নিরামিষের দিনে খুব সহজ ঘরোয়া পদ্ধতিতে বানিয়ে ফেলুন এই দুর্দান্ত স্বাদের রেসিপি, গরম ভাতের সাথে খাবেন চেটেপুটে!

নিজস্ব প্রতিবেদন: বেগুনের তৈরি নানান ধরনের রেসিপি যেমন বেগুন ভাজা, তরকারি অথবা ভর্তা আপনারা কিন্তু সকলেই খেয়েছেন। তবে সবসময় কি আর একঘেয়ে খাবার খেতে ভালো লাগে? আজকের এই বিশেষ প্রতিবেদনে আমরা তাই আপনাদের জন্য নিয়ে চলে এসেছি দুপুর বেলায় গরম গরম ভাতের সঙ্গে খাওয়ার জন্য বিশেষ রেসিপি বেগুন পোস্ত। সম্পূর্ণ নিরামিষ এই রেসিপিটি কিন্তু আপনারা অল্প সময়ের মধ্যেই সহজে তৈরি করে নিতে পারবেন। সুতরাং এটা কিন্তু আপনারা যে কোন নিরামিষ দিনেও রান্না করতে পারবেন। চলুন তাহলে আর সময় নষ্ট না করে প্রতিবেদনের মূল পর্বে যাওয়া যাক।

নিরামিষ বেগুন পোস্ত রেসিপি:

প্রথমেই আপনাদের একটি বড় সাইজের বেগুনকে মাঝারি মানের টুকরো করে কেটে নিতে হবে। এরপর এটাকে ধুয়ে নিয়ে এতে সামান্য পরিমাণে হলুদ গুঁড়ো আর লবণ দিয়ে দিন। চাইলে এই পর্যায়ে আপনারা কিন্তু লঙ্কার গুঁড়ো ব্যবহার করতে পারেন। নুন আর হলুদ দিয়ে বেগুনগুলোকে মাখিয়ে রেখে দিন ১০ মিনিট। কড়াইতে তেল গরম করে নিয়ে এই ম্যারিনেট করে রাখা বেগুন গুলিকে সেখানে দিয়ে দিতে হবে। এবার এগুলিকে দুই থেকে তিন মিনিট সময় পর্যন্ত মিডিয়াম টু হাই ফ্লেমে আপনাদের ভালো করে ভাজা করে নিতে হবে।

তবে ভাজার সময় খেয়াল রাখবেন বেগুনগুলো কিন্তু একদম যেন নরম তুলতুলে না হয়ে যায়। অর্থাৎ বেগুনের একটা গোটা গোটা ভাব থাকতে হবে পাশাপাশি এটা রং পরিবর্তন হয়ে যাবে। বেগুন তুলে নেওয়ার পরে এবার ওই কড়াই এর মধ্যেই আরো একটু সরষের তেল গরম করে দিয়ে দিন সামান্য পরিমাণে কালো জিরে আর একটি টমেটো কুচি। ৩০ থেকে ৪০ সেকেন্ড একটু হালকা নাড়াচাড়া করুন। স্বাদমতন লবণ যোগ করুন। এরপর একে একে যোগ করে দিন এক চতুর্থাংশ হলুদ গুঁড়ো, এক চতুর্থাংশ লাল লঙ্কার গুঁড়ো এবং সমপরিমাণ কাশ্মীরি লাল লঙ্কার গুঁড়ো।

মসলাগুলোকে দিয়ে মিনিটখানেক সময় আপনাদের টমেটো নাড়াচাড়া করে নিতে হবে। এরপর আপনাদের মিক্সিং জারের মধ্যে নিয়ে নিতে হবে তিন টেবিল চামচ পোস্ত ও এক টেবিল চামচ সাদা সরষে। তারপর এটাকে একটা শুকনো পেস্ট বানিয়ে নিন। পেস্ট তৈরি হয়ে গেলে এতে সামান্য লবণ এবং একটা কাঁচা লঙ্কা যোগ করুন। সবশেষে সামান্য জল যোগ করে এটাকে আবারো একবার বেটে নিন।

এবার এই পেস্টটাকে রান্না হতে থাকা টমেটোর মধ্যে দিয়ে দিতে হবে। এবার আপনাদের সম্পূর্ণ রান্নাটা এমনভাবে কষিয়ে নিতে হবে যাতে মসলাটা ঘন হয়ে আসে। মসলা থেকে তেল ছাড়তে শুরু করবে এমন সময় এতে মোটামুটি ২০০ মিলি জল যোগ করে দিন। ভালো করে মেশানো হয়ে গেলে এর মধ্যে আপনাদের যোগ করে দিতে হবে পরিমাণ মতন চিনি। কিন্তু অবশ্যই দিতে ভুলবেন না কারণ এটি ব্যবহার করলে রান্নার মধ্যে স্বাদের ব্যালেন্স বজায় থাকে।

তারপর আগে থেকে ভেজে রাখা বেগুনগুলিকে রান্নাতে দিয়ে দিতে হবে। কিছুক্ষণ নাড়াচাড়া করুন। দুটি কাঁচালঙ্কা যোগ করে দিন। এবারে সম্পূর্ণ রান্নাটিকে আপনাদের একেবারে হাই ফ্লেমে মিনিট পাঁচেক সময় ফুটিয়ে নিতে হবে। দেখবেন রান্না হতে গিয়ে এটার ঝোল অনেকটাই টেনে নিয়েছে। নামাবার সময় এতে সামান্য ধনেপাতা কুচি এবং ১ টেবিল চামচ কাঁচা সরষের তেল ভালো করে ছড়িয়ে দিন।।ব্যাস তৈরি হয়ে গেল আপনাদের বেগুন পোস্ত রেসিপি। এই অসাধারণ রেসিপিটি গরম ভাতের সাথে খেতে কেমন লাগলো তা অবশ্যই জানাতে ভুলবেন না।

Back to top button