বিছানায় শুয়ে ছিল ছোট্ট বালক! আচমকা ওপর থেকে পড়লো বিশালাকার কিং কোবরা, তারপর যা ঘটলো!

নিজস্ব প্রতিবেদন: আধুনিক যুগের যুগান্তকারী আবিষ্কার গুলির মধ্যে রয়েছে সোশ্যাল মিডিয়া। এর মাধ্যমে যেমন দূরদূরান্তের মানুষের সাথে যোগাযোগ রক্ষা করা যায় ঠিক তেমনভাবেই মাত্র কয়েক সেকেন্ডের মধ্যে কিন্তু যে কোন খবরা খবর পাওয়া যায়। একটা সময় ছিল যখন যে কোন ঘটনা বা জিনিস জানার জন্য আমাদের টেলিভিশন বা রেডিওর উপর নির্ভরশীল থাকতে হতো।

কিন্তু এখন আর সেই দিন নেই। বরং তার জায়গায় চলে এসেছে সোশ্যাল মিডিয়া বা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম। সোশ্যাল মিডিয়ায় আমরা বিভিন্ন জীবজন্তু সংক্রান্ত ভিডিও অত্যন্ত দ্রুতগতিতে ভাইরাল হতে দেখি। সাপের যে কোন ভিডিও এখানে কিন্তু দারুণ ভাইরাল হয়।

আসলে সাপ এমন এক প্রাণী যাকে বিভিন্ন কারণে বিভিন্ন মানুষ ভয় পেয়ে থাকেন। কিছু মানুষের ক্ষেত্রে ভয়ের কারণ হচ্ছে ধর্মীয়। সম্প্রতি সোশ্যাল মিডিয়ায় এমন একটি সাপের ভিডিও ভাইরাল হয়েছে যা দেখলে অবাক হয়ে যেতে হয়।

ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে একটি বাড়িতে কোনভাবে বিষধর সাপ ঢুকে গিয়েছে এবং একজন ব্যক্তি সেই সাপটিকে উদ্ধার করতে উপস্থিত হয়েছেন। একেবারে বেডরুমের ভেতর ঢুকে গিয়েছে এই সাপটি। রুমের দরজার কোণে একেবারে গা ঘেঁসে বসেছিল এই বিষধর। সর্পরক্ষক ব্যক্তি যখন দরজা সরিয়ে সাপ ধরার যন্ত্রের সাহায্যে বিষধর থেকে বের করে নিয়ে আসার চেষ্টা করেন তখনই একটা ভয়াবহ ঘটনা ঘটে যায়।

অতর্কিত আক্রমণে সাপটি ক্রুদ্ধ হয়ে যাওয়ার কারণে ওই ব্যক্তিকে ফণা তুলে ছোবল মারতে উদ্যত হয়। কিন্তু অনেক কষ্টে ওই ব্যক্তি নিজেকে সামলে নিলে সাপটা আবারো ভেতরে ঢুকে যায়। সাপটা আসলে ওই দরজার কোন একটি গর্ত খোঁড়ার চেষ্টা করছিল যাতে সে বাইরে চলে যেতে পারে। যদিও শেষ পর্যন্ত এই কাজে বিষধর টি সক্ষম হয়নি। আসলে সাপটি ভাবছিল তাকে হয়তো মেরে ফেলা হবে তাই বারংবার সে ঘর থেকে বেরোনোর চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছিল।

সাপটা যেহেতু বারবার ছোবল মারতে যাচ্ছিল আর তখনই সাপটার নিঃশ্বাসটা লাগছিল, আর এই জিনিসটাকে অনেক মানুষ ভেবে থাকে সাপের হাওয়া লেগে গেছে হয়তো শরীর খারাপ করবে। কিন্তু এই জিনিসে কোন ক্ষতি হয় না। দেখা যায় যখনই লোকটা সাপটাকে বের করার চেষ্টা করছে তখনই সাপটা ছোবল মারতে যাচ্ছে।

তারপরে অনেক কিছুর পর সাপটাকে বাইরে বের করে সেই লোকটা। উপস্থিত সকলেই ওই ব্যক্তির প্রশংসায় পঞ্চমুখ হয়ে ওঠেন। বারংবার বিষধর সাপের ছোবলের মুখে পড়েও যেভাবে সাহসিকতার সাথে সাপটিকে বের করে নিয়ে এসেছেন তিনি তা নিঃসন্দেহে প্রশংসারযোগ্য।

পাঠকদের উদ্দেশ্যে জানিয়ে রাখি এই সাপটি হল মনকল্ড কবরা।উড়িষ্যা জেলার ভদ্রক জেলাতেই এই ধরনের বিষাক্ত সাপ বেশি দেখতে পাওয়া যায়। নাগ লোক নামের একটি ইউটিউব চ্যানেল থেকে ভাইরাল ভিডিওটি শেয়ার করা হয়েছে। ২ লক্ষ ৮৪ হাজার মানুষ এখনো পর্যন্ত এই ভিডিওটি দেখে নিয়েছেন এবং শেয়ার করেছেন। প্রতিবেদনটি ভালো লেগে থাকলে আপনারাও হাতে কিছুটা সময় নিয়ে এই ভিডিওটি দেখে নিতে পারেন।

সবশেষে আপনাদের সকলের উদ্দেশ্যে একটাই কথা বলব যে কোন কারনে যদি আপনার আশেপাশের কোন ব্যক্তিকে সাপ দংশন করে থাকে সেক্ষেত্রে কোনো রকমের ওঝা বা তন্ত্র মন্ত্র করা মানুষের কাছে না নিয়ে গিয়ে যত তাড়াতাড়ি সম্ভব চিকিৎসালয় নিয়ে যাবেন। কুসংস্কারের বশবর্তী হয়ে কখনো মানুষের প্রাণ নিয়ে ছেলে খেলা করা উচিত নয়।

Back to top button