বাড়িতে ঘরোয়া সহজ পদ্ধতিতে বানিয়ে ফেলুন পারসে মাছের ইউনিক রেসিপি, যার স্বাদ হয় দুর্দান্ত!

নিজস্ব প্রতিবেদন:- কথাতেই রয়েছে মাছে ভাতে বাঙালি। উৎসবের দিনগুলিতে কিন্তু অনেকেই নিত্যনতুন রেসিপি ট্রাই করে থাকেন। আর এই সময় মাছ খাওয়া হয়না এমনটা তো হতেই পারে না। আজকের এই বিশেষ প্রতিবেদনে আমরা আপনাদের জন্য নিয়ে এসেছি দুর্গাপূজা স্পেশাল একটি মাছের রেসিপি। পুজোর এই দিনগুলিতে জমিয়ে আনন্দ করতে হাতে কিছুটা সময় নিয়ে বাড়িতে কিন্তু আপনারা এই রেসিপি সহজেই তৈরি করে নিতে পারেন।

চলুন তাহলে আর বেশি দেরি না করে আজকের প্রতিবেদনের মূল পর্বে যাওয়া যাক। আজকে আমরা আপনাদের সাথে পারসে মাছের একটি রেসিপি শেয়ার করে নিতে চলেছি। কমবেশি সকলেই হয়তো এই মাছ খেয়েছেন। তবে আজকে আমরা যে রেসিপিটি তৈরি করব সেটা যদি স্টেপ বাই স্টেপ আপনারা ফলো করতে পারেন তাহলে কিন্তু বারবার এরকম রান্না করে খেতে চাইবেন।

১) এই রেসিপিটি তৈরি করার জন্য প্রথমেই আপনাদেরকে বাজার থেকে মাছ কিনে নিয়ে এসে তা ভালো করে কেটে নিতে হবে। এই মাছ কিন্তু খুব তাড়াতাড়ি নষ্ট হয়ে যায় তাই আপনাদের কিনে নিয়ে আসার সঙ্গে সঙ্গেই রান্না করে নিতে হবে। মাছ কাটা হয়ে গেলে ভালো করে পরিষ্কার করে জল দিয়ে ধুয়ে নিন। এরপর মাছের মধ্যে দিয়ে দিতে হবে লবণ, হলুদ গুঁড়ো। তারপর লবণ আর হলুদ মাখিয়ে মাছের জল ভালো করে ঝরিয়ে নিন। নয়তো মাছ ভাজতে গেলে ভেঙ্গে যাবে। যে মাছগুলোকে লবন আর হলুদ মাখিয়ে রেখেছিলেন সেগুলোকে এবার ভালো করে ভেজে নিতে হবে।

এই রেসিপিটা তৈরি করার জন্য উপকরণ হিসেবে আপনাদের প্রয়োজন হবে কালোজিরে, পোস্ত,কালো সরষে,হলুদ সরষে, হলুদ গুঁড়ো, লবণ,কাঁচা লঙ্কা,ধনেপাতা এবং রান্নার তেল। পোস্ত কাঁচালঙ্কা আর সর্ষে দিয়ে ভালো করে মিশিয়ে আপনাদের একটি পেস্ট তৈরি করে নিতে হবে। আপনারা চাইলে শিলনোরার সাহায্যে এই পেস্ট তৈরি করতে পারেন। সব মসলা মিহি করে বেটে নেওয়ার পর আপনাদের উনুন ধরিয়ে নিতে হবে।

২) এরপর কড়াইতে সর্ষের তেল দিয়ে তা ভালো করে গরম করে নিন। মাছ ভাজার একই তেলের মধ্যে আপনাদের দিয়ে দিতে হবে কালোজিরা। অন্যদিকে যে মসলাটি তৈরি করেছিলেন সেটাকে ভালো করে একটু জল দিয়ে গুলে নিন। এটাকে তেলের মধ্যে দিয়ে দিন।

এবার এর মধ্যে মসলা ধোয়া জল দিয়ে দিতে হবে। এই সময় টমেটো টুকরো করে ঝোলের মধ্যে দিয়ে দিন। এবার কয়েকটি বেগুন কেটে সেগুলি কেউ ঝোলের মধ্যে দিয়ে দিন। স্বাদমতো লবণ যোগ করে ভালোভাবে মিশিয়ে নিন। মিডিয়াম আচে আপনাদের ঢাকা দিয়ে এটাকে ভালো করে সেদ্ধ করে নিতে হবে। সেদ্ধ হয়ে যাওয়ার পর এর মধ্যে মাছগুলিকে দিয়ে দিন।

৩) এবার মোটামুটি তিন থেকে চার মিনিট সময় পর্যন্ত রেসিপিটিকে ভালো করে ফুটিয়ে ধনেপাতা কুচি ছড়িয়ে দিন। এতে কিন্তু রান্নার স্বাদ কয়েকগুণ বেড়ে যাবে। গরম গরম ভাতের সাথে এই অসাধারণ মাছের রেসিপিটি কিন্তু আপনারা সহজেই পরিবেশন করতে পারেন। দুপুরের খাবার হোক বা রাতের খাবার অসাধারণ খেতে লাগবে।

Back to top button