যে খাবে সেই বলবে অসাধারণ! এই সহজ ঘরোয়া উপায়ে বানিয়ে দেখুন দারুণ টেস্টি ফিস কাবাব

নিজস্ব প্রতিবেদন: কাবাব এর বিভিন্ন রেসিপি কিন্তু আপনারা কম-বেশি প্রায় সকলেই খেয়েছেন বলতে পারি। তবে সাধারণত রেস্টুরেন্টে যে সমস্ত ভাবে এগুলি তৈরি করা হয়ে থাকে বাড়িতে কিন্তু সেটা সম্ভব হয় না। এবার উৎসবের মরসুম চলছে। এই সময় কিন্তু বাড়িতে অনেক অতিথিদের আনাগোনা হয়ে থাকে। তাই আমরা আপনাদের সঙ্গে একটি দারুণ টেস্টি ফিস কাবাব এর রেসিপি শেয়ার করে নিতে চলেছি। খুব সহজ উপায়ে আপনারা এটা বাড়িতে তৈরি করে নিতে পারবেন। তাহলে আর সময় নষ্ট না করে আমাদের আজকের এই বিশেষ প্রতিবেদনটি শুরু করা যাক।

বাড়িতে ফিশ কাবাব তৈরির পদ্ধতি:

১) কাবাব তৈরি করার জন্য আপনাদের হাফ কেজি শিলং মাছ নিয়ে নিতে হবে। খেয়াল রাখবেন মাছ যেন বোনলেস হয়। এবার এর মধ্যে সামান্য লবণ আর হলুদ গুঁড়ো যোগ করে দিন। এছাড়াও দিয়ে দিতে হবে এক টেবিল চামচ লেবুর রস। মোটামুটি ভালো করে কিছুক্ষণ মাছের সাথে এগুলিকে মিশিয়ে নিয়ে ১০ মিনিট পর্যন্ত রেখে দিন। এতে মাছ জল ছেড়ে দেবে এবং এর মধ্যে থাকা বাজে গন্ধ বেরিয়ে যাবে। ১০ মিনিট পর একটা প্যানের মধ্যে এক টেবিল চামচ তেল নিয়ে আপনাদেরকে মাছগুলিকে হালকা করে ভেজে নিতে হবে।

মোটামুটি হাই ফ্লেমে তিন থেকে চার মিনিট পর্যন্ত ভাজলেই হয়ে যাবে। ভাজা হয়ে গেলে তেল সহ মাছগুলিকে একটা প্রেসার কুকারের মধ্যে দিয়ে দিন। এরপর এর মধ্যে আপনাদের দিয়ে দিতে হবে ছোলার ডাল। মোটামুটি আধ ঘন্টা আগে আপনারা ডাল ভিজিয়ে রাখার চেষ্টা করবেন। এবার মসলা হিসেবে আপনাদের দিতে হবে হাফ চামচ লবণ, এক টেবিল চামচ লাল লঙ্কার গুঁড়ো, এক টেবিল চামচ চিলি ফ্লেক্স, হাফ টেবিল চামচ গোল মরিচের গুড়ো, এক টেবিল চামচ চাট মসলা, এক টেবিল চামচ গরম মসলা, এক টেবিল চামচ জিরা গুঁড়ো, এক টেবিল চামচ ধনে গুঁড়ো, এক টেবিল চামচ আদা রসুন বাটা, একটা মিডিয়াম সাইজের পেঁয়াজ এবং দুটি তেজপাতা। এর মধ্যে তিন চতুর্থাংশ জল পরিমাপ মত যোগ করে দিন।

২) দ্বিতীয় ধাপে আপনাদেরকে প্রেসার কুকারের ঢাকনা লাগিয়ে হাই ফ্লেমে প্রথম সিটি দেওয়ার পরে ১০ মিনিট পর্যন্ত লো ফ্লেমে রান্না করে নিতে হবে। প্রেসার বেরিয়ে যাবার পরে ঢাকনা খুলে দিতে হবে আপনাদের। যদি আপনারা প্রেসার কুকার এর মধ্যে এর পরেও অতিরিক্ত জল দেখতে পান সেক্ষেত্রে হাই ফ্লেম করে এটাকে শুকিয়ে নিতে হবে। এবার হাতার সাহায্যে সম্পূর্ণ মিশ্রণটিকে আপনাদের ভালো করে নাড়াচাড়া করে নিতে হবে।

এক টেবিল চামচ আমচুর পাউডার যোগ করে দিন। আমচুর পাউডার না থাকলে বিকল্প হিসেবে লেবুর রস ব্যবহার করতে পারেন। এবার আপনাদের এর মধ্যে যোগ করে দিতে হবে পেঁয়াজ কুচি,ধনে পাতা কুচি, পুদিনা কুচি, কয়েকটি কাঁচা লঙ্কার টুকরো এবং একটি ডিম। যদি আপনারা ডিম ব্যবহার করতে না চান সে ক্ষেত্রে কর্নফ্লাওয়ার ব্যবহার করতে পারেন।

৩) সমস্ত উপকরণ ভালো করে মিশিয়ে নেওয়ার পর সর্বশেষ ধাপে এই গুলি কে আপনাদের কাবাবের শেপ দিয়ে দিতে হবে। এবার কিছু সময় অন্তর আপনারা প্যানে তেল গরম করে প্রত্যেকটা কাবাব ভালো করে ভেজে নেবেন। পেঁয়াজের স্লাইস,টমেটো,শসা এবং ধনেপাতা প্রভৃতি দিয়ে স্যালাড তৈরি করে আপনারা এই কাবাব পরিবেশন করতে পারেন।। এই ফিশ কাবাব আপনাদের কেমন লাগলো তা অবশ্যই আমাদেরকে কিন্তু জানাতে ভুলবেন না।

Back to top button