ঘরের সুইচবোর্ড ও বাল্বগুলোর তৈলাক্ত চিটচিটে ভাব নিমেষেই হবে দূর, শুধু ট্রাই করুন এই দুর্দান্ত টিপস!

নিজস্ব প্রতিবেদন :- আমাদের বাড়িতে যে সমস্ত সুইচবোর্ডগুলি থাকে সেগুলো কিন্তু প্রায় সময় অতিরিক্ত পরিমাণে ময়লা হয়ে গিয়ে থাকে। বিশেষত রান্নাঘরে যে সমস্ত বোর্ড থাকে সেগুলো কিন্তু তেল মশলার কারণে অতিরিক্ত কালো হয়ে যায়। এগুলি পরিষ্কার নিয়ে কিন্তু কমবেশি সকলেই সমস্যায় ভুগে থাকেন। অন্যান্য অনেক জিনিস ময়লা হয়ে গেলে সেগুলি খুব সহজেই কিন্তু জল দিয়ে বা বিভিন্ন ক্লিনিং আইটেম দিয়ে পরিষ্কার করা যেতে পারে।

তবে যেহেতু এগুলি ইলেকট্রিকের জিনিস তাই জল দিয়ে পরিষ্কার করা কিন্তু কোন মতেই সম্ভব নয়। আমাদের আজকের এই বিশেষ প্রতিবেদনে আমরা তাই আপনাদের সাথে বিভিন্ন সুইচবোর্ড পরিষ্কারের কয়েকটি সহজ ম্যাজিক্যাল টিপস নিয়ে আলোচনা করতে চলেছি। চলুন তাহলে আর দেরি না করে আমাদের আজকের এই বিশেষ প্রতিবেদনটি শুরু করা যাক।

  • সুইচবোর্ড পরিষ্কার করার ম্যাজিক্যাল টিপস:

১) প্রথম পদ্ধতিতে সুইচ বোর্ড পরিষ্কার করার জন্য আপনারা স্যানিটাইজার ব্যবহার করতে পারেন। একটি টিস্যু পেপার বা নরম কোন কাপড়ের মধ্যে হাত পরিষ্কারের স্যানিটাইজার দিয়ে ভালো করে সুইচবোর্ড এর উপর কিছুক্ষণ ঘষতে থাকুন। মোটামুটি মিনিট পাঁচেক সময় এরকম করলেই কিন্তু দেখবেন ধীরে ধীরে সমস্ত বোর্ড পরিস্কার হয়ে গিয়েছে এবং এর মধ্যে থাকা কালচে দাগ দূর হয়ে গিয়েছে।

২) দ্বিতীয় পদ্ধতিতে আপনারা সুইচ বোর্ড পরিষ্কার করার জন্য টুথপেস্ট ব্যবহার করতে পারেন। এর জন্য একটি শুকনো পুরনো টুথব্রাশ নিয়ে তার মধ্যে আপনাদের মোটামুটি পরিমাণ মতন পেস্ট লাগিয়ে নিতে হবে। এই হোয়াইট কোলগেট টুথপেস্ট কিন্তু সুইচবোর্ড পরিষ্কার করার কাছে একেবারে জাদুর মতন সাহায্য করবে। আলতো হাতে বোর্ডের উপর এটা লাগিয়ে নিলেই কিন্তু দেখবেন সমস্ত দাগ দূর হয়ে গিয়েছে।

মাত্র সুইচবোর্ড নয় রান্নাঘরে থাকা বাল্ব থেকে শুরু করে হোল্ডার কমবেশি সবকিছুই কিন্তু দেখবেন তেল মশলা বা ধুলোবালির কারণে সহজেই কালচে হয়ে নোংরা হয়ে যায়। এগুলো যদি সময় মতন আপনারা পরিষ্কার না করেন তাহলে কিন্তু দেখতে খুবই খারাপ লাগবে। বাল্ব বা বাল্বের হোল্ডার ও কিন্তু খুব সহজে আপনারা বাড়িতে পরিষ্কার করে নিতে পারবেন।

এটি পরিষ্কার করার জন্য আপনাদের ঠিক আগের মতোই একটি নরম কাপড় বা টিস্যু পেপার এর মধ্যে কিছুটা স্যানিটাইজার নিয়ে নিতে হবে। তারপর যেরকম ভাবে সুইচবোর্ড ঘষলেন ঠিক তেমনভাবেই বাল্ব বা বাল্বের হোল্ডার ভালো করে পরিষ্কার করে নিলেই কিন্তু দেখবেন এটি সম্পূর্ণরূপে পরিষ্কার হয়ে গিয়েছে। অন্ততপক্ষে মাসে একবার হলেও যদি আপনারা এভাবে বাল্ব এবং বাল্বের হোল্ডার এর পাশাপাশি সুইচবোর্ড পরিষ্কার করে নিতে পারেন তাহলে কিন্তু আর কোনো রকমের চিন্তা থাকবে না।

Back to top button