পুর তৈরির ঝামেলা ছাড়াই এই সহজ ঘরোয়া পদ্ধতিতে বানিয়ে দেখুন দারুণ টেস্টি দুধ পাটিসাপটা, রইলো সম্পূর্ণ পদ্ধতি

নিজস্ব প্রতিবেদন: শীতের সিজন বিভিন্ন পিঠে পুলির রেসিপি ছাড়া কিন্তু চট করে ভাবা যায় না। এই সময়ের একটি অত্যন্ত জনপ্রিয় পিঠের রেসিপি হল দুধ পাটিসাপটা। খুব সহজেই এটা বাড়িতে বানানো যেতে পারে তবে পুর তৈরি করার ঝামেলা ভোগ করার জন্য আর হয়ে ওঠে না। আজকের এই বিশেষ প্রতিবেদনে তাই পুর তৈরি করার ঝামেলা ছাড়াই আপনাদের জন্য দুধ পাটিসাপটা তৈরির বিশেষ পদ্ধতি শেয়ার করে নেব। আশা করছি আপনাদের আজকের রেসিপি ভালো লাগবে।

প্রথমে একটা বাটির মধ্যে হাফ কাপ ময়দার সাথে কিছুটা পরিমাণ চালের গুঁড়ো নিয়ে নেবেন। শুকনো অবস্থায় এই দুটো উপকরণকে ভালোভাবে মিশিয়ে দিন।তারপর অল্প অল্প করে জল ব্যবহার করে আপনাদের একটা ব্যাটার তৈরি করে নিতে হবে। একবারে জল ঢেলে দিলে কিন্তু খুব বেশি পাতলা হয়ে যেতে পারে অথবা দলা পেকে যেতে পারে তাই ধীরেসুস্থে কাজটি করবেন।

দশ মিনিটের জন্য এই ব্যাটারটাকে এবারে ঢাকা দিয়ে রাখুন। তারপর যে কোন অন্য পাত্রের মধ্যে কয়েকটি গুড়ের মাখা সন্দেশ নিয়ে নিন।। যেকোনো মিষ্টির দোকানেই কিন্তু আপনারা এই সন্দেশ পেয়ে যাবেন। হাত দিয়ে সন্দেশগুলোকে ভেঙে আপনাদের এর মধ্যে একটু খেজুরের গুড় যোগ করে দিতে হবে। তাহলে এর ফ্লেভার আরো ভালো হয়ে যাবে।

এবার গ্যাসে একটা প্যান বসিয়ে কয়েক ফোঁটা সাদা তেল ভালো করে ব্রাশ করে নিন। তারপর চামচে করে এই ব্যাটার একটু একটু করে প্যানের মধ্যে দিতে শুরু করবেন। একটা গোল রাউন্ড শেপ করে আপনাদের এটা একটু হাতা অথবা চামচের সাহায্যেই ছড়িয়ে দিতে হবে। একটু ভেবে গেলে আপনাদের এর মধ্যে গুড়ের সন্দেশ থেকে একটা গোল্লা পাকিয়ে মাঝ বরাবর দিয়ে দিতে হবে। তারপর একটা ছোট্ট স্প্যাচুলার সাহায্যে এগুলোকে ধীরে ধীরে রোল করে পিঠেগুলো তৈরি করে ফেলুন। সম্পূর্ণ ব্যাটার দিয়েই এভাবে পিঠে তৈরি করে নেবেন।

পাটিসাপটা তৈরি হয়ে গেলে এবার আপনাদের একটা পাত্রের মধ্যে পরিমাণ মতন অর্থাৎ প্রায় এক থেকে দেড় লিটার দুধ নিয়ে ফুটিয়ে নিতে হবে কিছুক্ষণ। দুধ যখন কিছুটা ফুটতে শুরু করবে তখন কিন্তু এটাকে ঘন ঘন নাড়াচাড়া করতে থাকবেন। দেখবেন এই সময় দুধের যে সর তৈরি হবে সেটাকে আলতো করে স্প্যাচুলার সাহায্যে আপনাদের দুধের মধ্যে মিশিয়ে দিতে হবে যাতে এর মধ্যে অনেকটা রাবড়ির স্বাদ চলে আসে।

গ্যাসের ফ্লেম হাই করে আবারো কিছুক্ষণ দুধ ফুটিয়ে নিন। দুধ একটু ঘন হয়ে সুন্দর টেক্সচার চলে আসলে এর মধ্যে খেজুরের পাটালি গুড় দিয়ে দিন। এই সময় গ্যাস অফ করে দেবেন। দুধ যেহেতু গরম আছে তাই গুড় আপনেই গলে যাবে। এবার ভালোভাবে আপনাদের দুধ একটু নাড়াচাড়া করে মিশিয়ে তার মধ্যে পিঠে গুলোকে দিয়ে দিতে হবে। কিছুক্ষণ স্ট্যান্ডিং টাইমে রেখে পরিবেশন করতে পারেন।

Back to top button