রোজ রোজ রুটি বেলার ঝামেলা ছাড়াই খুব সহজেই এইভাবে করুন রুটি সংরক্ষণ, থাকবে ১ মাস একদম টাটকা

নিজস্ব প্রতিবেদন: আমাদের প্রত্যেকেরই দৈনন্দিন খাদ্য তালিকায় রয়েছে রুটি। কিন্তু যারা অত্যন্ত ব্যস্ত তাদের কিন্তু বিভিন্ন ঝামেলায় আর প্রতিদিন রুটি তৈরি করা সম্ভব হয় না। এমতাবস্থায় অনেকেই রুটি খাওয়া ছাড়তে বাধ্য হন। তবে সেই সমস্ত কিছু না করে প্রতিদিন রুটি বেলার ঝামেলা ছাড়া একমাস খুব সহজেই রুটি সংরক্ষণ আপনারা করে ফেলতে পারেন। এর জন্য আপনাদের কয়েকটি স্টেপ বাই স্টেপ পদ্ধতি অবলম্বন করতে হবে। আজকের এই প্রতিবেদনে আমরা সেই বিষয়গুলি নিয়েই আলোচনা করতে চলেছি। চলুন তাহলে সময় নষ্ট না করে এই বিষয়ে জেনে নেওয়া যাক।

এই পদ্ধতিতে প্রথমেই গ্যাসে একটা পাত্র বসিয়ে কিছুটা পরিমাণ জল গরম করে নিন। হাফ কেজি বা এক কেজি আটার পরিমাণ অনুযায়ী আপনারা কিন্তু জল দেবেন।। এবার এই জলের মধ্যে পরিমাণ মতো আটা যোগ করুন। কিছুক্ষণ নাড়াচাড়া করে এটা গ্যাস থেকে নামিয়ে ঠান্ডা হওয়া পর্যন্ত অপেক্ষা করুন। এবার এই মিশ্রণটাকে আপনাদের মথে নিতে হবে। এবার এখান থেকে ছোট ছোট লেচি কেটে আপনাদের ঠিক সহজ পদ্ধতিতেই বেলনের সাহায্যে রুটি বেলে নিতে হবে। রুটির সাইজ আপনারা অবশ্যই নিজেদের পছন্দমত করতে পারেন। প্রতিটা রুটি বেলা হয়ে গেলে আপনাদের মোটামুটি কুড়ি সেকেন্ড মতন সময় নিয়ে এগুলো সেকে নিতে হবে। খুব বেশি সময় ধরে কিন্তু সেকার কাজ করবেন না।

পরবর্তী ধাপে আপনাদের রুটিগুলোকে একটা সাধারণ পাত্র বা কন্টেনারে পরপর ভরে সুন্দর করে ঢাকনা চাপা দিয়ে দিতে হবে। এবার এই রুটি গুলোকে ডিপ ফ্রিজে বা নরমাল ফ্রিজে আপনারা দু’ভাবেই সংরক্ষণ করে রাখতে পারেন। তবে নরমাল ফ্রিজে এটা মোটামুটি সাতদিন পর্যন্ত সংরক্ষণ করা যাবে। অনেকেই ভাবছেন হয়তো রুটি ফ্রোজেন হয়ে গেলে সেগুলো ফুলবে না। তাদের জন্য জানিয়ে রাখি এই ধারণা কিন্তু একেবারেই ভুল। আপনারা যদি স্টেপ বাই স্টেপ সঠিক পদ্ধতি অবলম্বন করে আজকের মত রুটি তৈরি করে সেটা সংরক্ষণ করতে পারেন তাহলে কিন্তু রুটি না ফোলার বা নষ্ট হয়ে যাওয়ার মতন কোনো সমস্যা দেখা দেবে না।

Back to top button