খোঁজ মিলল রানু মন্ডলের বোনের, খালি গলায় দুর্দান্ত সুরে গাইলেন “তেরি মেরি কাহানী” রইলো ভিডিও!

নিজস্ব প্রতিবেদন :- পাঠ্যপুস্তক এর বাইরে সোশ্যাল মিডিয়া যেন নতুন প্রজন্মদের কাছে আলাদা একটা বই হয়ে উঠেছেন । কারণ এই খানে পাওয়া যায় না এমন কোন জিনিস নেই । মাঝে মধ্যে এই সোশ্যাল মিডিয়া হাত ধরে ভাইরাল হতে দেখা যায় প্রথম সারির বিভিন্ন অভিনেতা-অভিনেত্রীদের । তার পাশাপাশি ভাইরাল হতে দেখা যায় সাধারণ মানুষদেরকে। যদিও এমনটা মনে করা হয় যে অভিনেতা এবং অভিনেত্রী দের থেকে ভাইরাল হওয়ার পরিমাণ সাধারণ মানুষের অনেক বেশি । কারণ অভিনেতা এবং অভিনেত্রী আগে থেকে জনপ্রিয়তা পেয়ে থাকেন কেমনি বেশ কিছুদিন আগে জনপ্রিয়তা পেয়েছিলেন রানাঘাট স্টেশন চত্বরে গান গাওয়া রানু মন্ডল ।

রানাঘাটের স্টেশনে গান গাইতেন তিনি হঠাৎই একদিন তার গান রেকর্ড করে সোশ্যাল মাধ্যমে শেয়ার করেন এক সমাজসেবক যার নাম অতীন্দ্র । তারপর থেকে সে ভিডিওটি অত্যন্ত ভাইরাল হয়ে যায় ।এবং জনপ্রিয়তার নিরিখে তুঙ্গে পৌঁছে যায় । তার ভাইরালে প্রভাব এতটাই বেশি ছিলো যে গোটা বলিউড অব্দি পৌঁছে গিয়েছিল তার খবর । তাই বিখ্যাত গায়ক হিমেশ রেশমিয়া তাকে বলিউডে গান গাওয়ার জন্য সুযোগ দেন সেই সূত্রে তিনি গিয়েছিলেন তেরি মেরি গানটি যেটা তৎকালীন সময়ে পাড়ার পুজো মণ্ডপ থেকে শুরু করে জন্মদিনের পার্টি সবেতেই ব্যাপক পরিমাণে শুনতে পাওয়া যাচ্ছিল। কিন্তু এরা নিজেদের জন্য আবার হারিয়ে গেছে ।

এমনটা মনে করা হয় যে রানু মন্ডল যেহেতু না চাইতে অনেক কিছু জিনিস অর্থাৎ নাম খ্যাতি টাকাপয়সা জনপ্রিয়তা পেয়ে গিয়েছিলো তাই তার শরীরের মধ্যে জন্মেছিলো বিপুল পরিমাণে অহংকার । এবং এই অহংকার জন্য তিনি তার অনুরাগীদের সাথে এবং সাংবাদিকদের সাথে দুর্ব্যবহার করতে শুরু করে । যার ফলে সাধারণ মানুষ তাকে আবার অপছন্দ করতে শুরু করে ।সেই সূত্রে তিনি আবার ফিরে যান রানাঘাট স্টেশন চত্বরে নিজের বাড়িতে । ল-কডা-উন এর সময় তার অবস্থা ভীষণ গরম হয়ে গেছিলো তা আমরা প্রত্যেকে জানি । কিন্তু এবার খোঁজ মিলল রানাঘাট স্টেশন চত্বরে থাকা রানু মন্ডল এর বোনের ।

সম্প্রতি রানু মন্ডলের মত আর এক বৃদ্ধার গান ভাইরাল হয়েছে সোশ্যাল সাইটে। নেট দুনিয়ায় সকলেই মজা করে এই বৃদ্ধাকে রানু মন্ডলের বোন বলেছেন। ভিডিওতে এই বৃদ্ধা যে গানটি গেয়েছেন সেটি মজার ছলে নানা অঙ্গভঙ্গি করতে করতে গিয়েছেন। তিনি খুব একটা ভালো গানটা গাননা। এই ভিডিওটি যে বা যারা বানিয়েছে তারা মজার ছলেই বানিয়েছেন। কারণ ভিডিওটিতে একাধিক লোকজনের হাসির আওয়াজ শুনতে পাওয়া গেছে। সম্প্রতি এই ভিডিওটিই ভাইরাল হয়েছে সোশ্যাল মিডিয়ায়।তবে সেই বৃদ্ধার গাওয়া গান মানুষের মনে দাগ ফেলতে পারেনি এমনটা আপনারা বলতে পারেন কিন্তু তার এই চেষ্টাকে কুর্নিশ জানিয়েছেন বহু নেটিজেন ।

bengali news

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button