“মতে মিলছে না! সম্পর্ক রাখতে চাই না!”, জীবনে প্রথম এই বড়সড় পদক্ষেপ নিল অঙ্কুশ

নিজস্ব প্রতিবেদন: টলিউড ইন্ডাস্ট্রির একেবারে প্রথম শাড়ির জনপ্রিয় অভিনেতার মধ্যে রয়েছেন অঙ্কুশ হাজরা। কেল্লাফতে ছবির মাধ্যমে নিজের অভিনয় জীবন শুরু করেছিলেন তিনি। বক্স অফিসে ছবিটি খুব একটা সাফল্য না পেলেও দর্শকদের কাছে অঙ্কুশের অভিনয় ব্যাপকভাবে প্রশংসিত হয়েছিল। এরপর একের পর এক সুপারহিট ছবিতে দেখা যায় তাকে যেগুলো তার কেরিয়ারের মাইলস্টোন হয়ে ওঠে।

অঙ্কুশ হাজরার জনপ্রিয়তা এখন প্রায় আকাশছোঁয়া হয়ে পড়েছে। ইন্ডাস্ট্রির অন্যতম সেলিব্রিটিদের তালিকায় তিনি রয়েছেন প্রথম সারিতে। তবে সম্প্রতি মতবিরোধের কারণে শেষ পর্যন্ত “নেক্সজেন ভেঞ্চার্স” এর সঙ্গে থেকে বিচ্ছেদের সিদ্ধান্ত নিয়েছেন নায়ক। নিজের সোশ্যাল মিডিয়া একাউন্ট থেকে এ বিষয়ে একটি পোস্ট শেয়ার করে সাফ জানিয়ে দিয়েছেন অভিনেতা যে তারা আর কখনোই একত্রিত হবেন না। আসুন ঠিক আসল ঘটনাটা কি জেনে নেওয়া যাক!

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য চলতি বছর আগস্ট মাসের নিজের একটি নতুন প্রযোজনা সংস্থার কথা ঘোষণা করেছেন অভিনেতা। এই সংস্থার তিনি নাম রেখেছেন “অঙ্কুশ হাজরা মোশন পিকচার্স”। পাশাপাশি তিনি এটাও জানিয়েছিলেন যে তার এই প্রযোজনা সংস্থা খুব শীঘ্রই “নেক্সজেন ভেঞ্চার্স”-এর সাথে যুক্ত হয়ে মির্জা নামের একটি ছবি তৈরি করতে চলেছে। কিন্তু এবার মতপার্থক্যের কারণে শেষ পর্যন্ত এই সিদ্ধান্ত থেকে সরে আসতে বাধ্য হলেন অভিনেতা। এ নিয়ে একটি বিস্তারিত বিজ্ঞপ্তি নিজের সোশ্যাল মিডিয়া প্রোফাইল থেকেই প্রকাশ করেছেন তিনি নিজেই। আসুন অভিনেতার ব্যক্তিগত বক্তব্য কি দেখা যাক।

বিজ্ঞপ্তিতে অঙ্কুশ জানিয়েছেন, “আমাদের প্রিয় দর্শকদের উদ্দেশ্যে এই বিশেষ ঘোষণা, অঙ্কুশ হাজরা মোশন পিকচার্স এবং নেক্সজেন ভেঞ্চার্স প্রাইভেট লিমিটেডের মধ্যে কিছু অভ্যন্তরীণ মতপার্থক্যের কারণে অঙ্কুশ হাজরা মোশন পিকচার্স, নেক্সজেন ভেঞ্চার্সের সঙ্গে আলাদা হওয়ার এবং ভবিষ্যতে কোনওদিন একত্রিত না হওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। সেই কারণে স্থগিত রাখা হয়েছে “মির্জা” ছবিটিকে। যেটি 2023-এ ঈদে মুক্তি পাওয়ার কথা ছিল”। পাশাপাশি তিনি এটাও বলেন, “মির্জা ছবিটিকে আরো বড় আর ভালো করার উদ্দেশ্যে আমরা কিছু পরিবর্তন করতে চলেছি।

তাছাড়াও সমস্ত শিল্পী এবং টেকনিশিয়ান বন্ধুদের কথা মাথায় রেখে শুটিং শেষ করতেও একটা দীর্ঘ সময় লেগে যাওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। তাই আমাদের সকল সিনেমা প্রেমী দর্শকদের কাছে অনুরোধ যারা মির্জা সিনেমাটিকে এত ভালবাসা দিয়েছো, মাত্র কিছু সময়ের অপেক্ষা আমরা শীঘ্রই ফিরব। আমাদের সমস্ত সিদ্ধান্তই মির্জা এবং আপনাদের প্রত্যেকের মধ্যেই যাতে একটা অসাধারণ সিনেমার এক্সপেরিয়েন্স হয়,সেই পক্ষেই রয়েছে।অতএব কেউ হতাশ হবেন না মির্জা আসবে,আসবেই”।।

Back to top button