টবে থাকা গাছে রোজ দিয়ে দেখুন ভেসলিন! ঘটবে দারুণ ম্যাজিক, না দেখলে বিশ্বাস করতে পারবেন না নিজের চোখকেও

নিজস্ব প্রতিবেদন: বাগান করতে কমবেশি সকলেই অত্যন্ত পছন্দ করে থাকেন। তবে শুধু গাছ লাগালেই কিন্তু বাগানের সমস্ত কাজ শেষ হয়ে যায় না। নিয়মিত সবদিক থেকে গাছগুলোর যত্ন করা এবং গাছগুলো যতদিন না বড় হয়ে ফলন দিচ্ছে সেগুলোকে খাবার দেওয়া কিন্তু আমাদের দায়িত্ব। পাশাপাশি গাছকে রোগব্যাধির হাত থেকেও রক্ষা করতে হবে না হলে গাছ সঠিক বৃদ্ধি পাবে না।

আজকের এই বিশেষ প্রতিবেদনে তাই এই সমস্ত দিক বিবেচনা করে আমরা নিয়ে চলে এসেছি কয়েকটি টিপস। চলুন আর দেরি না করে আজকের এই প্রতিবেদনটি শুরু করা যাক। আজ আমরা বলবো গাছের পরিচর্যায় ব্যবহৃত ভেসলিনের কথা। এই ভেজলিন অর্থাৎ পেট্রোলিয়াম জেলি শীতকালের ঠিক আগেই বাজারের বিভিন্ন দোকানে আপনারা পেয়ে যাবেন। ত্বকের রুক্ষতা দূর করা থেকে শুরু করে নানান ধরনের কাজে এটাকে ব্যবহার করা হয়ে থাকে।

১) অনেক গাছেই কিন্তু মিলিবাগের আক্রমণ লক্ষ্য করা যায়। এর প্রধান বাহক হচ্ছে পিঁপড়ে। এক গাছ থেকে তারা মিলিবাগ গুলোকে অন্য গাছে নিয়ে যায় শর্করা জাতীয় খাবারের চাহিদায়। মিলিবাগের আক্রমণের হাত থেকে রেহাই দেওয়ার জন্য গাছের গোড়া থেকে একটু উপরের অংশে আপনাদের গোল করে ভেসলিনের প্রলেপ দিয়ে দিতে হবে। দুই থেকে তিন দিনের মধ্যে যখন এই ভেজলিন শুকিয়ে যাবে তখন আবারো নতুন করে প্রলেপ দেবেন। তবে ভেসলিন লাগানোর আগে জায়গাটা একবার পরিষ্কার করে নিতে ভুলবেন না।

২) টবের আশেপাশে কিন্তু অনেক সময়, বিশেষ করে বর্ষাকালে কেন্নো বা শামুক লক্ষ্য করা যায়। এই সমস্যা থেকে রেহাই পাওয়ার জন্যেও টবের চারপাশে গোল করে ভেসলিন লাগিয়ে দিলে কিন্তু আর এগুলোর উপদ্রব দেখা দেবে না।

অনেক ফুলগাছেই কিন্তু ব্যাপক পরিমাণে মিলি বাগের আক্রমণের কারণে সমস্যা সৃষ্টি হয়। গাছের পাতা হলুদ হয়ে যাওয়া থেকে শুরু করে পাতা কুঁকড়ে যাওয়ার মতন অসুবিধা দেখা দেয়। সুতরাং এই সমস্ত সমস্যা থেকে যদি আপনারা মুক্তি পেতে চান তাহলে একদমই দেরি না করে ভেসলিনের ব্যবহার ট্রাই করে দেখুন। শুধুমাত্র ত্বককে সুন্দর করতে নয় গাছের ডাল পালাও সুন্দর আর সতেজ করে তুলতে এটা আপনাকে সাহায্য করবে। এই ধরনের গাছপালা সংক্রান্ত বিভিন্ন টিপস পেতে চাইলে পরবর্তী প্রতিবেদন গুলির উপর নজর রাখতে থাকুন।

Back to top button