দোকানের মতো কুচো নিমকি বানিয়ে ফেলুন বাড়িতে, খেতে হবে মুচমুচে ও দারুন সুস্বাদু!

নিজস্ব প্রতিবেদন :- পুজো পার্বণ হোক বা বাড়িতে অতিথি আগমন চায়ের সঙ্গে কিন্তু কুচো নিমকি থাকা একেবারে বাধ্যতামূলক। ধোঁয়া ওঠা গরম চায়ের সঙ্গে এই নিমকি যেন বহু যুগ ধরেই এক অসাধারণ কম্বিনেশন। যদিও বর্তমান সময়ে বেশিরভাগ মানুষই কিন্তু বাজার থেকে নিমকি কিনে নিয়ে চলে আসেন।

মা দিদিমাদের মতো বাড়িতে সাবেক পদ্ধতিতে কুচো নিমকি তৈরির পদ্ধতি যেন বহু যুগ আগেই শেষ হয়ে গিয়েছে। তবে আমাদের আজকের এই বিশেষ প্রতিবেদনে আমরা আলোচনা করব কিভাবে আপনারা অত্যন্ত সহজ উপায়ে মুচমুচে কুচো নিমকি বাড়িতে তৈরি করে নিতে পারেন। 

নিমকি তৈরির বিশেষ পদ্ধতি:

কুচো নিমকি বানানোর জন্য আপনাদের প্রথমেই এক কাপ পরিমাণ ময়দা নিয়ে নিতে হবে। মোটামুটি দেড়শ গ্রাম ময়দা আপনারা নিতে পারেন। এরমধ্যে স্বাদ অনুযায়ী লবণ যোগ করে দিন। এরপর দিয়ে দিন দেড় চা চামচ চিনি ও ১ চা চামচ কালো জিরে। কোনরকম বেকিং পাউডার বা backing সোডার ব্যবহার করার দরকার নেই। বরং আপনারা চাইলে কিছুটা পরিমাণ জোয়ান দিয়ে দিতে পারেন।

এবার ময়ানের জন্য আপনাদের ৫ টেবিল চামচ পরিমাণ ঘি এই ময়দার মধ্যে দিয়ে দিতে হবে। যদি আপনারা ঘি পছন্দ না করে থাকেন সেক্ষেত্রে তেল ব্যবহার করতে পারেন। ময়দা যত ভালো করে আপনারা ময়ান দিতে পারবেন, নিমকি কিন্তু ঠিক ততটাই মুচমুচে হবে। ঘি দিয়ে যদি আপনারা ময়ান দেন তাহলে কিন্তু অনেকদিন পর্যন্ত নিমকি সংরক্ষণ করে রাখতে পারবেন।

এবার অল্প অল্প পরিমানে জল ব্যবহার করে আপনাদের ময়দা মেখে নিতে হবে। নরমাল জল ব্যবহার করবেন এবং একসাথে সমস্ত জল ঢেলে দেবেন না। কুচো নিমকি তৈরি করার জন্য ময়দার যে ডোটি আপনারা তৈরি করবেন সেটা কিন্তু রুটি বা পরোটার মতন নরম হবে না। কিছুটা শক্ত করে মাখতে হবে।

ডো তৈরি হয়ে গেলে ২০ থেকে ২৫ মিনিট সময় পর্যন্ত এটাকে ঢাকা দিয়ে রেখে দিতে হবে। ২৫ মিনিট পরে ঢাকনা খুলে আপনাদের আরো একটু ডোটিকে ঠেসে নিতে হবে। এবার এর দিয়ে তিন থেকে চারটি লেচি কেটে নিতে হবে। এরপর আপনাদের রুটি বেলে নিতে হবে। যেহেতু এর মধ্যে আগে থেকেই যথেষ্ট পরিমাণে তেল আর ঘি ব্যবহার করা রয়েছে তাই আপনাদের কিন্তু আর অতিরিক্ত পরিমাণে কিছু ব্যবহার করার প্রয়োজন নেই। তবে আপনারা চাইলে রুটি বেলার সময় হালকা তেল ব্যবহার করে নিতে পারেন।

এরপর একটি চামচ বা ধারালো চাকুর সাহায্যে আপনাদের বরফির সাইজে নিমকি গুলিকে কেটে নিতে হবে রুটি থেকে। এবার কড়াইতে তেল গরম হওয়ার জন্য বসিয়ে দিন।

তারপর এই নিমকি গুলিকে গরম তেলের মধ্যে ভাজতে দিয়ে দিতে হবে। কিছুক্ষণের মধ্যেই দেখবেন সমস্ত নিমকি গুলি কিন্তু ভাজা ভাজা হয়ে যাচ্ছে। তবে যখন আপনারা এটা ভাজার জন্য তেলে ছাড়বেন তখন একসাথে কিন্তু সমস্ত নিমকি ছাড়বেন না।

মোটামুটি তিন থেকে চার মিনিটের মধ্যেই সমস্ত নিমকি ভাজা হয়ে গেলে কড়াই থেকে তুলে ফেলুন। নিজেরাই দেখতে পারবেন কতটা মুচমুচে ভাবে নিমকি গুলি তৈরি হয়ে গিয়েছে।

এবার খুব সহজেই আপনারা এটিকে দীর্ঘদিন পর্যন্ত সংরক্ষণ করে রাখতে এবং সহজে পরিবেশন করে নিতে পারেন। গরম ধোয়া ওঠা চায়ের সাথে নিমকির কম্বিনেশন কিন্তু দারুন লাগবে।

Back to top button