সারা রাজ্যে এর বিকল্প নেই কোনো! মাত্র দেড় হাজার টাকা ইনভেস্টে শুরু করুন এই দুর্দান্ত ব্যবসা, মাস গেলে আয় হবে ৩০ হাজার

নিজস্ব প্রতিবেদন: ব্যবসা হল এমন একটি ক্ষেত্র যার সাহায্যে খুব সহজেই আমরা সাবলম্বী হয়ে উঠতে পারি।কিন্তু বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই দেখা যাচ্ছে সঠিক ব্যবসায়িক আইডিয়া না থাকার কারণে এবং মূলধনের অভাবে কিন্তু তারা এই ব্যবসা শুরু করতে পারছেন না। বিশেষ করে লকডাউনের পর থেকেই অনেক মানুষ বেকার হয়ে পড়েছেন।

তাই স্বাভাবিকভাবেই বহু মানুষ অর্থ উপার্জনের জন্য বিকল্প পদ্ধতির চেষ্টা চালাচ্ছেন। আজকের এই বিশেষ প্রতিবেদনে আমরা সাধারণ মধ্যবিত্ত মানুষের জন্য কম খরচে একটি ব্যবসার পদ্ধতি সম্পর্কে আলোচনা করতে চলেছি যা অত্যন্ত কাজে লাগবে। কিভাবে এই ব্যবসা শুরু করবেন? কোথা থেকে কাঁচামাল কিনবেন এবং কত কি উপার্জন হবে আমরা সবকিছুই এই প্রতিবেদনে আলোচনা করে নেব।

কোন ধরনের ব্যবসা আপনাদের জন্য উপযুক্ত এবং কিভাবে তা শুরু করবেন?

গ্রামে বা শহরে মুরগি বাহাসের চাহিদা প্রচুর আছে। শহরে মুরগির মাংসের এবং ডিমের জন্য চাহিদা আছে এবং গ্রামে হাঁস এবং মুরগির চাহিদা আছে কারন হাঁস বা মুরগির ডিমের জন্য, তার জন্য গ্রামের দিকে পশুপালন হিসাবে জনপ্রিয় ব্যবসা হয়ে উঠেছে। সেই জন্য মুরগি বা হাঁসের ডিম থেকে বাচ্চা তোলা বা বাচ্চা ফোটানোর ব্যাপারে আজকে আপনাদের সঙ্গে আলোচনা করব।

এই কাজটি করার জন্য আমাদের সাধারনত একটি মেশিন প্রয়োজন হয়ে থাকে যার নাম ইনকিউবেটর মেশিন।। গ্রাম থেকে শুরু করে শহর সব জায়গাতেই কিন্তু আপনারা এই ব্যবসা শুরু করতে পারবেন। অবশ্যই এই ব্যবসা শুরু করার জন্য আপনাদের একটি খোলামেলা বড় জায়গার প্রয়োজন থাকবে।

লাভের পরিমাণ:

আপনারা প্রথম অবস্থায় একটি ১০০ ডিম ক্যাপাসিটি মেশিন কিনে ব্যবসা শুরু করতে পারেন। এক্ষেত্রে আপনাদের মোটামুটি কুড়ি থেকে ত্রিশ হাজার টাকা পর্যন্ত লাভ হতে পারে। মোটামুটি এভাবে লাভ হতে থাকলে আপনারা কিন্তু পরে ব্যবসা আরো বড় করে এতে ইনভেসমেন্ট করতে পারবেন সহজেই। সব জায়গাতেই যেহেতু হাঁস এবং মুরগির ডিমের চাহিদা রয়েছে তাই আপনাদের কিন্তু কোন সমস্যাই হবে না। যেকোনো ব্যবসা করার ক্ষেত্রেই কিন্তু বাজার চাহিদা সবথেকে গুরুত্বপূর্ণ বিষয়। আর এখানে আপনাদের বাজার চাহিদা কোনদিন কমবে না একথা আমরা স্পষ্ট করে বলতে পারি।

মেশিনের প্রকারভেদ এবং মেশিন কেনার সুযোগ্য ঠিকানা:

ইনকিউবেটর মেশিন দুই ধরনের হয় অটোমেটিক এবং সেমি অটোমেটিক সেমি অটোমেটিক মেশিনের দাম ৫,০০০ টাকা থেকে শুরু হয় কিন্তু অটোমেটিক মেশিন এর দাম একটু বেশি হয় সেগুলি ১.৫ লাখ টাকা পর্যন্ত হয়। মেশিনে ডিম থাকার ক্যাপাসিটি এবং অটোমেটিক এবং সেমি অটোমেটিক এর উপর ভিত্তি করে মেশিনের দাম কম বেশি হয়।এই মেশিনটি বাড়িতে যে বিদ্যুৎ সংযোগ আছে সেই বিদ্যুৎ এই চলবে।

এই মেশিনের ভিতর একটি হিটিং মেশিন একটি ফগিং মেশিন এবং দুটি পাখা থাকে এই গুলি চালানোর জন্য বিদ্যুতের দরকার হয়, অটোমেটিক মেশিনে ডিম নাড়ানোর কোন প্রয়োজন হয় না শুধুমাত্র ফগিং মেশিনে জল কমে গেলে জল দিতে হয়, এই ফগিং মেশিনটি জলকে জলীয়বাষ্প আকারে পরিণত করে। যদি আপনারা পাইকারি দামের মধ্যে এই মেশিন খরিদ করতে চান সেক্ষেত্রে নিচের দেওয়া ঠিকানায় দ্রুত যোগাযোগ করে নিতে পারেন।
Swapner choya shree farm house.
Tetulia,lal bagh,hazar duari, Berhampur, Murshidabad.
Contact : 9647877717

Back to top button