‘তিলের নাড়ু’ বাড়িতে ঘরোয়া সহজ পদ্ধতিতে বানিয়ে ফেলুন, যার স্বাদ হয় দারুণ

নিজস্ব প্রতিবেদন: সম্প্রতি গতকাল পেরিয়ে গিয়েছে কোজাগরী লক্ষ্মীপুজো। লক্ষ্মীপূজো মানেই কিন্তু নাড়ু দিবস। বাড়ির বাচ্চা থেকে বড়রা সকলেই কিন্তু এই দিনটির অপেক্ষায় থাকে। নাড়ু বলতেই আমরা বুঝি নারকেলের অথবা তিলের নাড়ুর কথা।নারকেলের নাড়ু বানাতে কিন্তু কমবেশি সকলেই জানেন। আজকের এই বিশেষ প্রতিবেদনে আমরা তাই আপনাদের সঙ্গে শেয়ার করে নেব তিলের নাড়ু বানানোর পদ্ধতি।

চলুন আর দেরি না করে আমাদের আজকের এই প্রতিবেদনের মূল পর্বে যাওয়া যাক। প্রসঙ্গত লক্ষ্মীপূজো উপলক্ষে কিন্তু এই তিলের নাড়ু ঠাকুরকে ভোগ হিসেবে নিবেদন করা হয়ে থাকে। তাই স্বাভাবিকভাবেই পারফেক্ট ভাবে তিলের নাড়ু তৈরি করাটা কিন্তু একেবারেই বাধ্যতামূলক।।

তিলের নাড়ু তৈরি করার পদ্ধতি:

১) তিলের নাড়ু তৈরি করার জন্য সাদা আর পরিষ্কার দেখে দেড়শ গ্রাম পরিমাণ তিল নিয়ে নিতে হবে। এর মধ্যে কিন্তু অনেক কালো তিল থাকে তাই অবশ্যই একবার বেছে নিতে ভুলবেন না। এবার একটি শুকনো কড়াইতে তিল গুলোকে ঢেলে দিন। গ্যাসের ফ্লেম লো তে রেখে আপনাদের তিল ভেজে নিতে হবে। ভুল করেও কিন্তু এটাকে হাই ফ্লেমে ভাজবেন না।

ভাজার সময় কিন্তু ক্রমাগত এটাকে নাড়াচাড়া করতে থাকবেন নয়তো তলা ধরে যেতে পারে।ভাজা সম্পূর্ণ হয়ে গেলে দেখবেন এটার থেকে একটা খুব সুন্দর গন্ধ বেরোচ্ছে। ভাজা হয়ে গেলে এটাকে অন্য পাত্রে তুলে রাখুন এবং ওই কড়াইতেই হাফ কাপ পরিমাণ জল নিয়ে নিন। গ্যাসের ফ্লেম লো’তে রেখে এর মধ্যে দিয়ে দিন ২০০ গ্রাম পরিমাণ আখের গুড়। দেড়শ গ্রাম তিলের জন্য কিন্তু ২০০ গ্রাম আখের গুড় হলেই যথেষ্ট। সঠিক পরিমাপ না হলে কিন্তু তিলের নাড়ু ভালো হবে না।।

২) ভালো করে আপনাদের গুড় জাল দিয়ে নিতে হবে।গুড় যখন জাল হয়ে যায় তখন দেখবেন একটা সরু সুতোর মতন আশ উঠে যায়। এই ব্যাপারটা কিন্তু আপনাদের ভালোভাবে লক্ষ্য রাখতে হবে। এবার গ্যাসের ফ্লেম বন্ধ করে এর মধ্যে আপনাদের তিল গুলিকে দিয়ে দিতে হবে। তারপর খুব ভালো করে আপনাদের তিল আর গুড় মিশিয়ে নিতে হবে। কিছুক্ষণ মিশিয়ে নেওয়ার পরে একটা থালার মধ্যে আপনাদের এই মিশ্রণটি রেখে দিতে হবে। এরপর গরম অবস্থাতেই আপনাদের ধীরে ধীরে নাড়ু পাকিয়ে নিতে হবে।

৩) তিল আর গুড়ের এই পাককে দুই হাতে তালুর মধ্যে নিয়ে ধীরে ধীরে যেভাবে নাড়ু তৈরি করা হয় তেমনভাবেই গোল বলের মতন করে নিতে হবে। সবশেষে বলবো তিলের নাড়ু বানানো কিন্তু ভীষণ সহজ। শুধু আপনাদের তিল আর গুড়ের পরিমাপ ঠিক রাখতে হবে। তাহলেই দেখবেন আর নাড়ু বানাতে কোন রকমের সমস্যা হবে না।

Back to top button