শীতের কনকনে ঠাণ্ডায় পা ফাটার সমস্যায় নাজেহাল! মাত্র ১টি লেবু দিয়ে পা ফাটা হবে উধাও, মেনে চলুন এই সহজ গোপন ট্রিকস

নিজস্ব প্রতিবেদন: শীতকালের বিভিন্ন সমস্যার মধ্যে অন্যতম হলো পা ফাটার সমস্যা। কমবেশি নারী পুরুষ নির্বিশেষে সকল বয়সের মানুষের মধ্যেই কিন্তু এটি লক্ষ্য করা যায়। বাজারের বিভিন্ন নামিদামি ক্রিম বা লোশন ব্যবহার করলেও এর হাত থেকে রেহাই মেলেনা। তবে আজকে আমরা সাধারণ একটি উপকরণ লেবু ব্যবহার করেই মাত্র এক রাতের মধ্যে পা ফাটার সমস্যার দূর করার একটা বিশেষ রেমেডি শেয়ার করে নিতে চলেছি। যদি আপনিও এই পা ফাটার সমস্যার কারণে কষ্ট পেয়ে থাকেন সেক্ষেত্রে এই প্রতিবেদনটি শুধুমাত্র আপনাদের জন্য। চলুন তাহলে আর সময় নষ্ট না করে প্রতিবেদনের মূল পর্বে গিয়ে বিশেষ রেমিডিটি জেনে নেওয়া যাক।

সারাদিন আমাদের পায়ের উপর কম অত্যাচার হয় না। কিন্তু সত্যি করে বলুন তো পায়ের খেয়াল কজন সঠিক ভাবে রাখেন? ত্বক বা চুলের যত্ন আমরা কমবেশি সকলেই করি। কিন্তু পায়ের যত্ন নেওয়ার কথা আমাদের মাথাতেই থাকে না। যখন পা ফাটার একটা ভয়ানক অবস্থা হয়ে যায়, তখন সেটা হয়তো আমাদের চোখে পড়ে। যত্নের অভাবে যেমন পা ফাটে ঠিক তেমনভাবেই অনিয়মিত খাওয়া দাওয়া বা ভিটামিন ই বা অন্য উপকরণের অভাবেও কিন্তু এই সমস্যা দেখা যায়।

এই সমস্যা দূর করার জন্য একটা ছোট সাইজের লেবু নিয়ে নিন। লেবুর মধ্যে কিন্তু ভিটামিন সি থেকে শুরু করে ক্যালসিয়াম, ম্যাগনেসিয়াম, আয়রন, ফসফরাস অনেক কিছু রয়েছে। একটা ছোট বাটির মধ্যে এই লেবুর রস কিছুটা বের করে নিন। এবার আপনাদের পা সহ্য করতে পারবে এরকম গরম জল একটা বড় গামলার মধ্যে নিয়ে নিন।

বাকি থাকা লেবুটা নিয়ে রস বের করে খোসা সমেত জলের মধ্যে দিয়ে দিন।। তারপর এই জলের মধ্যে একে একে দুই চামচ লবণ এবং যেকোনো শ্যাম্পু যোগ করুন। শ্যাম্পু দেওয়ার কারণে কিন্তু পায়ে জমে থাকা নোংরা বা ময়লা সহজেই বেরিয়ে যাবে। এই জলের মধ্যে পা কিছুক্ষণ ভিজিয়ে রেখে একটা ব্রাশের সাহায্যে ঘষে ময়লা বা মরা কোষ গুলোকে তুলে ফেলুন। তারপর একটা পরিষ্কার তোয়ালে দিয়ে ভালো করে পা মুছে নিন।

চেষ্টা করবেন এটি রাতের দিকে করার কারণ দিনের বেলায় যেহেতু অনেক কাজকর্ম করতে হয়, তাই রেমেডি ভালোভাবে কাজ নাও করতে পারে। এবার প্রথমে যে লেবুর রস আলাদা করে রেখেছিলেন তার মধ্যে হাফ চা চামচ পরিমাণ ভেসলিন যোগ করে মিশিয়ে ফেলুন। এই মিশ্রণটাকে পায়ের ফাটা অংশে এবং পারলে পুরো পায়ের তলাতেই ভালোভাবে লাগিয়ে রেখে দিন। রাতের মধ্যেই আপনার পা ফাটার সমস্যা দূর হয়ে যাবে। শুধুমাত্র তাই নয় নিয়মিত যদি আপনি এই টিপস ট্রাই করে দেখতে পারেন তাহলে কিন্তু কখনোই পা ফাটার কষ্ট আর আপনাকে ভোগ করতে হবে না।

Back to top button