কলকাতার একদম কাছেই দুর্দান্ত লোকেশনে খুব সস্তার রেটে পান এই নতুন দোতলা বাড়ি, না দেখলে আপনার লস

নিজস্ব প্রতিবেদন: একটি নির্দিষ্ট স্থায়ী বাসস্থানের চাহিদা কমবেশি সকলের মধ্যেই রয়েছে। তবে বর্তমানে মূল্য বৃদ্ধির বাজারে ভালো জমি বা ভালো লোকেশন খুঁজে একটা স্বপ্নের বাড়ি বানানো কিন্তু সকলের পক্ষে সম্ভব নয়। এদিকে নিজস্ব একটা আস্তানা না হলেও তো চলবে না! তাই আজকাল বেশিরভাগ মানুষ চেষ্টা করেন রেডিমেড বাড়ি কেনার।

আজকের এই বিশেষ প্রতিবেদনে আমরা তাই আপনাদের জন্য নিয়ে চলে এসেছি দুর্দান্ত লোকেশনের মধ্যে একটি দোতলা রেডিমেড বাড়ি। বাড়িটির বাইরের অংশটি রং করা না থাকলেও ভেতরের দিকে কিন্তু খুব সুন্দরভাবে সাজিয়ে গুছিয়ে রং করা রয়েছে। তাই যিনি বাড়িটি কিনবেন তাকে কিন্তু খুব বেশি অর্থ খরচ করতে হবে না। চলুন এবার লোকেশন সহ অন্যান্য বিস্তারিত তথ্য জেনে নেওয়া যাক।

আজ আমরা যে বাড়িটির কথা বলব সেটির চন্দননগরের সুভাষপল্লী এলাকার বারোয়ারি তলায় অবস্থিত। ১.৫ কাঠা জমির উপরে এই বাড়িটা তৈরি করা হয়েছে। বাড়িটির সামনে একটি চার ফুটের চওড়া রাস্তা রয়েছে। কিছুটা এগিয়ে গেলে আপনারা মূল রাস্তা পেয়ে যাবেন। চার ফুটের রাস্তাতে চারচাকা গাড়ি আসতে না পারলেও মূল রাস্তা থেকে কিন্তু খুব সহজেই গাড়ি চলে আসবে। প্রায় ছয় বছরের পুরনো সম্পত্তি রয়েছে এটা। এই বাড়িটিতে রয়েছে চারটি বেডরুম, দুটি কিচেন,২টি টয়লেট, এবং একটি বিশাল আকৃতির ছাদ।

পূর্বমুখী এই বাড়িটিতে আপনারা খুব সহজেই কিন্তু রোদ পেয়ে যাবেন। অনেক ক্ষেত্রেই বাড়িতে শ্যাডোর এলাকা খুব বেশি থাকে যার জন্য বেশ সমস্যার মুখোমুখি হন বাসিন্দারা। তবে এখানে সেরকম কোন সমস্যা নেই। জল বা ইলেক্ট্রিসিটি সংক্রান্ত সমস্ত সুবিধাও রয়েছে এখানে। বাড়িটিতে আপনারা লোন নিতে পারবেন অর্থাৎ কাগজপত্র সমস্ত কিছুই ঠিকঠাক অবস্থায় রয়েছে। এই বাড়িটি থেকে মাত্র ৩৩ কিলোমিটার এর মধ্যে রয়েছে মূল কলকাতা, এয়ারপোর্ট আপনারা পেয়ে যাবেন ৪২ কিলোমিটার এর মধ্যে।

পাশাপাশি মাত্র ৪০০ মিটারের মধ্যেই পেয়ে যাচ্ছেন স্টেশন, ৫০০ মিটারের মধ্যে হাসপাতাল এবং বাজার। এছাড়াও এখান থেকে মাত্র তিন কিলোমিটার এর মধ্যে আপনারা পেয়ে যাবেন দিল্লি রোড। সমস্ত দিক বিবেচনা করে এই বাড়িটির দাম রাখা হয়েছে 40 লক্ষ টাকা। কোনরকমের ব্রোকারেজ চার্জ রাখা হয়নি। আগ্রহী থাকলে সময় নষ্ট না করে নিচের দেওয়া নম্বরে যোগাযোগ করে ফেলুন।
Contact : 8100094662/8910254563.

Back to top button