জিনিস সব কিনে নেবে কোম্পানি! একদম অল্প পুঁজিতে শুরু করুন এই দুর্দান্ত ব্যবসা, প্রতিদিন আয় হবে ২ হাজার

নিজস্ব প্রতিবেদন: সাধারণত বিভিন্ন ধর্মীয় উৎসব ও অনুষ্ঠানে ধুপকাঠি জ্বালানো হয়। ধুপকাঠি জ্বালালে ঘরের পরিবেশ ও চারপাশ সুগন্ধে ভরে যায়। ক্ষুদ্র ব্যবসা হিসাবে ধুপকাঠি তৈরি করে আয় করা সম্ভব। যে কোন ব্যক্তি নিজের কর্মসংস্থানের ব্যবস্থার জন্য ধুপকাঠি তৈরির ব্যবসা শুরু করতে পারেন। আজকের এই বিশেষ প্রতিবেদনে আমরা এই ব্যবসা নিয়েই আপনাদের সাথে বিস্তারিত আলোচনা করতে চলেছি।

একটু আলাদাভাবে ধূপকাঠির ব্যবসা শুরু করে কিভাবে আপনারা নিজেদের প্রতিষ্ঠিত করতে পারেন সেই সম্পর্কে সবকিছুই এই প্রতিবেদনে আমরা জানাবো। ধুপকাঠির প্রয়োজনীয়তা বা চাহিদা সম্পর্কে আপনাদের সকলেরই একটা স্পষ্ট ধারণা রয়েছে। তবে এই ব্যবসা কিভাবে শুরু করতে হবে বা এটা থেকে কিভাবে বড় অংকের অর্থ উপার্জন করা যাবে সেটা অনেকেই জানেন না। চলুন আর সময় নষ্ট না করে প্রতিবেদনটির মূল পর্বে চলে যাওয়া যাক।

ধুপকাঠি তৈরির ব্যবসা কিভাবে শুরু করবেন?

ধুপকাঠি তৈরির ব্যবসা কিন্তু আপনারা খুব সহজেই যে কোন দুটি ধরনের মেশিনের সাহায্যে শুরু করতে পারেন। যারা একেবারে স্বল্প পুঁজিতে শুরু করার কথা ভাবছেন তাদের জন্য রয়েছে ম্যানুয়াল মেশিন। মাত্র ১৩ হাজার টাকায় এই মেশিনটা আপনারা পেয়ে যাবেন। তবে এই মেশিনটা কিনলে কিন্তু আপনাদের একটু পরিশ্রম করতে হবে। অর্থাৎ শ্রমিক পিছু আপনাদের একটু খরচ পড়ে যাবে।

যদি আপনারা একটু বড় পরিসরে ব্যবসা শুরু করতে চান সেক্ষেত্রে অটোমেটিক মেশিন কিনে নিতে পারেন। যেটার আনুমানিক দাম ১ লক্ষ ২০ হাজার টাকা তবে আপাতত অফারে এই মেশিনটা আপনারা ৮০ হাজার টাকাতেই পেয়ে যাবেন। এই মেশিনটাতে কিন্তু আপনাদের কোন রকমের খাটনির প্রয়োজন হবে না। শুধুমাত্র কাঁচামাল গুলো দিয়ে দিলেই আপনারা সহজে মেশিন থেকে অটোমেটিক্যালি ধূপকাঠি তৈরি করে ফেলতে পারবেন। মেশিনটি বসানোর জন্য আপনাদের ১০ বাই ১০ একটা জায়গার প্রয়োজন হবে।

অনেকেই আছেন যারা বাড়িতে হাতে ধূপকাঠি তৈরি করে বিক্রি করেন। এইসব মানুষদের উদ্দেশ্যে বলবো আপনারা কিন্তু সহজেই ম্যানুয়াল বা অটোমেটিক মেশিনের সাহায্যে নিজেদের ব্যবসা শুরু করতে পারেন। সে ক্ষেত্রে প্রোডাকশন অনেকটাই বেশি হবে এবং আপনার পণ্যের গুণগত মান ও অনেকটা ভালো হবে। আর গুণগতমান ভালো হলে বাজার চাহিদা বেড়ে উঠবে এটাই স্বাভাবিক। ধুপকাঠি তৈরি করার পরে আপনাকে এবারের প্যাকেজিং এর উপর নজর দিতে হবে।

প্যাকেজিং করার জন্য আপনারা কোন ছোটখাট কোম্পানিকেও দায়িত্ব দিতে পারেন আবার চাইলে নিজেরাও প্যাকিং মেশিনের সাহায্যে কাজটা করে নিতে পারেন। ধুপকাঠি সম্পূর্ণ প্যাকিং এর কাজ করার পরে কোন ফ্যাক্টরির কাছে অথবা সোজাসুজি লোকাল মার্কেটের ব্যবসায়ীদের কাছে আপনারা এগুলো বিক্রি করে দিতে পারেন।। এটি এমন একটা ব্যবসা যেখানে বাইরে থেকে মানুষ এসে আপনার ঘরে প্রোডাক্ট নিয়ে যাবে। সাধারণ মধ্যবিত্ত মানুষ যেহেতু খুব বেশি অংক ব্যবসার ক্ষেত্রে শুরুতে বিনিয়োগ করতে চান না তাই তাদের জন্য এটা একেবারে আদর্শ একটা আইডিয়া।

প্রতিবেদনের শেষে আমরা এমন একটি ঠিকানার কথা শেয়ার করে দেবো যেখানে খুব সহজেই সুলভ মূল্যে আপনারা মেশিন পেয়ে যাবেন। যেহেতু এটি একটি ম্যানুফ্যাকচারিং ইউনিট তাই দেশের অন্যান্য জায়গার তুলনায় এখানে মেশিনের দাম স্বাভাবিকভাবেই কিছুটা কম।। পাশাপাশি মেশিন কেনার পর ইনস্টলেশন থেকে শুরু করে প্রশিক্ষণ সবকিছুই সম্পূর্ণ বিনামূল্যে এখান থেকে টেকনিশিয়ানরা এসে আপনাকে দেবেন।

এমনকি যদি আপনি কাঁচামাল নিতে চান সেটাও কিন্তু এই ইউনিট থেকেই সংগ্রহ করে নিতে পারবেন। তবে আর অপেক্ষা কেন? ধুপকাঠি তৈরির ব্যবসা শুরু করতে আগ্রহী থাকলে আর সময় নষ্ট না করে নিজের দেওয়া ঠিকানা অথবা নম্বরে যোগাযোগ করে বিস্তারিত তথ্য সংগ্রহ করে ফেলুন।
Company information:
Karmakar agarbatti.
Near Bandel station, Hooghly,west bengal.
Contact : 8478988572/9163068842.

Back to top button