স্কুলের মধ্যে পাতলা ফিনফিনে শাড়ি পরে হিন্দি গানে স্যারের সাথে উদ্দাম নাচ ম্যাডামের, ভিডিও ভাইরাল হতেই অবাক নেটদুনিয়া

নিজস্ব প্রতিবেদন: সোশ্যাল মিডিয়া বা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম আমাদের সামনে যে প্রায় সময় অনেক অদ্ভুত ঘটনা তুলে ধরতে সাহায্য করে সেটা সকলেই জানেন। সামান্য কিছু ইন্টারনেট খরচ করেই এই সোশ্যাল মিডিয়া ব্যবহার করে আমরা ঘরে বসে বিশ্বের যে কোন কোনার তথ্য পেয়ে যাই। সাধারণত আগেকার দিনে এই কাজের জন্য মানুষকে টেলিভিশন অথবা রেডিওর মতন মাধ্যমে নির্ভর করতে হতো।

কিন্তু লক্ষ্য করে দেখবেন তাতে যে কোন খবর এসে পৌঁছতো অনেক দেরিতে। তবে ইন্টারনেট জগতের ব্যবহারের কারণে কিন্তু আজকাল আর সেটা হয় না। যে কোন ঘটনা ঘটার সাথে সাথেই মুহূর্তের মধ্যে সেগুলো সোশ্যাল মিডিয়ার অ্যাপ্লিকেশনে চলে আসে। এই সমস্ত কারণে আমাদের অবসর বিনোদনের মাধ্যম হিসেবেও ব্যাপকভাবে সাহায্য করছে সোশ্যাল মিডিয়া।

নাচ গান থেকে শুরু করে সিনেমা সিরিয়াল সবকিছুই নেট মাধ্যমে দেখা যেতে পারে। লকডাউনের সময় মানুষের ব্যাপক মনোরঞ্জনের সাহায্য করেছিল এই প্লাটফর্ম। ঘরবন্দি অবস্থায় থেকে সেই সময় যখন অনেক মানুষ অবসাদে ভুগছিলেন এই নেটমাধ্যম যেন তাদেরকে একটা মুক্তির হাওয়া এনে দিয়েছিল। তাই তৃতীয় বিশ্বের দেশগুলোতে এই সময় থেকেই কিন্তু সোশ্যাল মিডিয়া ব্যবহারকারীর সংখ্যা কয়েক গুণ বেড়ে গিয়েছে। এর ভালো দিকের পাশাপাশি অনেক খারাপ দিকও কিন্তু রয়েছে। আজ আমরা নেট মাধ্যমে ভাইরাল এমন একটি ভিডিও আপনাদেরকে দেখাবো যা বর্তমানে প্রচুর বিতর্কের সৃষ্টি করেছে।

বেশ কয়েক বছর আগে ভাইরাল হওয়া ওই ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে কোন একটি কলেজের অনুষ্ঠানে একসঙ্গে স্টেজের উপরে নাচ করছেন দুজন শিক্ষক শিক্ষিকা। জনপ্রিয় একটি বলিউড গানের তালে তাদের এই নাচ বেশ পছন্দ করেছেন নেট নাগরিকরা। বোঝাই যাচ্ছে এই নাচটি করার জন্য দীর্ঘ সময় ধরে প্রশিক্ষণ নিয়েছেন তারা। যেভাবে গানের প্রতিটি স্টেপ এর সাথে মধ্যবয়স্ক এই শিক্ষকেরা তাল মিলাচ্ছেন তা সত্যি ভাবার মতন বিষয়। ভিডিওটি অনেকে ব্যাপক পছন্দ করলেও বহু মানুষ কিন্তু এটাকে নিয়ে সমালোচনাও শুরু করে দিয়েছেন। স্কুল বা কলেজ হল ছাত্র-ছাত্রীদের শিক্ষা দেওয়ার জায়গা। কিন্তু সেই সমস্ত প্রতিষ্ঠানেই যদি এরকম ভাবে অশ্লীল নাচ চলতে থাকে তাহলে সেটা কতটা গ্রহণযোগ্য তা নিয়ে অনেকেই কিন্তু প্রশ্ন তুলেছেন।

প্রসঙ্গত এর আগেও সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল একটি ভিডিওতে এক ছাত্রের সঙ্গে শিক্ষিকাকে নাচতে দেখা গিয়েছিল। সেটা কেউ একেবারে মেনে নিতে পারেননি, নেট নাগরিকদের একাংশ। এখনো পর্যন্ত আজকের ভাইরাল ভিডিওটি প্রায় পাঁচ হাজার মানুষ দেখেছেন এবং বিভিন্ন মন্তব্য করেছেন। চাইলে আপনারাও ভিডিওটি দেখে নিজেদের মতামত আমাদের সঙ্গে কমেন্ট বক্সে শেয়ার করে নিতে পারেন।

Back to top button