সারা রাজ্যে এই ব্যবসা একদম নতুন! খুব অল্প পুঁজিতে একবার শুরু করতে পারলেই সারাবছর লাভ হবে দুর্দান্ত

নিজস্ব প্রতিবেদন: বর্তমান সময়ে নিজেদের কর্মসংস্থানের জোগাড় করার জন্য মানুষ নানান ধরনের চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন। চাকরি আর ব্যবসা হল এর মধ্যে অন্যতম মাধ্যম। যেহেতু চাকরির খুব একটা নিয়োগ এখন নেই তাই বহু সংখ্যক মানুষ কিন্তু ব্যবসার দিকে ঝুঁকে পড়েছেন। আজকের এই বিশেষ প্রতিবেদনে আমরা এমন একটি ব্যবসার কথা আপনাদের সাথে শেয়ার করে নেব যার পূর্ববর্তী সময়ে যেমন চাহিদা ছিল, বর্তমান সময়ও রয়েছে এবং আগামী দিনেও থাকবে।

কখনোই কিন্তু এই প্রোডাক্টের চাহিদার কোন অভাব হবে না। আসলে আমাদের দৈনন্দিন জীবনে এই প্রোডাক্ট এতটাই প্রয়োজনীয় যে দিন প্রতিদিন এটির দাম আর উৎপাদন দুটোই বৃদ্ধি পাবে। এই প্রোডাক্টটি হল খাতা বা নোটবুক। অর্থাৎ আজকের এই বিশেষ প্রতিবেদনে আমরা আপনাদের সাথে শেয়ার করে নেব খাতা বা নোটবুক তৈরির ব্যবসার কথা যা একেবারে সামান্য পুঁজিতে আপনারা মেশিন কিনে শুরু করতে পারবেন।

প্রতিবেদনের শেষে আমরা আপনাদের এমন একটি কোম্পানির ঠিকানাও দিয়ে দেব যেখানে অত্যন্ত কম দামে আপনারা মেশিন কিনতে পেয়ে যাবেন। তবে চলুন তার আগে এই ব্যবসাটি কিভাবে করতে হবে সেই প্রসঙ্গে একটু বিস্তারিত জেনে নেওয়া যাক।

খাতার ব্যবসা শুরু করার উপযুক্ত জায়গা এবং পদ্ধতি:

যেকোনো ব্যবসা শুরু করার কিন্তু একটি উপযুক্ত জায়গা রয়েছে।খাতা তৈরির ব্যবসা আপনাকে এমন একটি জায়গায় শুরু করা উচিত যেখানে সর্বাধিক স্কুল, কলেজ, বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাস রয়েছে, কারণ এই সব এলাকায় খাতার চাহিদা সবচেয়ে বেশি থাকে। এই সমস্ত জায়গায় ব্যবসা শুরু করলে আপনাকে পণ্য পরিবহন করার জন্য খুব একটা চার্জ দিতে হবে না এমনকি আপনারা নিজেদের দোকানের মাধ্যমেও কিন্তু এই খাতা বিক্রয় করতে পারবেন।

তৈরি করার পর সোজাসুজি তা বিক্রয় করতে পারলে স্বাভাবিকভাবেই কিন্তু আপনাদের লাভ অনেকটাই বেশি হবে।খাতা তৈরি করতে যা-যা কাঁচামালের প্রয়োজন হয় সেই সব হল দিস্তা কাগজ (দাম : 62 টাকা প্রতি কেজি),পিচবোর্ড (দাম : 1 টাকা প্রতি পিস)। জায়গা এবং কাঁচামাল আলোচনা করার পর আমরা চলে আসবো খাতা বা নোটবুক তৈরির মেশিনের কথায়।

নোটবুক তৈরি করার জন্য তিন ধরনের মেশিন প্রয়োজন হয়ে থাকে তা হল কাটিং, স্টিচিং আর স্কয়ার। খাতা কাটিং করে খুব সহজেই আপনারা স্টিচ করে চার কোনাটা সমান করে প্যাকিং করে নিতে পারেন। এই মেশিনটি বসানোর জন্য একটা ১০/১০ এর জায়গা প্রয়োজন হবে আপনাদের। মাত্র দুজন শ্রমিক রেখেই কিন্তু প্রাথমিক অবস্থায় এই ব্যবসা আপনারা চালাতে পারবেন। মেশিন কিভাবে সেটিং করতে হবে বা কিভাবে এর থেকে নোটবুক তৈরি করতে হবে তার সমস্ত কিছু তথ্যই আপনারা ম্যানুফ্যাকচারিং ইউনিট থেকে আসা টেকনিশিয়ানের কাছ থেকে পেয়ে যাবেন।

মেশিন কিনলে এই সমস্ত পরিষেবা কিন্তু আপনাদের সম্পূর্ণ বিনামূল্যে প্রদান করা হবে। আজ যে ম্যানুফ্যাকচারিং ইউনিটের কথা আপনাদের সাথে বলব সেখানে কিন্তু অল ওভার ইন্ডিয়ার পাশাপাশি বাইরের কোন দেশেও খুব সহজে মেশিন আর কাঁচামাল সাপ্লাই করা হয়ে থাকে। তাই যদি দেশের বাইরে অবস্থানরত কোন মানুষই প্রতিবেদনটি পড়ে থাকেন তাহলে কোন সমস্যা হবে না। নিশ্চিন্তে আপনারা এই নোটবুক তৈরি করার ব্যবসা শুরু করার কাজে এগিয়ে আসতে পারেন।

খাতা তৈরি করার পর তার প্যাকেজিং এবং বাজারজাতকরণ:

খাতার প্যাকেজিং আপনি দু-ভাবে করতে পারেন, এক পাইকারি এবং দ্বিতীয় খুচরা। পাইকারি প্যাকিংয়ের জন্য বড় প্যাকেট তৈরি করতে হবে, ডিলারের প্রয়োজন অনুযায়ী কপি বড় ব্যাগে প্যাক করা যেতে পারে। অপরদিকে যদি আপনি খুচরা হিসেবে প্যাকেজিং করতে চান তাহলে প্রতি সাধারণ প্যাকেটে ছয় কপি করে খাতা প্যাক করে নিকটবর্তী সমস্ত স্টেশনারি দোকানের সাথে যোগাযোগ করে সরবরাহ করতে পারেন। প্রথমদিকে আপনাকে স্থানীয় দোকানগুলিকেই মূল টার্গেট করতে হবে ধীরে ধীরে আপনারা দূরবর্তী জায়গায় নিজেদের ব্যবসা ছড়িয়ে দিতে হবে।

কোথা থেকে মেশিন কিনবেন?

যদি আপনারা এই নোটবুক বা খাতা তৈরি করার মেশিন কিনতে চান সে ক্ষেত্রে আর সময় নষ্ট করবেন না। দূরবর্তী কোনো স্থানে থাকলেও আপনারা কিন্তু ফোনের মাধ্যমে কোম্পানির সাথে যোগাযোগ করে ব্যবস্থা করে নিতে পারেন। তার জন্য ঠিকানা সহ অন্যান্য বিস্তারিত তথ্য আমরা নিচে উল্লেখ করে দিচ্ছি।

Factory Name : Creative industries.
Opp market complex.
Hyderpara market, Siliguri
Contact number: 9709000609/9002771995.

Back to top button