যতই খান ভালোমন্দ! তবুও বাড়বে না ওজন, কিভাবে সম্ভব? জেনে নিন

নিজস্ব প্রতিবেদন: ছুটির দিন অর্থাৎ রবিবার দুপুরের লাঞ্চে কিন্তু মাংস ভাত ছাড়া বাঙালি অন্য কিছু ভাবতেই পারে না। কখনো মুরগির মাংস আবার কখনো পাঁঠার মাংস দুটোই যেন আমাদের রসনার খুব কাছের। তবে শুধু রসনার তৃপ্তি করলেই তো চলবে না। তার সাথে ডায়েট এর উপরেও নজর রাখতে হবে। কিন্তু ডায়েটিং শুরু করলে এই মাংসের ঝোল কি খেতে পারবেন আপনি? তাহলে কি রবিবার দুপুরের আনন্দটা  মাটি করে দিতে হবে?

ডায়েটের নামে আমরা অনেক খাবারই খাদ্যতালিকা থেকে একেবারে বাদ দিয়ে দিই। পছন্দের খাবার খেতে মন চাইলেও ওজন বাড়ার ভয় খেতে পারি না। কিন্তু বিশেষজ্ঞরা জানিয়েছেন এমনটা না করেও কিন্তু পছন্দের খাবার খেয়ে নিজের ওজন ঠিক রাখা যেতে পারে। তবে তার জন্য আপনাদের অবশ্যই সঠিক কৌশল জানতে হবে। আজকের এই বিশেষ প্রতিবেদনে আমরা এই বিষয়টি নিয়েই বিস্তারিত আলোচনা করতে চলেছি। চলুন তাহলে সময় নষ্ট না করে প্রতিবেদনের মূল পর্বে যাওয়া যাক।

পছন্দ মতন খাবার খেয়েও কিভাবে ওজন ঠিকঠাক রাখবেন?

১) চাল বাছাইয়ের উপর নজর দিন:

আপনাদের দেহে কার্বোহাইড্রেট অর্থাৎ শর্করার মাত্রা কিন্তু একদম ঠিকঠাক অবস্থায় রাখতে হবে। তাই ভুল করেও খাদ্যাভ্যাস থেকে সম্পূর্ণভাবে ভাত বাদ দিয়ে দেবেন না। তবে অতিরিক্ত ভাত কিন্তু শরীরে গ্লুকোজের পরিমাণ বাড়িয়ে দিতে পারে। তাই অবশ্যই আপনাদের ভাত খাওয়ার পরিমাপ ঠিক রাখতে হবে। ওজন যাতে বেশি না বেড়ে যায় তার জন্য সাধারণ চালের জায়গায় ব্রাউন রাইস খাবার হিসেবে গ্রহণ করতে পারেন। এটা কিন্তু আপনাদের স্বাস্থ্যের জন্যও খুব ভালো।

২) সতর্কভাবে তেলের বাছাই করুন:

কি ধরনের তেলে আপনারা রান্না করছেন সেটাও কিন্তু ওজন বৃদ্ধির উপর প্রভাব ফেলে থাকে। যতটা সম্ভব পরিশোধিত তেল কম ব্যবহার করে,অলিভ অয়েল, অ্যাভোকাডো তেল, নারকেল তেল, সূর্যমুখী তেল বা ঘি দিয়ে মাংস বা অন্যান্য খাবার রান্না করবেন। এতে আপনাদের শরীরে তেলের মাত্রা নিয়ন্ত্রণ অবস্থায় থাকবে যা ডায়েটিং বজায় রাখবে।

৩) খাবারের সঙ্গে অবশ্যই স্যালাড রাখুন:

শুধুমাত্র ভাত বা মুরগির ঝোল অথবা অন্য কোন রান্না খেলে কিন্তু চট করে খিদে পেয়ে যেতে পারে। খাবারের সঙ্গে তাই অবশ্যই এক বাটি স্যালাড রাখার চেষ্টা করবেন। পুষ্টিবিদদের দেওয়া তথ্য অনুসারে খাবারের সঙ্গে যদি কেউ এক বাটি স্যালাড খায় তাহলে দীর্ঘ সময় পর্যন্ত পেট ভরা অবস্থায় থাকে এবং আমাদের শরীরেও আরো নানান ধরনের পুষ্টিগুণ যায়। অবশ্যই কিন্তু এবার থেকে এই টিপস আপনারা মিস করে যাবেন না।

৪) খাবারের আগে চিয়া জল খাওয়ার অভ্যাস তৈরি করুন:

যখন দুপুরের খাবার খেতে বসবেন ঠিক তার আগে এক গ্লাস চিয়া বীজ ভেজোনো জল খেয়ে নেওয়ার চেষ্টা করবেন। তাহলে আপনার খুব বেশি খিদে পাবে না এবং হজম ঠিকঠাক হয়ে যাবে। এটা কিন্তু আপনাকে ওজন নিয়ন্ত্রণে রাখতে দারুন সাহায্য করবে। আমাদের শেয়ার করা আজকের টিপস গুলির মধ্যে কোনটা আপনার সবথেকে বেশি ভালো লাগলো তা কমেন্ট বক্সে জানাতে পারেন।

Back to top button