খোলা রাস্তায় চলন্ত বাইক দেখে আচমকা হামলা বিশালাকার হাতির, বাইক চালকের সাথে যা ঘটলো, দেখে শিউরে উঠবেন আপনিও

নিজস্ব প্রতিবেদন: বর্তমান সময়ে ইন্টারনেট জগৎ এমন একটি জায়গা যেখানে চোখ রাখলেই বিভিন্ন ছোট থেকে ছোট ব্যাপার আমরা জানতে পারি। একটা সময় ছিল যখন মানুষের মধ্যে এর ব্যবহার এতটা ব্যাপকভাবে প্রচলিত ছিল না। কিন্তু এখন স্মার্টফোনের সহজলভ্যতা এবং বিভিন্ন টেলিকম কোম্পানিগুলির দুর্দান্ত অফারের কারণে মানুষের মধ্যে এই সোশ্যাল মিডিয়া যেন অঙ্গাঙ্গিভাবে জায়গা করে নিয়েছে।

বিভিন্ন জীবজন্তু সংক্রান্ত ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় রীতিমতন ঝড়ের গতিতে ভাইরাল হয়ে থাকে। লক্ষ্য করে দেখবেন সাধারণ মানুষ খালি চোখে যেহেতু এই সমস্ত দৃশ্য চট করে দেখতে পায় না তাই অনেকেই এই সোশ্যাল মিডিয়ার প্রতি আসক্ত হয়ে পড়েছেন। বিভিন্ন ঘটনা যা ক্যামেরায় ধরা পড়ে সেগুলো সহজেই এই সোশ্যাল মিডিয়ায় ছেড়ে দেওয়া হয় এবং মুহূর্তেই তা হয়ে ওঠে ভাইরাল।

ফেসবুক ওয়াচ থেকে শুরু করে বিভিন্ন ধরনের ইনস্টাগ্রাম রিল ভিডিও অথবা ইউটিউব ভিডিও মানুষের মধ্যে এখন এতটাই জনপ্রিয় যে আর বলার মতন কোন ভাষা নেই। এই ভিডিওগুলি দেখে আমরা যেমন একদিকে বিনোদন উপভোগ করি ঠিক তেমনভাবে বহু অজানা তথ্য জানতে পারি। আবার এমন বহু জিনিস রয়েছে যা দেখার পর আমাদের মন ভারাক্রান্ত হয়ে ওঠে।

আজকের এই বিশেষ প্রতিবেদনে আমরা হাতির আক্রমণের একটি ভয়াবহ ভিডিও সম্পর্কে আপনাদের সাথে আলোচনা করব। ভাইরাল এই ভিডিওতে যে দৃশ্যগুলি পরিলক্ষিত হচ্ছে তা নিঃসন্দেহে যে কোন সাধারণ দর্শককে ভয় পেতে বাধ্য করবে। অবশ্যই প্রতিবেদনের সঙ্গে থাকা এই ভিডিওগুলো দেখে নিজেদের মতামত আমাদের সাথে শেয়ার করে নিতে ভুলবেন না।

ভাইরাল এই ভিডিওগুলোতে দেখা যাচ্ছে জঙ্গল থেকে বেশকিছু হাতই বাইরে বেরিয়ে এসেছে। ভিডিও এর শুরুতেই দেখা যায় দুজন বাইক আরোহীকে তারা এমনভাবে তাড়া করে যে শেষ পর্যন্ত নিজেদের বাইক ফেলে দৌড়ে যেতে বাধ্য হয় ওই দুই ব্যক্তি। পরের দৃশ্যেই দেখা যায় চারচাকা গাড়ির চালককে দুই হাতি মিলে ব্যাপকভাবে আক্রমণ করেছে।

আবার অন্য একটি দৃশ্যে ঠিক একই রকম ভাবে একজন সাইকেল আরোহীর পেছনে একটি হাতিকে দৌড়ে আসতে দেখা যায়। বোঝাই যাচ্ছে বিভিন্ন জায়গা থেকে হাতির আক্রমণের ভিডিও সংগ্রহ করে এই ভিডিওটি আপলোড করা হয়েছে। সাধারণত কোন কারনে জঙ্গলের খাবারের সমস্যা দেখা দিলে তারা লোকালয়ে বাইরে বেরিয়ে আসে এবং ক্ষুদ্ধ হয়ে সাধারণ মানুষকে আক্রমণ করে। এই ধরনের ঘটনা দৃশ্য খুবই বিরল এবং সাধারণত খালি চোখে খুব একটা দেখা যায় না।

সোশ্যাল মিডিয়া না থাকলে হয়তো আমরা এই ধরনের ভয়াবহ ঘটনাগুলোর সাক্ষী হতে পারতাম না। তাই দিন শেষে আমাদের একবার হলেও সোশ্যাল মিডিয়াকে কুর্নিশ জানানো উচিত। ভাইরাল এই ভিডিওটি Jasoprakas Debdas নামের একটি ইউটিউব চ্যানেল থেকে শেয়ার করা হয়েছে যা এখনো পর্যন্ত দেখে নিয়েছেন প্রায় ১.৩৬ মিলিয়ন মানুষ। এই ভিডিওটি লাইক করেছেন প্রায় দশ হাজার জন এবং ভিডিওটিতে কমেন্ট করেছেন প্রায় ১২১ জন।

Back to top button