ছাদে বা উঠোনে গোলাপের চারা লাগিয়ে গোড়ায় দিন এই ৫টি ঘরোয়া উপাদান, মাত্র ১৫দিনেই ফুলে ভরে যাবে গাছ

নিজস্ব প্রতিবেদন: বাগানে গোলাপ গাছ বড় করে তুলতে সকলেই খুব পছন্দ করেন। কিন্তু এই গোলাপ গাছের পরিচর্যা করা একেবারেই সহজ কাজ নয়। এদিকে সঠিকভাবে পরিচর্যা না করতে পারলে কিন্তু গাছের পাতা নষ্ট হয়ে যাওয়ার পাশাপাশি আরো অনেক ধরনের সমস্যা দেখা দেবে।

এমনকি হয়তো ফুলও আসবে না। আজকের এই বিশেষ প্রতিবেদনে আমরা তাই আপনাদের সাথে শেয়ার করে নেব গোলাপ গাছের কিছু পরিচর্যা সম্পর্কে যা হয়তো আপনাদের কাজে লাগতে পারে। এই পদ্ধতিতে যদি আপনারা পরিচর্যা করেন তাহলে কিন্তু আপনার বাগান গোলাপে পরিপূর্ণ হয়ে উঠবে। চলুন তাহলে আর সময় নষ্ট না করে জেনে নেওয়া যাক।

গোলাপ গাছ পরিচর্যা সম্পর্কিত বিশেষ কিছু টিপস:

১) যদি আপনারা গোলাপ গাছের ছোট চারা নিয়ে এসে থাকেন সেক্ষেত্রে ৮ ইঞ্চি টবে প্রতিস্থাপন করতে হবে। যদি চারা গাছ বড় হয়ে থাকে সেক্ষেত্রে ১২ ইঞ্চির টবে প্রতিস্থাপন করবেন।

২) গাছ প্রতিস্থাপনের জন্য এবার আপনাকে পারফেক্ট ভাবে মাটি তৈরি করে নিতে হবে। তার জন্য চার কাপ মাটির সঙ্গে,দুই কাপ বালি ও দুই কাপ ভার্মিং কম্পোসড সার মিশিয়ে নেবেন। তাহলেই তৈরি হয়ে যাবে পারফেক্ট মিডিয়া।

৩) এবার আসা যাক গাছের সার প্রয়োগের কথায়। বিভিন্ন পোকামাকড় আর রোগব্যাধির হাত থেকে গাছকে বাঁচানোর জন্য আছে আপনাকে প্রয়োজনমতো সার এবং খাবার দিতে হবে। এক্ষেত্রে আপনারা খুব সহজেই নিম খোল এবং হাড় গুঁড়ো ব্যবহার করতে পারেন।

৪) শীতের সময়ে যদি আপনি হাজারী গোলাপ লাগিয়ে থাকেন তাহলে অবশ্যই অতিরিক্ত খাবার না প্রয়োগ করলে হবে না। কারণ এই অতিরিক্ত খাবার না দিলে কিন্তু গাছের ফুল আসতে সমস্যা সৃষ্টি হয়ে থাকে। সুতরাং অবশ্যই সেটা লক্ষ্য রাখবেন। এই অতিরিক্ত খাবার হিসেবে এক মুঠ কম্পোসড সার, এক গ্রাম ডিএপি, লাল পটাশ ও ম্যাগনেসিয়াম সালফেট মিশিয়ে নিতে হবে। তারপর এক মুঠো নিম খোল মিশিয়ে তরল ভাবে বা সোজাসুজি গাছের গোড়ায় আপনারা এই খাবার তথা সার প্রয়োগ করে দিতে পারেন। পরবর্তী কয়েক দিনের মধ্যেই ধীরে ধীরে কাজ শুরু হওয়ার পর ফলাফল দেখবেন।

৫) চেষ্টা করবেন হাজারী গোলাপের গাছকে সরাসরি সূর্যের আলোতে রাখার। এই গাছ কিন্তু সূর্যের আলো খুব বেশি পছন্দ করে থাকে। তাই সানলাইটে এই গাছ দারুণ বৃদ্ধি পাবে।

Back to top button