বাড়ির উঠোনেই টবেতেই এইভাবে লাগান কাঁঠাল গাছের চারা, অল্পদিনেই ছোট্ট গাছে ধরবে প্রচুর কাঁঠাল

নিজস্ব প্রতিবেদন: কাঁঠাল এমন একটি ফল যা কমবেশি সকল মানুষ পছন্দ করে থাকেন। বাড়ির বাগানে প্রায় সময় অনেকেরই এই কাঁঠাল গাছ শোভা পায়। তাই যদি আপনিও এই ফলটিকে ভালবাসেন সে ক্ষেত্রে খুব সহজেই বাড়িতে এটি কিন্তু চাষ করতে পারেন। কিন্তু কিভাবে করবেন বা পদ্ধতি জানেন না! তাহলেও একদম চিন্তা করার দরকার নেই। কারণ আজ আমরা আপনাদের সাথে শেয়ার করে নেব কিভাবে খুব সহজ পদ্ধতিতে বাড ক্রাফটিং এর সাহায্যে আপনারা কাঁঠাল উৎপাদন করতে পারেন।। এই সম্পূর্ণ পদ্ধতিটি জানার জন্য আপনাদের কিন্তু একেবারে শেষ পর্যন্ত প্রতিবেদনটি পড়তে হবে। যদি কোথাও অসুবিধা থাকে সেক্ষেত্রে অবশ্যই সঙ্গে থাকা ভিডিওটি দেখে নিতে ভুলবেন না।

এই পদ্ধতিতেই আপনাকে প্রথমে কোন পরিণত কাঁঠাল গাছের কাণ্ডের অংশ একটা ধারালো কিছুর সাহায্যে একটু ছুলে নিতে হবে। এবার জায়গাটাতে একটু মাটির প্রলেপ লাগিয়ে দিন। তারপর আপনাকে একটা পেঁয়াজ নিয়ে খোসা ছাড়িয়ে নিতে হবে ‌। এবার একটা ট্রেতে কিছুটা পরিমাণ মাটি নিয়ে তার মধ্যে এই পেঁয়াজ কুচি করে মিশিয়ে দিন। তারপর মাটির লেয়ার দিয়ে একটি গর্ত তৈরি করে তার মধ্যে কাঁঠাল গাছের যে অংশটি কেটেছিলেন সেটাকে পুঁতে দিন

এবার উপরে আবারো মাটির লেয়ার করে দিয়ে একটু জল ছিটিয়ে দেবেন।। তারপর একটা প্লাস্টিকের বোতল কেটে নিয়ে যে জায়গাতে আপনারা কাণ্ডের অংশটি রোপন করেছেন সেই জায়গাটা ঢেকে দিন। পরবর্তী কয়েক দিনের মধ্যেই কিন্তু ধীরে ধীরে এটি থেকে চারা বেরিয়ে আসবে।

চারা যখন কিছুটা বড় হয়ে যাবে তখন আপনাকে প্লাস্টিকের বোতলের কভার খুলে দিতে হবে। তারপর ধীরে ধীরে যত্ন সহকারে চারা গাছটিকে ট্রে থেকে বের করে নিয়ে আসবেন এবং মাটিতে প্রতিস্থাপনের ব্যবস্থা করবেন।। আপনারা চাইলে কিন্তু বড় কোন টবেও আপাতত রোপন করতে পারেন ‌‌। তার জন্য একটা বড় টব নিয়ে তাতে কিছুটা পরিমাণ মাটি, গোবর সার আর কিচেন ওয়েস্ট মিশিয়ে দিন। তারপর এগুলির সাথে ভালো করে মাটির একটা লেয়ার তৈরি করে একটু জায়গা করে চারা গাছটাকে রোপন করে দেবেন।

আলো ছায়াযুক্ত স্থানে রাখবেন এবং পরিমাণ মতো জল দেবেন। তাহলেই কিন্তু খুব সহজে ধীরে ধীরে এই গাছ বড় হয়ে উঠবে এবং পরিণত হওয়ার পর আপনাকে বাম্পার ফলন দেবে। প্রসঙ্গত অবশ্যই কিন্তু সময় মতন জল আর ফার্টিলাইজার প্রয়োগ করতে ভুলবেন না। কারণ গাছ তার উপযুক্ত খাদ্য না পেলে কিন্তু ফলনে বাধা সৃষ্টি হতে পারে। গাছপালা সংক্রান্ত এই ধরনের আরো টিপস পেতে চাইলে আমাদের অন্যান্য প্রতিবেদন গুলির উপর নজর রাখতে থাকুন।

Back to top button