সাবেকি পোশাকে বধূবেশে নেট দুনিয়া তোলপাড় করলেন অভিনেত্রী ঋতাভরী চক্রবর্তী! মুহূর্তে ভাইরাল ভিডিও।

নিজস্ব প্রতিবেদন :- ‘ব্রহ্মা জানে গোপন কম্মতি’ তার জীবনের অন্যতম মাইলস্টোন হিসেবে পরিচিতি পেয়েছেন । এই সিনেমাটির মাধ্যমে তিনি তাঁর জনপ্রিয়তা কে আরো বাড়িয়ে তুলতে পেরেছিলেন । তবে শুধুমাত্র অভিনেত্রী হিসেবে নয় তার পাশাপাশি গায়িকা হিসেবে তিনি নিজেকে মেলে ধরেছেন সকলের সামনে । একদমই ঠিক ধরেছেন আমি এই মুহূর্তে বাংলার অন্যতম জনপ্রিয় অভিনেত্রী ঋতাভারি চক্রবর্তী কথা বলতে চলেছি ।যদিও অভিনেত্রী থেকে বেশি পরিমাণে তিনি এই বাংলার মানুষের ক্রাশ বলতে পারে।

তার প্রথম অভিনয় জীবন শুরু ধারাবাহিকের মাধ্যমে । ওগো বধূ সুন্দরী নামক একটি ধারাবাহিকের মাধ্যমে তিনি অভিনয় জগতে পা রাখেন । সেটি সাফল্য ভাবে সম্প্রচারিত হবার পর দীর্ঘ বিরতি নিয়েছিলেন তিনি ।কিন্তু এর মাঝে বিভিন্ন সমাজ সেবামূলক কাজে যুক্ত হয়েছিলেন । এমনকি আমরা দেখেছিলাম এই মহামারীর সময় একটি এনজিওর সাথে হাত মিলিয়ে তিনি মানসিক অবসাদে ভুগতে থাকা মানুষদেরকে ফ্রিতে কাউন্সেলিং এর ব্যবস্থা করে দিয়েছিলেন । তার পাশাপাশি নিজেকে সুস্থ রাখার জন্য সুইমিংপুলে যোগদান করেছে অভিনেত্রী ।

সম্প্রতি সে সমস্ত ঘটনা আমরা জানতে পারি যে সোশ্যাল মিডিয়াতে উঁকি মারলেই । তবে সম্পূর্ণ আলাদা রকম ভাবে ধরা দিলেন অভিনেত্রী। সম্প্রতি অভিনেত্রী ক্যালিফোর্নিয়া থেকে ডিগ্রী অর্জন করেছেন তাই বেজায় খুশি তিনি । কিছুদিন আগে তার জন্মদিন পেরেছে এবং সে জন্মদিনের রেশ এখন অব্দি কেটে ওঠেনি । অভিনয় জগতের সাথে যুক্ত থাকার পাশাপাশি অভিনেত্রীকে বিভিন্ন মিউজিক ভিডিওতে এমনকি নিজের কন্ঠে গান গাইতে দেখা যায় অভিনেত্রী । শুটিং না থাকলে বাড়িতে মাঝে মধ্যে বিভিন্ন ধরনের মেকআপ নিজের উপর প্রয়োগ করার চেষ্টা করেন তিনি ।

এবং সেগুলি ছবির মাধ্যমে তুলে ধরেন দর্শকদের সামনে । তবে সম্প্রতি প্রকাশিত হয়েছে সেটাতে তরুণপ্রজন্মের এমনটা বললে খুব একটা ভুল হবেনা । সম্প্রতি ঋতাভরীকে দেখা গেল লাল রঙের বেনারসী পরে, সিঁথিতে সিঁদুর দিয়ে বধূবেশে। তবে অবশ্যই ইন্সটাগ্রাম রিলে। ঋতাভরী ‘আফ্রিন’ গানের একটি অংশকে রিলের ব্যাকগ্রাউন্ড সঙ হিসাবে ব্যবহার করেছেন। রিলে ঋতাভরীর পরনে রয়েছে সনাতন লাল বেনারসী, মাথায় টিকলি, গলায় ও কানে ভারী অলঙ্কার, সিঁথিতে সিঁদুর ও কপালে চন্দন এবং সিঁদুরের লাল টিপ। ঋতাভরীর চুলে জেল দিয়ে তাঁকে সদ্যস্নাতা লুক দেওয়া হয়েছে।

আগেকার দিনের নববধূদের মতো ব্লাউজ ছাড়া আটপৌরে ধরনে শাড়ি পরানো হয়েছে । যেহেতু তিনি এই বাংলার অভিনেত্রী তাই বাংলার মানুষজন তার কাছ থেকে বাংলা কিছু আশা করবে এমনটা খুব স্বাভাবিক । সে মত দেখা গেল তার কমেন্ট সেকশনে । তার কমেন্ট সেকশনে কয়েকজন নেটিজেন লিখেছেন যে এই হিন্দি গানের পরিবর্তে বাংলা গান ব্যবহার করলে আরও বেশি মিষ্টি লাগতো । তবে অভিনেত্রী কাছ থেকে এখনও কোনো প্রতিক্রিয়া পাওয়া যায়নি এই বিষয়ে ।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button