এরকম রেসিপি কখনও খাননি আগে! খুব সহজ এই ঘরোয়া পদ্ধতিতে বানিয়ে দেখুন দুর্দান্ত স্বাদের পনীর কুলচা

নিজস্ব প্রতিবেদন: প্রতিদিন একঘেয়ে মাছ মাংস অথবা বিভিন্ন ধরনের পদ খেতে খেতে সকলেরই কিন্তু একটা একঘেয়েমি তৈরি হয়ে যায়।। এমন বহু মানুষ রয়েছেন যাদের ঠিক এই কারণেই খাবারের প্রতি এক প্রকার অনীহা তৈরি হয়ে গিয়েছে। তাই মাঝে সাঝে একটু স্বাদের পরিবর্তন নিয়ে আসার জন্য নতুন ধরনের রেসিপি ট্রাই করাটা কিন্তু ভীষণ প্রয়োজন।

আজকে আমরা এমন একটি রেসিপি আপনাদের সাথে শেয়ার করব যা হয়তো আপনারা আগেও বানিয়েছেন। তবে এই পদ্ধতিতে রেসিপিটা বানালে কিন্তু স্বাদ হবে দুর্দান্ত। চলুন তাহলে সময় নষ্ট না করে শুরু করা যাক আজকের রেসিপি পনির মসলা কুলচা। প্রতিবেদনের পরবর্তী অংশে স্টেপ বাই স্টেপ এটি তৈরি করার পদ্ধতি শেয়ার করে নেওয়া হলো।

এই রেসিপিটি তৈরি করার জন্য একটা বড় পাত্রে দু কাপ পরিমাণ রিফাইন্ড ময়দা নিয়ে নিতে হবে। ময়দার মধ্যে ১ টেবিল চামচ চিনি, ১ টেবিল চামচ লবণ, ১ টেবিল চামচ বেকিং পাউডার, ২ টেবিল চামচ দই, ৩ টেবিল চামচ তেল, এবং হাফ কাপ উষ্ণ গরম দুধ নিয়ে নিতে হবে। সমস্ত উপকরণগুলোকে ভালো করে মিশিয়ে নিন।

অল্প করে গরম জল ব্যবহার করে আপনাদের ভালোভাবে মিশ্রণটাকে মেখে নিতে হবে। একেবারে নরম আর মোলায়েম ডো তৈরি হয় যাতে সেই দিকে নজর দেবেন। এবার একটা পলিথিনের সাহায্যে ডো টাকে কভার করে দশ মিনিট সময় পর্যন্ত রেস্টে রাখুন। এখন স্টাফিং তৈরি করার জন্য প্যানে কিছুটা পরিমাণ তেল দিয়ে গরম করে নিন। তারপর এর মধ্যে কুচি করে কেটে নেওয়া পেঁয়াজ দিয়ে কিছুক্ষণ নাড়াচাড়া করতে থাকুন।

পেঁয়াজ হালকা ভাজা হলে এর মধ্যে ১ টেবিল চামচ কাঁচালঙ্কা কুচি,১ টেবিল চামচ আদা রসুন বাটা যোগ করে দিন। ভালোভাবে একটু নাড়াচাড়া করে আবারো ভাজা হয়ে গেলে এর মধ্যে এক কাপ পরিমাণ গ্ৰেট করে নেওয়া গাজর এবং হাফ কাপ ক্যাপসিকাম কুচি দিয়ে দিন। গ্যাসের ফ্লেম হাই রেখে রান্নাটিকে বেশ কিছুক্ষণ সময় নাড়াচাড়া করুন। এবার গুঁড়ো মসলা হিসেবে আপনাদের এই রান্নাতে ব্যবহার করতে হবে হাফ টেবিল চামচ চিলি ফ্লেক্স, হাফ টেবিল চামচ গোল মরিচের গুড়ো, এক টেবিল চামচ লবণ এবং ভাজা জিরের গুঁড়ো এক টেবিল চামচ।

কিছুটা পরিমাণ ধনেপাতা কুচি যোগ করে দিন। তারপর যে পনির গুলো গ্রেট করে রেখেছিলেন সেটাকে রান্নাতে দিয়ে দিন। সামান্য পরিমাণ চাট মসলা যোগ করে ভালোভাবে রান্না নাড়াচাড়া করতে থাকুন। সমস্ত উপকরণ গুলো ভালোভাবে মিশে গেলে স্টাফিং তৈরি হয়ে যাবে। এবার চাটনি বানানোর জন্যে কিছুটা পরিমাণ ইমলি অর্থাৎ তেতুল নিয়ে তা পাল্প করে বের করে নেবেন। তারপর এই মিশ্রণের মধ্যে কুচি করে নেওয়া পেঁয়াজ, কাঁচা লঙ্কা কুচি, ধনেপাতা কুচি এবং আলুর টুকরো নিয়ে নিতে হবে।

চাটনিতে দারুন ফ্লেভার আনার জন্য আপনারা যোগ করতে পারেন চাট মসলার পাউডার, ভাজা জিরের পাউডার, কালো লবন এবং সাদা লবণ। সবশেষে সামান্য চিনি যোগ করে চামচ দিয়ে ভালোভাবে মিশিয়ে নিলেই চাটনি তৈরি হয়ে যাবে। অন্যদিকে যে ডো’টা তৈরি করে রেখেছিলেন সেটাকে কভার থেকে খুলে ফেলুন। একবার ভালো করে মথে নিয়ে এটা থেকে গোল বলের মতন করে রুটি করার জন্য লেচি কেটে নিন।

প্রত্যেকটা বল নিয়ে মাঝখানে কিছুটা জায়গা ফাঁকা করে তাতে স্টাফিং ভালোভাবে পুরে দেবেন। এবার একটু ময়দা ছড়িয়ে খুব সুন্দর ভাবে আপনারা কুলচাগুলোকে বেলে নিন। তাওয়াতে সামান্য জল ছিটিয়ে কুলচাগুলোকে তাতে রেখে দিন। এক মিনিট পর্যন্ত কভার করে মিডিয়াম গ্যাসের ফ্ল্যেমে এটাকে ভাপিয়ে নেবেন।উল্টো দিকটাকেও ঠিক একই রকম ভাবে আপনারা ভাপিয়ে নিন। যেদিকটা উল্টে দিলেন সেইদিকে একটু বাটার লাগিয়ে দিতে হবে। ধীরে ধীরে এটা খুব সুন্দর ফুলে উঠবে। ব্যাস এভাবে পনির কুলচা তৈরি করে নিন এবং টক মিষ্টি চাটনির সাথে পরিবেশন করুন। খেতে কেমন লাগলো তা অবশ্যই প্রতিবেদনের কমেন্ট বক্সে জানাতে ভুলবেন না।

Back to top button