চেষ্টা করবেন তাহলে ভালো ফলাফল পাবেন। স্প্রে বোতলের মধ্যে এই মিশ্রণটাকে ঢেলে যে সমস্ত গাছের পোকা হয়েছে তাতে স্প্রে করে দিন।তিন দিন পর পর আক্রান্ত গাছে আপনাদের এই স্প্রের কাজটি করতে হবে। এইভাবে কয়েকদিন করলেই কিন্তু বেশিরভাগ পোকামাকড় গাছ ছেড়ে চিরতরে বিদায় নেবে। তবে অবশ্যই বিকেলে বা সন্ধ্যেবেলায় স্প্রের কাজটি করবেন

২) দ্বিতীয় পদ্ধতিতে আবারও ২৫০ মিলি জল নিয়ে তাতে হাফ চামচ ইনো যোগ করুন। এর সাথে এক চামচ রসুন বাটা,হিউমিক অ্যাসিড আর সামান্য ভিনেগার যোগ করুন। সবার শেষে চার থেকে পাঁচফোঁটা হ্যান্ড ওয়াস দেবেন। এটা কেউ ভালোভাবে মিশিয়ে আধ ঘন্টা সময় পর্যন্ত রেখে ছেকে নেবেন। বিকেলের দিকে এটা গাছে প্রয়োগ করলেই কিন্তু দেখবেন সমস্ত পোকামাকড় থেকে শুরু করে অন্যান্য সমস্যার সমাধান হয়ে গিয়েছে।

Back to top button