আবারও দু’শ্চিন্তায় নিত্যযাত্রীরা! পিছিয়ে গেল লোকাল ট্রেন চালু হওয়ার দিন! জানুন বিস্তারিত।

নিজস্ব প্রতিবেদন :- কবে থেকে চালু হবে লোকাল ট্রেন??? এই প্রশ্ন প্রতিটা রাজ্যবাসীর মনে রয়েছে । আমরা দেখেছিলাম যে দ্বিতীয় ঢেউ শুরু হওয়ার সাথে সাথে রাজ্যের বুকে বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে লোকাল ট্রেন পরিষেবা । যার ফলে রীতিমতো ক্ষিপ্ত হয়ে গিয়েছিল সাধারণ নিত্যযাত্রী । কারণ তাদের দাবি ছিল যারা সরকারি কর্মচারী তারা অফিসে যেতে পারছে । কিন্তু যারা বেসরকারি কর্মচারী তার অফিস যেতে পারছে না।

এই ধরনের বৈষম্য কেন দেখা যাবে । এই বৈষম্যের প্রতি সোচ্চার হয়েছিল তারা এবং দফায় দফায় বিভিন্ন স্টেশনে দেখা গিয়েছিল বিক্ষোভ । অবরোধ থেকে শুরু করে পুলিশের গাড়ি ভাঙচুর যাবতীয় ঘটনার সাক্ষী থাকতে পেরেছি আমরা এই কয়েকটা দিন এ । যার ফলে প্রতিনিয়ত মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের কাছে পূর্ব রেলের কর্মকর্তারা চিঠির মাধ্যমে জানাচ্ছেন যে তড়িঘড়ি করে যাতে শুরু করা যায় লোকাল ট্রেন পরিষেবা । আগামীদিনের পরিমাণ আরো বাড়তে পারে ।

এই পরিস্থিতিতে বৃহস্পতিবার নবান্নে মুখ্যমন্ত্রী স্পষ্ট করে দিলেন, এখনই চালু হচ্ছে না লোকাল ট্রেন। এদিন নবান্নে সাংবাদিক বৈঠক থেকে মমতা বলেন, ‘অনেকেই আমাকে লোকাল ট্রেনের কথা বলছেন। কিন্তু আমি বলছি, গ্রামে এখনও ভ্যাকসিনেশন কমপ্লিট হয়নি। আমরা অনেক কম ভ্যাকসিন পাচ্ছি। তাছাড়া সেপ্টেম্বরে যেহেতু থার্ড ওয়েব আসছে বলে বলছেন বিশেষজ্ঞরা,

সেই অনুযায়ী ভ্যাকসিনেশন বাড়ানো হবে।’ এরপরই মমতার সংযোজন, ‘লোকাল ট্রেন চলছে না বলে অনেকের সমস্যা হচ্ছে জানি। কিন্তু আপনার জীবনের থেকে দামি নয় কিছু। লোকাল ট্রেন নিয়ে আরও কিছুদিন অপেক্ষা করতে হবে। আরও ১৫ দিন বিধিনিষেধ থাকবে।’ মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এদিন আরও বলেন, ‘শহরতলিতে ৫০% ভ্যাকসিনেশন হলে লোকাল ট্রেন চালুর ভাবনা। প্রতিদিন ৩ থেকে ৪ লক্ষ ভ্যাকসিনেশন করা হচ্ছে।’

এর আগেও মমতা বলেছিলেন, ‘এখন ট্রেন চালালে করোনা আরও ছড়িয়ে পড়তে পারে।’ তবে লোকাল ট্রেন আরও কতদিন বন্ধ থাকবে সে ব্যাপারে কিছু বলেননি মমতা। তবে এমনটা অনুমান করা হচ্ছে যে লকডাউন এর মেয়াদ শেষ হলেই শুরু করা হতে পারে লোকাল ট্রেন পরিষেবা ।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button