বাড়ির উঠোন বা ছাদে এই সহজ ঘরোয়া পদ্ধতিতে চাষ করুন শশা, ফলন পান সারাবছর

নিজস্ব প্রতিবেদন:কম বেশি অনেকের পছন্দের ফলের তালিকাতেই রয়েছে শশার নাম। এটি হলো একটি মরসুমী ফল। বছরের যে কোন সময় তবে আপনারা এটা বাজারে পেয়ে যাবেন। এই শসা চাষ থেকে খুব সহজেই একটা বড় অংকের অর্থ লাভ করে থাকেন কৃষকেরা। তবে আজকের এই বিশেষ প্রতিবেদনে আমরা কোন কৃষকের চাষ নয়, আপনাদের জানাবো কিভাবে বাড়িতে জৈব সার প্রয়োগ করে বস্তায় বারোমাসি শসার চাষ করা যেতে পারে।

এর জন্য কিন্তু খুব একটা ঝামেলার প্রয়োজন নেই সহজেই এই কাজটা করতে পারবেন আপনারা। চলুন জেনে নেওয়া যাক কিভাবে এই চাষ করতে হবে। এই পদ্ধতিতে শসা চাষ করার জন্য প্রথমেই আপনাদের কয়েকটা সিমেন্টের বস্তা যোগাড় করে নিতে হবে। এবার সিমেন্টের বস্তা ভাজ করে এর মধ্যে কিছু পরিমাণ মাটি ভরে নিন। বাজার থেকে যেকোনো উন্নত মানের শসার বীজ আপনারা আগে থেকেই কিনে নিয়ে এসে রাখবেন।

বাজার থেকে যে শসার বীজগুলো আপনারা কিনে নিয়ে আসবেন সেটা একটা পাত্রে জলের মধ্যে ভিজিয়ে সাথে সাথেই কিন্তু মাটিতে রোপণ করবেন।মাটির একদম মাঝখান বরাবর এই বীজগুলো ছড়াবেন। বীজ রোপন করার পরে এর উপর একটু মাটি ছড়িয়ে দিতে ভুলবেন না যাতে অঙ্কুরোদগোমে কোন অসুবিধা না হয়। ভালোভাবে জল দিলে মোটামুটি তিন থেকে চার দিনের মধ্যেই কিন্তু গাছ থেকে চারা বেরিয়ে যাবে এবং পরবর্তী 10 থেকে 15 দিনের মধ্যে গাছগুলি ধীরে ধীরে পরিণত হতে শুরু করবে। এবার আসুন চলে আসা যাক শসা চাষের পরবর্তী ধাপে।

শসা চাষ করার জন্য আপনাদের ব্যবহার করতে হবে গোবর সার। যদি কোনো কারণে পোকামাকড়ের উপদ্রব হয় সেক্ষেত্রে আপনারা ফুলেরা প্রয়োগ করতে পারেন গাছে। প্রত্যেকদিন বাগানের যত্ন নেওয়ার সময় একবার অবশ্যই শশা গাছগুলো ভালো করে দেখে নেবেন যে এর মধ্যে পোকামাকড়ের উপদ্রব হয়েছে কিনা! সিমেন্টের বস্তার মাটি যদি শুকিয়ে যায় প্রয়োজন মতন জল ব্যবহার করবেন গাছে দেওয়ার জন্য।

মাসখানেকের মধ্যে গাছ যখন ধীরে ধীরে আরো পরিণত হতে শুরু করবে তখন অবশ্যই যাতে গাছ সাপোর্ট পায় তাই মাচা ব্যবহার করবেন।সিমেন্টের বস্তার চারিদিক দিয়ে চারটে লাঠি পুঁতে সেগুলোকে উপরে একত্রে কিছু দড়ি দিয়ে বেঁধে দেবেন। যাতে গাছটা আপনার সেই মাচা দিয়ে ভালোভাবে বেয়ে উঠতে পারে। এরপর ওই চারটে লাঠির মধ্যে কিছু সরু কাপড়ের টুকরো লাঠি চারিদিক দিয়ে ঘুরিয়ে ঘুরিয়ে বেঁধে দিতে হবে।

চারা গাছ রোপনের বা বীজ রোপনের মোটামুটি 40 দিনের মধ্যেই কিন্তু গাছে ধীরে ধীরে ফুল আসতে শুরু হয়ে যাবে। সঠিকভাবে সার প্রয়োগ করলে এবং যত্ন নিলে গাছের গ্রোথ বাড়তে থাকবে তাতে কোন সন্দেহ নেই। সবকিছু ঠিকঠাক থাকলে 50 দিনের মধ্যেই কিন্তু আপনার গাছে ফলন আসতে শুরু করবে।

অন্য কোন বড় পরিসর ব্যবহার না করে যে শুধুমাত্র সিমেন্টের বস্তাতেই এত সুন্দর ভাবে শসা গাছ চাষ করা সম্ভব তা হয়তো আপনারা এতক্ষণে বুঝে গিয়েছেন। তাও কোন অসুবিধা থাকলে আমাদের প্রতিবেদনের সঙ্গে থাকা ভিডিওটি দেখে নিতে পারেন।এই ভিডিওটি গত এক বছর আগে ইউটিউবে Krishi Poribar নামের একটি চ্যানেল থেকে আপলোড করা হয়েছে যা এখনো পর্যন্ত বহু মানুষ দেখে নিয়েছেন।

Back to top button