রাস্তার দুপাশে লাখো লাখো মানুষ! রাজু শ্রীবাস্তবকে না যেতে দিতে চেয়ে কেঁদে ভাসালেন ভক্তরা, দেখুন সেই ভিডিও!

নিজস্ব প্রতিবেদন:- রাজু শ্রীবাস্তব, এই জনপ্রিয় কমেডিয়ান কে চেনেন না এরকম মানুষ হয়তো বিনোদন জগতে খুব কমই রয়েছেন। সম্প্রতি হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মাত্র ৫৮ বছর বয়সে প্রয়াত হয়েছেন তিনি। তার মৃত্যুর পরেই বিনোদন জগতে নেমে এসেছে শোকের ছায়া। পরিবার পরিজন থেকে শুরু করে বন্ধু-বান্ধব বা সহকর্মীরা কেউ মেনে নিতে পারছেন না তার মৃত্যু। এইতো কয়েক মাস আগেও অসাধারণ হাস্যরসের মাধ্যমে সকলের মনোরঞ্জন করেছেন রাজু।

প্রসঙ্গত ‘জীবনের প্রতিটি দিন উদ্‌যাপনে মেতে থাকবে। ‘আমার মৃত্যুর পর কেউ যেন শোক না করে’, মজার ছলেই এই কথা স্ত্রীকে অনেক আগেই জানিয়ে রেখেছিলেন রাজু শ্রীবাস্তব। তবে শেষবেলায় চোখের জল বাঁধ মানলো না। ‘হাসির রাজা’র বিদায়বেলায় মনভার সবার। মৃত্যুর পর গতকাল বৃহস্পতিবার দিল্লিতে তার শেষকৃত্য সম্পন্ন করা হয়। বুধবারই রাজুর মরদেহ তুলে দেওয়া হয়েছিল পরিবারের হাতে। দিল্লির দ্বারকার বাড়িতে বেশ কিছুক্ষণ শায়িত রাখা হয়েছিল তাঁর মরদেহ।

এরপর সাদা ফুলে মোড়া অ্যাম্বুলেন্সে করে বৃহস্পতিবার সকালে নিগামবোধ ঘাটে অন্ত্যেষ্টির জন্য নিয়ে যাওয়া হয় রাজু শ্রীবাস্তবকে। সম্প্রতি এই দৃশ্যের কয়েকটি ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়ে উঠে এসেছে যা মানুষকে রীতিমত ভারাক্রান্ত করে তুলেছে। গজধর ভাইয়ার এই না ফেরার দেশে চলে যাওয়া যেন কেউ সহজেই মেনে নিতে পারছে না। পরিবার পরিজন থেকে শুরু করে অনেক কাছের বন্ধুদের কিন্তু রাজুর শেষকৃত্যে দেখা গিয়েছিল।

শেষযাত্রায় রাজুর সঙ্গী হলেন তাঁর কাছের বন্ধু সুনীল পাল, এয়সান কুরেশি, পরিচালক মধুর ভাণ্ডরকর, গায়ক রাম শঙ্কররা। কমেডিয়ানকে শেষ শ্রদ্ধা জানাতে জড়ো হয়েছিল তাঁর গুণমুগ্ধ ভক্তরাও। রাজুর পুত্র আয়ুষ্মান তাঁর মুখাগ্নি করেন। উল্লেখ্য বুধবার দিল্লি AIIMS-এ ৪১ দিনের লড়াইয়ে ইতি টেনে পরপারের উদ্দেশ্যে রওনা দেন জনপ্রিয় কমেডিয়ান রাজু শ্রীবাস্তব। গত ১০ই অগস্ট জিমখানায় ট্রেডমিলে দৌড়ানোর সময় হৃদরোগে আক্রান্ত হন রাজু। সঙ্গে সঙ্গেই মাটিতে পড়ে যান তিনি। এরপর দীর্ঘ কয়েক সপ্তাহ তার কোনরকম জ্ঞান ছিল না।

চিকিৎসকেরা তাকে ভেন্টিলেশনে রাখতে বাধ্য হয়েছিলেন। তারপর আচমকাই তার শরীরের অবস্থার উন্নতি হতে থাকে। কিন্তু শেষ পর্যন্ত আর রক্ষা করা গেল না। টানা ৪১ দিন লড়াইয়ের পর ইহজগত ত্যাগ করেন রাজু শ্রীবাস্তব। প্রসঙ্গত জানিয়ে রাখি যে,২০০৫ সালে ‘দ্য গ্রেট ইন্ডিয়ান লাফটার চ্যালেঞ্জ’-এর সুবাদে রাতারাতি তাঁর জনপ্রিয়তা শিখরে পৌঁছেছিল। আশির দশকের শেষ থেকেই শোবিজ দুনিয়ার অবিচ্ছেদ্য অংশ রাজু শ্রীবাস্তব।

নিজস্ব ঢঙে কৌতুক পরিবেশন করার কারণে রাজু শ্রীবাস্তব জনপ্রিয় হয়েছিলেন দেশের সাধারণ মানুষের মধ্যে। অভিনয় করেছেন বেশি কিছু সিনেমা এবং ছোটপর্দার অনুষ্ঠানেও। ‘বিগ বস’-এও অংশ নিয়েছিলেন তিনি। বিনোদনের পাশাপাশি রাজুর রাজনৈতিক কেরিয়ারও বেশ ঊর্দ্ধমুখী ছিল। ২০১৪ সালে তিনি ভারতীয় জনতা পার্টি জয়েন করেছিলেন তিনি। তারপর প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী তাঁকে স্বচ্ছ ভারত অভিযানের গুরুত্বপূর্ণ সদস্য হিসেবে নির্বাচিত করেন। তারপর থেকে রাজনীতিতেও সক্রিয় ছিলেন Comedian তথা অভিনেতা রাজু শ্রীবাস্তব।

Leave a Comment