ছোটোদের হবে দারুণ পছন্দ! খুব সহজ এই ঘরোয়া পদ্ধতিতে বানিয়ে দেখুন দুর্দান্ত স্বাদের আলু চচ্চড়ি

নিজস্ব প্রতিবেদন: কমবেশি ছোটবেলায় স্কুল টিফিনে রুটি, লুচি বা পরোটার সাথে আলু চচ্চড়ি কিন্তু অনেকেই খেয়েছেন। হাতে কম সময় থাকলেও খুব সহজেই কিন্তু এই আলুর চচ্চড়ি তৈরি করে ফেলা যায়। আজকের এই বিশেষ প্রতিবেদনে আমরা আপনাদের সঙ্গে সেই রেসিপি শেয়ার করে নিতে চলেছি একটু বিশেষভাবে। এই চটজলদি আলুর চচ্চড়ি রেসিপিটি যদি আপনাদের ভালো লেগে থাকে তাহলে কিন্তু অবশ্যই প্রতিবেদনটি লাইক কমেন্ট এবং শেয়ার করে নিতে ভুলবেন না। চলুন এবার সময় নষ্ট না করে প্রতিবেদনের মূল পর্বে যাওয়া যাক।

আলুর চচ্চড়ি তৈরি করার রেসিপি:

প্রথমেই আলুর চচ্চড়ি তৈরি করার জন্য আপনাদের পাঁচ থেকে ছয়টি আলু নিয়ে সেগুলিকে ছোট ছোট টুকরো করে কেটে নিতে হবে। এরপর আলুর টুকরো গুলিকে জলে ভিজিয়ে রাখতে হবে যাতে কালো না হয়ে যায়। এরপর একটি কড়াইয়ের মধ্যে পরিমাণ মতন সর্ষের তেল দিয়ে তা গরম করে নিন। এই আলুর তরকারি বা আলুর চচ্চড়ি কিন্তু সাধারণত সরষের তেলেই রান্না করা হয়ে থাকে।

তেল ভালোভাবে গরম হয়ে গেলে এর মধ্যে দিয়ে দিন হাফ চা চামচ কালোজিরা এবং দুটি কাঁচা লঙ্কা। কয়েক সেকেন্ড পর এর মধ্যে আপনাদের জল ঝরিয়ে নেওয়া আলু গুলিকে দিয়ে দিতে হবে। এবার এর মধ্যে দিয়ে দিতে হবে হাফ চা চামচ হলুদ গুঁড়ো, হাফ চা চামচ নুন। এবার আলুগুলিকে যথাসম্ভব লাল করে ভেজে নিতে হবে। গ্যাসের ফ্ল্যেম মিডিয়ামে রেখে আপনাদেরকে আলুগুলিকে ভাজতে হবে। ভাজা হয়ে গেলে আলুগুলিকে দুই মিনিটের জন্য ঢাকা দিয়ে রাখুন।

এভাবে ঢাকা চাপা দিয়ে আলু ভাজা করলে কিন্তু গ্যাস কম খরচ হবে পাশাপাশি আলুও খুব সুন্দরভাবে ভাজা হয়ে যাবে।আবারো একবার দুই মিনিটের জন্য এরকম ঢাকা দিয়ে নেবেন মাঝখানে। এরপর আলু গুলি ভাজা হয়ে গেলে আপনাদের দিয়ে দিতে হবে পরিমাণ মতন জল।। মোটামুটি ততটাই জল দেবেন যতক্ষণ পর্যন্ত আলু গুলি মাঝ বরাবর জলে ডুবে থাকে। আলু ভাজার সময় পরিমাণ মতো নুন দেওয়া হয়ে থাকলে আর কিন্তু নুন দেওয়ার দরকার নেই।

তবে একবার অবশ্যই লবণের স্বাদ যাচাই করে নিতে পারেন। এরপর একটা কাঁচা লঙ্কা দুই টুকরো করে রান্নার মধ্যে দিয়ে দিতে হবে। গ্যাসের আঁচ মিডিয়ামে রেখে এটাকে কিছুক্ষণ ঢাকা দিয়ে রান্না হতে দিন। তিন চার মিনিট পরে ঢাকনা সরিয়ে দেখে নেবেন আলু ভালোভাবে সেদ্ধ হয়ে গিয়েছে কিনা! আলু যদি সেদ্ধ হয়ে গিয়ে থাকে সেক্ষেত্রে আর ঢাকা দেওয়ার প্রয়োজন নেই। যতটা সময় উচিত ততক্ষণ পর্যন্ত হাই ফ্লেমে আপনাদের আলুর ঝোল গুলিকে কিছুটা শুকিয়ে নিতে হবে।

হাতা দিয়ে কয়েকটা আলু ভেঙে ঝোলে মিশিয়ে নিতে পারেন এতে কিন্তু গ্রেভির মধ্যে একটা ঘনত্ব আসবে। সবশেষে একবার নাড়াচাড়া করে গ্যাসের ফ্লেম অফ করে দিন। পাঁচ মিনিট পর্যন্ত স্ট্যান্ডিং টাইমে রেখে দিতে পারেন। পাঁচ মিনিট পরে পরিবেশন করার জন্য আলুর চচ্চড়ি একবারে তৈরি হয়ে গেল। সহজেই কিন্তু আপনারা এটাকে রুটি, লুচি অথবা পরোটার সাথে পরিবেশন করতে পারেন। উৎসবের দিনগুলিতে জলখাবার হিসেবে অথবা স্কুলের টিফিনেও কিন্তু বাচ্চাদের এই খাবার দেওয়া যেতে পারে। রেসিপিটি কেমন লাগলো তা জানানোর অনুরোধ রইল।

Back to top button