অবশেষে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হলেন রানু মণ্ডল! বিয়ে সারলেন সুন্দরী স্যান্ডি সাহার সাথে, তুমুল ভাইরাল ভিডিও

নিজস্ব প্রতিবেদন: এই সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে এমন বহু জিনিস অল্প সময়ে ভাইরাল হয়ে ওঠে যা হয়তো কখনোই খালি চোখে দেখা যেত না। খবরাখবর থেকে শুরু করে বিভিন্ন তথ্য খুব সহজেই এই ইন্টারনেট জগতের মাধ্যমে আদান-প্রদান করা যেতে পারে। আবার এই ইন্টারনেট জগৎকেই কিন্তু বহু মানুষ নিজেদের অর্থ উপার্জনের প্ল্যাটফর্ম হিসেবেও ব্যবহার করছেন। লক্ষ্য করে দেখবেন সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে বিভিন্ন অনলাইন বিজনেস থেকে শুরু করে নানান ধরনের ভিডিও আপলোড করে অনেকেই কিন্তু টাকা উপার্জন করে থাকেন।

এই ক্ষেত্রে আমরা বিভিন্ন ইউটিউবারদের বা কনটেন্ট ক্রিয়েটারদের কথা বলতে পারি যারা অল্প সময়ের মধ্যেই দর্শকদের মধ্যে নাম অর্জন করে নিয়েছেন। হাসি মজা থেকে নানান ধরনের শিক্ষামূলক ভিডিও বানিয়ে নিজেদের চ্যানেল বা facebook থেকে শেয়ার করেন এই সমস্ত কন্টেন্ট ক্রিয়েটররা। লাইক কমেন্ট বা শেয়ারের উপর ভিত্তি করে এই সমস্ত ভিডিও কতটা ভাইরাল হয়েছে তা নির্ধারণ করা হয়। আজকের এই বিশেষ প্রতিবেদনে আমরা এমনই একটি ভিডিও নিয়ে আপনাদের সাথে আলোচনা করতে চলেছি।

যারা নিয়মিত সোশ্যাল মিডিয়া ব্যবহার করেন তারা কম বেশি কিন্তু সকলেই জনপ্রিয় কন্টেন্ট ক্রিকেটার স্যান্ডি সাহাকে চেনেন। সম্প্রতি তার একটি ভিডিও উঠে এসেছেন এর মাধ্যমে যা দেখে রীতিমতন হাসিতে পেট ফেটে যাচ্ছে সকলের। তবে ভাইরাল এই ভিডিওটি শুধু স্যান্ডি সাহা নয় আরো একজনের দর্শন পাওয়া যাচ্ছে। তিনি হলেন সকলের পরিচিত রানু মন্ডল। আসলে সম্প্রতি কিছুদিন আগেই রানুমন্ডলের বাড়িতে দুজন যুবক ইউটিউবার ভিডিও বানাতে গিয়েছিলেন।

রানু মন্ডলের উদ্দেশ্যে তারা খাবার নিয়ে যান এবং তার সাথে কথা বলার চেষ্টা করেন। যদিও প্রথমে রানুদি তাদের সাথে কথা বলতে চাননি তবে শেষে তারা গান শোনার ইচ্ছে প্রকাশ করলে ভালবেসেই তাদেরকে তিনি গান শোনান। রানু মন্ডলের বাড়ি থেকে ওই যুবক দুজন বেরিয়ে চলে যাবার পথেই দেখতে পান স্যান্ডি সাহাকে। স্যান্ডি সাহাকে দেখার পর তার পিছু পিছু আবারও ওই যুবক চলে যান রানু মন্ডলের বাড়িতে।জানা যায় ঠিক তাদের মতই স্যান্ডি সাহা এসেছেন।

এরপরেই ঘটে একটি বিশাল মজাদার ঘটনা। রানু মন্ডলের বাড়িতে শাড়ি পড়ে এসেছিলেন স্যান্ডি। কিন্তু আচমকাই নিজের শাড়ি খুলে একটি টি শার্ট আর ট্রাউজার করে নেন তিনি। ঠিক এরপর এই রানুদিকে জিজ্ঞাসা করেন যে তিনি কিছু খাবেন কিনা। রানু মন্ডল পকোড়া খাওয়ার ইচ্ছা প্রকাশ করলে স্যান্ডি সাহা ফোন করে পকোড়া নিয়ে নেন এবং দুজনে মিলে তা খেতে থাকেন।

খেতে খেতেই আচমকা নিজের পাশে রাখা একটি ব্যাগ থেকে দুটি মালা বের করে রানুদির গলায় একটি পড়িয়ে দেন স্যান্ডি সাহা। এই সময় রানুদিকে ও তিনি বলেন তার গলায় মালা পরিয়ে দিতে। দুজনের মালা বদল প্রক্রিয়া শেষ হলে উপস্থিত সবাই উলু দিয়ে বলতে থাকে বিয়ে হয়ে গেছে। যদিও পুরো ঘটনাটাই বেশ মজার ছলে ঘটেছে তবে নেট নাগরিকরা এই ভিডিওটিকে বেশ উপভোগ করেছেন তা কমেন্ট বক্স দেখলেই আপনারা বুঝতে পারবেন।।

মাত্র চার সপ্তাহ আগে শেয়ার করায় এই ভিডিওটি এখনো পর্যন্ত প্রায় ২৫ হাজার মানুষ দেখে নিয়েছেন। বহু মানুষ ভিডিওটিকে পছন্দ করেছেন এবং বন্ধুবান্ধবদের সাথে শেয়ার করে নিয়েছেন। যদি রানু মন্ডল এবং স্যান্ডি সাহাকে আপনাদের ভালো লেগে থাকে সেক্ষেত্রে অবশ্যই আমাদের এই প্রতিবেদনটি একটি লাইক আর শেয়ার করে দিতে ভুলবেন না। নিজেদের গুরুত্বপূর্ণ মতামত আমাদের সাথে কমেন্ট বক্সে শেয়ার করে নিতে পারেন।

Back to top button