পুরোনো বেসিনের হলদে জেদি দাগ নিমেষেই হবে দুর! শুধু ব্যবহার করুন এই দুর্দান্ত গোপন ট্রিকস, কাজ দেবে ১০০%

নিজস্ব প্রতিবেদন : রান্নাঘর হোক কিংবা বাথরুম সব জায়গাতেই কিন্তু বেসিন ব্যবহার করা হয়ে থাকে। বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই দেখা যায় ব্যবহারের কিছুদিন পর থেকেই বেসিনের মধ্যে এক প্রকার ময়লা বা কালচে ভাব সৃষ্টি হয়ে চলেছে। এই ময়লা বা কালচে ভাব কিন্তু সহজে দূর করা যায় না। তাই আমাদের আজকের এই বিশেষ প্রতিবেদনে আমরা মাত্র এক টাকা খরচ করে কিভাবে আপনারা বেসিন পরিষ্কার করতে পারেন সেই সম্বন্ধে আলোচনা করব। এই পদ্ধতিতে বেসিন পরিষ্কার করলে কিন্তু একেবারে নতুনের মত ঝকঝকে হয়ে যাবে এই বেসিন। পাশাপাশি বেসিনের মধ্যে কিন্তু কোন রকম দাগও থাকবে না।

এই পদ্ধতিতে বেকিং পরিষ্কার করার জন্য প্রথমে একটি পাত্রের মধ্যে সবার পরিবারে ডিমের খোসার গুড়ো নিয়ে নিতে হবে।। ডিমের খোসা খুব সহজেই আপনারা বাড়িতে শিলনোড়া বা মিক্সার গ্রাইন্ডার এর সাহায্যে গুঁড়ো করে নিতে পারবেন। চেষ্টা করবেন এটি যেন একেবারে মিহি ভাবে গুড়ো হয়। এরপর এই মিশ্রণের মধ্যে সামান্য পরিমাণ ক্লিনিক প্লাস শ্যাম্পু মিশিয়ে দিতে হবে। ক্লিনিক প্লাস শ্যাম্পু কিন্তু যে কোন ময়লা জিনিস পরিষ্কার করার ক্ষেত্রে অত্যন্ত কার্যকরী।

এবারে দুটি মিশ্রণ কে একসাথে করার পর একটি ব্রাশের সাহায্যে ভালো করে সম্পূর্ণ বেসিনটি ঘষে ঘষে পরিষ্কার করতে হবে।। দেখবেন মোটামুটি পাঁচ থেকে ছয় মিনিট এভাবে ঘষলেই সমস্ত ময়লা দূর হয়ে বেশি একেবারে নতুনের মত ঝকঝকে হয়ে যাবে। এইভাবে অন্ততপক্ষে সপ্তাহে একবার বেসিন পরিষ্কার করলে কিন্তু আর আপনাকে কোন সমস্যার মুখোমুখি হতে হবে না। এইভাবে বেসিন পরিষ্কার করাটা যেমন অনেকটাই সহজসাধ্য ঠিক তেমন ভাবেই কিন্তু কোন অর্থ খরচের প্রয়োজন নেই।

তবে চাইলে আপনারা অন্য আরও একটি পদ্ধতির সাহায্যে বেসিন পরিষ্কার করতে পারেন। এর জন্য একটি পাত্রের মধ্যে নিয়ে নিতে হবে সামান্য পরিমাণ ভিনিগার এবং বেকিং সোডা। যদি বাড়িতে ভিনেগার না থাকে সে ক্ষেত্রে আপনারা কিন্তু লেবুর রস ব্যবহার করতে পারেন। এই দুটি মিশ্রণ একত্র করে নেওয়ার পর ঠিক একই রকম ভাবে উপরিউক্ত পদ্ধতির সাহায্যে বেসিন পরিষ্কার করে নিন। আমাদের এই পদ্ধতিগুলি আপনার কেমন লাগলো তা কিন্তু জানাতে অবশ্যই ভুলবেন না। বিস্তারিত জানতে আমাদের পরবর্তী প্রতিবেদন গুলির উপর নজর রাখতে থাকুন।।

Back to top button