ছোটোদের টিফিনে রোজ কি দেবেন! খুব সহজেই এইভাবে ঝটপট বানিয়ে ফেলুন দারুণ টেস্টি ফুলকপির পরোটা

নিজস্ব প্রতিবেদন: পাঠকদের উদ্দেশ্যে প্রায়ই সময় আমরা নিত্যনতুন রেসিপি শেয়ার করে থাকি। আজ কোন রকমের বেলার বা মাখার ঝামেলা ছাড়াই আমরা শেয়ার করে নিতে চলেছি ফুলকপির পরোটা রেসিপি। খুব সহজেই এটা তৈরি করা যাবে। জলখাবার বা বিকেলের স্ন্যাকস হিসেবে কিন্তু এক কথায় এটা দারুন। আপনারা যারা একটু নিত্যনতুন খাবার ট্রাই করতে চান তারা অবশ্যই এটা বানিয়ে নিতে পারেন

কিভাবে বানাবেন?
ফুলকপির পরোটা তৈরি করার জন্য প্রথমেই একটা পাত্রের মধ্যে কিছুটা পরিমাণ জল গরম করে তাতে ফুলকপির টুকরোগুলো দিয়ে দিতে হবে। সামান্য জল দিয়ে ফুলকপি গুলোকে কিছুক্ষণ ভাপিয়ে নেবেন। এবার ফুলকপি গুলো জল ঝরিয়ে একটা অন্য পাত্রে রেখে দিন। হালকা ঠান্ডা হয়ে গেলে একটা গ্রেটারের সাহায্যে ফুলকপি গুলোকে গ্রেট করে নিন।

গ্যাসে একটা প্যান বসিয়ে দিন এবং তাতে কিছুটা পরিমাণ রিফাইন্ড অয়েল নিয়ে গরম করে ফেলুন। তেল হালকা গরম হয়ে গেলে আধা চা চামচ গোটা জিরে আর সামান্য পরিমাণে চিলি ফ্লেক্স দিয়ে দিন। একটু নাড়াচাড়া করে আদা রসুন বাটা এতে যোগ করে দিন। উপকরণগুলো মিনিটখানেক সময় ভেজে নিন এবং তারপর মসলার কাঁচা গন্ধ চলে গেলে এর মধ্যে গ্রেট করে রাখা ফুলকপি যোগ করুন।

সামান্য পরিমাণে লবণ চিনি এবং গরম মসলার গুঁড়ো যোগ করে ভালোভাবে মিশিয়ে নিন। গ্যাসের ফ্লেম মিডিয়ামে রেখে তিন মিনিট পর্যন্ত রান্না করে নিন। এই সময় অবশ্যই একটু দেখে নেবেন যে লবণ আর মিষ্টি ঠিক আছে কিনা। রান্না হয়ে গেলে প্যানের মাঝখানে একটু জায়গা করে নিয়ে সেখানে পেঁয়াজের কিমা কুচি দিয়ে দিন। সবকিছু আরো একবার ভালো করে মিশিয়ে নিলেই কিন্তু ফুলকপির পুর তৈরি হয়ে যাবে। একটা পাত্রে নামিয়ে রেখে দিন যাতে ঠান্ডা হয়ে যায়। অন্য পাত্রে এক কাপ পরিমাণে ময়দা দিয়ে দিন। ময়দার মধ্যে স্বাদমতো লবণ, হাফ চা চামচ চিনি যোগ করুন।

ভালোভাবে অল্প অল্প করে সাধারণ তাপমাত্রার জল দিয়ে এটাকে মিশিয়ে ফেলুন এবং তারপর ফুলকপির পুর এতে যোগ করে দিন।। বেশ কিছুক্ষণ নাড়াচাড়া করার পরে যখন ভালোভাবে সমস্ত উপকরণ মিশে যাবে তখন গ্যাসে একটা প্যান বসিয়ে তাদের সামান্য তেল ব্রাশ করে নিয়ে এই মিশ্রণ টাকে একটু একটু করে ঢেলে দিন।। চামচের সাহায্যে বা প্যানটাকে একটু ঘুরিয়ে মিশ্রণটাকে ছড়িয়ে দেবেন তাহলেই কিন্তু পরোটা তৈরি হয়ে যাবে। একদিক ভাপানো হয়ে গেলে অপরদিক টাও ঠিক সমানভাবে ভেজে নেবেন। সুস্বাদু চাটনি বা তরকারির সাথে এটা পরিবেশন করতে পারেন।।

Back to top button