কোজাগরী লক্ষ্মী পুজোয় বাড়িতেই খুব সহজেই দেওয়ার জন্য রইলো ১০ রকমের আলপনার দুর্দান্ত ডিজাইন

নিজস্ব প্রতিবেদন: আর মাত্র কয়েক দিনের অপেক্ষা তারপরেই শুরু হয়ে যাবে বাঙালির বহু প্রতীক্ষিত উৎসব দুর্গাপুজো। দুর্গাপূজার আর কয়েক দিনের মধ্যেই রয়েছে লক্ষ্মী পুজো আর দীপাবলি। এই সময় কিন্তু বাড়িতে অনেকেই আলপনা বা রঙ্গোলি ডিজাইন করে থাকেন। আজকের এই বিশেষ প্রতিবেদনে আমরা সেই সমস্ত গৃহিণীদের জন্যই নিয়ে এসেছি বিশেষ ১০ টি আলপনার ডিজাইন যা খুব সহজেই আপনারা বাড়িতে তৈরি করে নিতে পারেন। চলুন তাহলে আর দেরি না করে আমাদের আজকের এই বিশেষ প্রতিবেদনটি শুরু করা যাক।

১) আজকের প্রতিবেদনের শুরুতেই আপনারা যে ডিজাইনটি দেখতে পাচ্ছেন সেটা খুব সুন্দর ভাবে কলকার মতন নকশা করে শুরু করা হয়েছে। তারপর এর ধারে পাঁচটি করে পাতার মতন নকশা করা রয়েছে। একই রকম ভাবে এর নিচের অংশে খুব সুন্দর কলকা ডিজাইন করে ধানের ছড়ার মতন আঁকা রয়েছে। লক্ষ্মী পূজার জন্য আপনারা অবশ্যই এই ডিজাইনটি ট্রাই করে দেখতে পারেন।

২) দ্বিতীয় যে ডিজাইনটা আপনারা দেখছেন সেটাতে প্রথমেই আপনাদেরকে অনেকটা বাংলার ১ এর মতন দুই মুখো করে একে নিতে হবে। তারপর ভেতরের অংশগুলিকে খুব সুন্দর ভাবে রং ভরে দিতে হবে যাতে একেবারে ভরা দেখতে লাগে। খুব সুন্দরভাবে নিচের অংশগুলিতে হালকা করে ধানের ছড়ার মতন ডিজাইন করতে হবে যাতে একটা আলাদা লুক চলে আসে। এর ঠিক নিচের অংশে আলপনাটিকে ফিনিশিং দেওয়ার জন্য আপনারা লম্বাটে ধরনের কলকা নকশা এঁকে সেটাকে খুব সুন্দর ভাবে ডিজাইন করে নিতে পারেন যেভাবে ছবিতে দেখানো হচ্ছে।

৩) এবার ডিজাইনটি আপনারা দেখছেন সেটা কে অনেকটা দুই মুখী কলকার মতন ডিজাইন করা রয়েছে। দেখে মনে হচ্ছে দুই দিকে দুটো কলকে ফুল উল্টে রয়েছে। অসম্ভব সুন্দর একটা ডিজাইন। দরজার সামনে কিন্তু এটা দারুন লাগবে।

৪) এবার ডিজাইনটি আপনারা দেখছেন সেটা ইউ সেপে তৈরি করা হয়েছে। তারপর এর মাঝখানে অনেকটা পদ্ম ফুলের মতন নকশা করা রয়েছে।। নিচের অংশ তেও কত সুন্দর একটা রঙ্গোলির মতন আঁকা রয়েছে আপনারা দেখতে পাচ্ছেন।এই ধরনের কলকা তৈরি করা কিন্তু খুবই সহজ। এটার ফিনিশিং দিতে হলে আপনাকে তৃতীয় ধাপে আরেকটা ধনুকের মতন ডিজাইন করতে হবে তাহলে কিন্তু দেখতে দারুণ লাগবে।

৫) এবার যে কলকাটি আপনারা দেখছেন সেটাও খুব সুন্দর ভাবে দুই মুখে তৈরি করা হয়েছে। অনেকটা পাতার মতন করে এটাকে ডিজাইন করা রয়েছে। দীপাবলি অথবা লক্ষ্মীপূজো উপলক্ষে আপনারা দরজার দুই ধারে এই ডিজাইন কিন্তু সহজেই করতে পারেন।।

৬) এবার যে ডিজাইনটি আপনারা দেখছেন সেটা কিন্তু দীপাবলিতেই একমাত্র দারুন মানাবে। এক্ষেত্রে প্রথমেই আপনাদের একটি অর্ধেক গোল নকশা করে নিতে হবে। এরপর অনেকটা ফুলের পাপড়ির মতন সেটার উপর দিকে একে নিতে হবে যেভাবে দেখানো হচ্ছে। নিচের অংশটা থাকবে ধনুকের মতন। এবার প্রত্যেকটি অংশকে আপনাদের তুলি দিয়ে ভরাট করে নিতে হবে। যদি আপনারা এর ফাঁকা জায়গাগুলোতে কালার ব্যবহার করতে পারেন তাহলে কিন্তু আরও দারুন দেখতে লাগবে। স্পেশাল এই রঙ্গোলি খুব সহজেই আপনারা বাড়িতে তৈরি করে নিতে পারেন।

৭) এবারের আলপনাটি তৈরি করার জন্য আপনাদের প্রথমেই দুটি লম্বালম্বি দাগ টেনে নিতে হবে। ঠিক কলকার মতন করে এর ভিতরে ডিজাইন করতে হবে। এই আলপনাটি কিন্তু আপনারা সব সময় দরজার দুই ধারে বা কোন একটি ঘরের ধারে করার চেষ্টা করবেন। তাইলে আলপনা টিকে আরো সুন্দর ডিজাইন দেওয়ার জন্য নিচে ঠিক একই রকম ভাবে দুটি লম্বালম্বি দাগ টেনে তার মধ্যে কলকা করে নিতে পারেন। মাঝখানে ফুলের মতন ডিজাইন করে রং করে নিলে আরো দারুন দেখতে লাগবে।

৮) আজকের এই প্রতিবেদনে আট নম্বরে যে আলপনা ডিজাইনটি আপনাদের দেখাব সেটাতে আপনাদের অনেকটা পদ্ম ফুলের মতন একটা কলকা করতে হবে। যেরকম ভাবে দেখানো হচ্ছে একই রকম ভাবে ওরকম চারটে পাশাপাশি পদ্মফুল একে নিন। এটা কিন্তু খুবই সহজ আর সুন্দর একটা ডিজাইন।

৯) এবার যে ডিজাইনটি আপনাদের সাথে শেয়ার করে নিতে চলেছি সেটাতে প্রথমে আপনাদের একটা ঢেউ খেলানো নকশা মেঝেতে একে নিতে হবে। তারপর এর দুই ধার থেকে অনেকটা পাতার মতন করে ডিজাইন করার চেষ্টা করুন।দেখে যেন অনেকটা গাছের লতা ডিজাইন মনে হয়। ঠিক এর নিচের দিকে ফিনিশিং দেওয়ার জন্য একই রকম ভাবে আপনারা ঢেউ খেলানো একটা লাইন তৈরি করে তারপর সেটা থেকে কল্কার মতন করে নকশা করে নিতে পারেন।

১০) এবার আপনাদের যে আলপনাটি ডিজাইন দেখাবো তাতে আপনাদের যেরকম ভাবে ভিডিওতে দেখানো হচ্ছে ঠিক তেমনভাবেই গোল করে করে নকশা তৈরি করে নিতে হবে। আলপনাটি দেখতে অনেকটা জিলিপির মতন। উপরের অংশটা দেখতে হবে অনেকটা লতানো গাছ বা ধানের ছড়ার মতন।। ঠিক একই রকম ভাবে আড়াআড়ি ভাবে এরকম আরো দুটি নকশা আপনাকে তৈরি করে নিতে হবে।

Back to top button