হুবহু দোকানের মতো বাড়িতেই এই সহজ ঘরোয়া পদ্ধতিতে বানান দারুণ টেস্টি রসমালাই, খেলেই স্বাদ লেগে থাকবে মুখে

নিজস্ব প্রতিবেদন: বাঙালি মানেই মিষ্টি খেতে ভালোবাসেন এটা একদম স্বাভাবিক। তবে বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই কিন্তু এই মিষ্টি খাওয়ার জন্য আমাদের দোকানের উপর নির্ভরশীল থাকতে হয়। বাড়িতে কোন অতিথি আসলেও চটজলদি ছুটে যেতে হয় বাজারের মিষ্টির দোকানে। অথচ বাড়িতে কিন্তু আপনারা খুব সহজেই বিভিন্ন মিষ্টি অল্প সময়ের মধ্যে তৈরি করে নিতে পারেন। আজ আমরা বলব রসমালাই তৈরির কথা। কিভাবে স্টেপ বাই স্টেপে রসমালাই তৈরি করতে হবে আজকের প্রতিবেদনে বিস্তারিত আলোচনা করব। তাহলে আর সময় নষ্ট না করে প্রতিবেদনটি শুরু করা যাক।

রসমালাই তৈরি করার জন্য প্রথমেই কিছুটা পরিমাণ দুধ নিয়ে তা ভালো করে ফুটিয়ে নিতে হবে। দুধে কিছুটা বলক চলে আসলে গ্যাস বন্ধ করে দিতে হবে। এবার কিছুটা ঠান্ডা করে নিয়ে ধীরে ধীরে এই দুধের মিশ্রণের মধ্যে আপনাদের ভিনেগার আর জলের মিশ্রণ দিয়ে দিতে হবে।

দুই চামচ ভিনেগারের সাথে চার চামচ জল যোগ করে একটা মিশ্রণ আগেভাগেই তৈরি করে রাখবেন যা ছানা তৈরি করতে সাহায্য করবে। দুধের মধ্যে ভিনেগার যোগ করলেই কিন্তু ধীরে ধীরে ছানা তৈরি হয়ে যাবে।এবার একটা সুতির কাপড়ের সাহায্যে আপনাদের ছানাগুলোকে বের করে জল ঝরিয়ে নিতে হবে। তবে অবশ্যই তার আগে কয়েকবার জল দিয়ে ধুয়ে নিতে ভুলবেন না যাতে এর মধ্যের টক ভাব চলে যায়।

এবার রাবড়ি তৈরি করার জন্য আপনাদের আবারো একটা পাত্রের মধ্যে কিছুটা পরিমাণ দুধ নিয়ে ফুটিয়ে নিতে হবে। দুধে হালকা বলক আসলে আপনাদের পরিমাণমতো চিনি দিয়ে দিতে হবে। ফ্লেভার এবং রঙের জন্য আপনারা এখানে যোগ করতে পারেন সামান্য পরিমাণ কেশর দানা এবং এলাচ পাউডার।যতক্ষণ না দুধ আরো ঘন হয়ে যাচ্ছে মিডিয়াম ফ্লেমে, একটু ফুটিয়ে নেবেন।

সামান্য পরিমাণে হলুদ যোগ করতে পারেন। সবশেষে নিজেদের ইচ্ছেমতো ড্রাই ফ্রুট এই রাবড়ির মধ্যে যোগ করে দেবেন। ব্যস এবারে আপনাদের সুগার সিরাপ তৈরি করতে হবে যার জন্য প্যানে কিছুটা পরিমাণ চিনির সাথে জল মিশিয়ে নিন। মিডিয়াম ফ্লেমে গ্যাস রেখে যতক্ষণ পর্যন্ত না চিনি গলে বলক আসছে অপেক্ষা করুন। ব্যাস চিনি গলে গেলেই কিন্তু শিরা তৈরি হয়ে যাবে।

এবার আগে থেকে যে ছানা তৈরি করে রেখেছিলেন সেটাকে কাপড় থেকে বের করে হাত দিয়ে একটু মথে নিতে হবে। তারপর এর মধ্যে এক টেবিল চামচ ময়দা যোগ করে আরো একবার ভালোভাবে মেখে নিন। এবার এই ছানা থেকে ছোট ছোট বল তৈরি করে যে চিনির শিরা তৈরি করেছিলেন তার মধ্যে দিয়ে দিতে হবে। ঢাকা দিয়ে বেশ কিছুক্ষণ ফুটিয়ে নেবেন যাতে রসগোল্লা তৈরি হয়ে যায়।

বেশ কিছুক্ষণ হাই ফ্লেমে ফুটিয়ে নেওয়ার পর রসগোল্লা গুলোকে শিরা থেকে বের করে একটা পাত্রে রাখুন এবং আগে থেকে তৈরি করে রাখা মালাই বা রাবড়ি এর মধ্যে ছড়িয়ে দিন। তৈরি হয়ে গেল সহজ উপায়ে সুস্বাদু রসমালাইয়ের রেসিপি। খেতে কেমন লাগলো তা কিন্তু অবশ্যই একটি কমেন্ট মাধ্যমে জানাতে ভুলবেন না।

Back to top button