শীতের ঠাণ্ডায় বাড়িতেই এই ঘরোয়া পদ্ধতিতে বানান মালপোয়া, টেস্টি হবার সাথে হবে নরম ও রসালো

নিজস্ব প্রতিবেদন: পিঠে খেতে আমরা সকলেই অত্যন্ত পছন্দ করে থাকি এবং সেটা যদি পোয়া পিঠে হয় তাহলে তো আর কথাই নেই। একটু নরম আর শুকনো প্রকৃতির খেতে হয়ে থাকে এই পিঠে। অনেকে একে শুকনো মালপোয়া বলেও উল্লেখ করে থাকেন। আজকের এই বিশেষ প্রতিবেদনে কিভাবে পোয়া পিঠে বানাতে হবে এবং কিভাবে বানালে একদম সেরা স্বাদের হবে সেটা নিয়েই বিস্তারিত আলোচনা করতে চলেছি। যদি আপনারাও পিঠে খেতে পছন্দ করে থাকেন তাহলে একদম শেষ পর্যন্ত মনোযোগ সহকারে প্রতিবেদনটি পড়ে নেবেন।

পোয়া পিঠে তৈরি করার জন্য একটা বাটি পরিমাপ করে আপনাদের চালের গুঁড়ো নিয়ে নিতে হবে। যতটা চালের গুঁড়ো আপনারা নিয়েছেন তার সমপরিমাণ ময়দা নিয়ে নেবেন। এছাড়াও নিতে হবে সামান্য পরিমাণে সুজি, খুব সামান্য লবণ, তিন চামচ পরিমাণে নারকেল কোরা এবং দুই চামচ গুঁড়ো দুধ।

সমস্ত উপকরণগুলোকে খুব ভালো করে নাড়াচাড়া করে মিশিয়ে ফেলুন। যতটা ময়দা বা চালের গুঁড়ো নিয়েছেন ঠিক ততটাই খেজুর গুড় নিয়ে এই মিশ্রণের মধ্যে দিয়ে দিন। চাইলে আপনারা এখানে চিনিও ব্যবহার করতে পারেন। খেজুরের গুড়ের সাথে এই উপকরণগুলো খুব ভালোভাবে মিশিয়ে নিতে হবে। একটু হালকা গরম জল প্রয়োগ করে ব্যাটার তৈরি করে ফেলুন। জলের পরিবর্তে আপনারা দুধও দিতে পারেন।

ব্যাটার তৈরি করার পর কিছুক্ষণ ঢাকা চাপা দিয়ে রেস্টে রেখে দিন। এবার অন্য একটা কড়াই গ্যাসে বসিয়ে দিয়ে তেল গরম করে ফেলুন। একটা সরু চ্যাপ্টা পাত্র তেলের মধ্যে দিয়ে গরম করতে বসিয়ে দিন। ১০ মিনিট পর ব্যাটারের ঢাকনা খুলে আরো একটু ফেটিয়ে নেবেন। যদি দেখেন ব্যাটার খুব বেশি ঘন হয়ে গেছে সেক্ষেত্রে আরও একটু জল যোগ করে দিতে হবে।

এবার তেলের মধ্যে যে পাত্রটি আপনারা রেখেছিলেন সেটাকে তুলে নেবেন হাতার সাহায্যে এবং এই পাত্রটির মধ্যে এই ব্যাটার থেকে কিছুটা পরিমাণ মিশ্রণ যোগ করে আবার একই রকম ভাবে তেলের মধ্যে দিয়ে দেবেন।। এতক্ষণের মধ্যেই দেখবেন খুব সুন্দর ভাবে পোয়া পিঠে গুলো ভাজা হয়ে উপরে উঠে চলে এসেছে। সম্পূর্ণ ব্যাটার থেকে এভাবে মিশ্রণ তৈরি করে আপনাদের পোয়া পিঠে গুলো ভেজে নিতে হবে। দারুন টেস্টি এই পিঠে খেতে কেমন লাগলো অবশ্যই একটি কমেন্ট করে জানাতে ভুলবেন না।

Back to top button