ছোট্ট থেকে সিনেমায় অভিনয় করা সত্ত্বেও কেন কাজ দিল না টলিউড? এত দিনে মুখ খুললেন মাস্টার রিন্টুর!

নিজস্ব প্রতিবেদন: একসময় বাংলা সিনেমার গুরুত্বপূর্ণ অঙ্গ হিসেবে ছিলেন তিনি। তবে বর্তমানে তার নাম যেন ভুলেই গিয়েছেন সকলে। আজ আমরা কথা বলছি নব্বইয়ের দশকের সেই বাংলা সিনেমার শিশুশিল্পী মাস্টার রিন্টুর(Master Rintu) সম্পর্কে। একসময় প্রসেনজিৎ চ্যাটার্জির ছোটবেলা হোক বা তাপস পালের ভাইপো সবেতেই তাকে দেখা গিয়েছে। তবে ধীরে ধীরে কোথায় যেন হারিয়ে গিয়েছেন তিনি।

এখন অনেকটাই বড়ো হয়েছেন তিনি। তবে তাকে আর বাংলা সিনেমায় খুব একটা দেখা যায় না। সেই সময় নায়কের ছোটবেলার চরিত্রের অভিনয় করলেও বর্তমানে তাকে দেখা যায় নায়কের দাদা কিম্বা অন্য পার্শ্বচরিত্রে। শুধু তাই নয় এখন হয়তো তাকে দেখে অনেকেই চিনতে পারবেন না। যদিও মাস্টার রিন্টু তার ভালো নাম নয় তার নাম সজল দে।

তবে অভিনয়ের সূত্রে তাকে এই নামেই চেনেন সকলে। তার অভিনীত প্রথম সিনেমা ‘তুমি কত সুন্দর’। যদিও প্রথমে মুক্তি পেয়েছিল গুরুদক্ষিণা সিনেমাটি। একসময় তাকে অভিনয় শিখিয়েছিলেন তরুণ মজুমদার, সন্ধ্যা রায় থেকে শুরু করে তাপস পাল। তবে আজ তাকে প্রথম দেখায় হয়তো কেউ চিনতেও পারবেন না।

অন্যদিকে তারই সমসাময়িক শিল্পী সোহম চক্রবর্তী বর্তমানে বাংলার অন্যতম জনপ্রিয় অভিনেতা। শুধু তাই নয় ‘মহানায়ক’ পুরস্কারও পেয়েছেন তিনি। অন্যদিকে কাজের বিষয়ে রিঙ্কু জানিয়েছেন কোনো পুরস্কার না পেলেও মানুষের ভালোবাসা তার কাছে রয়ে গিয়েছে। পাশাপাশি এও ক্ষোভ উগড়ে দিয়েছেন লকডাউনের সময় খেতে পেতেন না তিনি, তবে তখন টলিপড়া থেকে কেউই খোঁজ নেয়নি তার।

Back to top button