সমুদ্রের কাছেই দুর্দান্ত লোকেশনে জলের দামে পান জমি, না দেখলে মিস করবেন পরে!

নিজস্ব প্রতিবেদন: বর্তমান সময়ে দাঁড়িয়ে একটি বসবাসযোগ্য স্থান জোগাড় করা মানুষের পক্ষে কিন্তু বেশ কঠিন হয়ে দাঁড়িয়েছে। যেহেতু দেশের বিভিন্ন অংশের জমির দাম বেড়ে গিয়েছে তাই ভালো লোকেশনের মধ্যে বসবাসযোগ্য স্থান অনেক ক্ষেত্রেই আমাদের আর বাজেটের মধ্যে থাকে না। আবার অনেক ক্ষেত্রেই বাজেট যদি সাধ্যের মধ্যে হয়, সেক্ষেত্রে হয়তো আশেপাশের পরিবেশ বিরোধিতা সৃষ্টি করে।

এমতাবস্থায় তাহলে বাড়ি তৈরি করবেন কিভাবে? যারা আমাদের নিয়মিত পাঠক তারা সকলেই জানেন এর আগে আমরা আপনাদের সাথে বেশ কিছু জমি আর বাড়ির বিজ্ঞাপন শেয়ার করে নিয়েছি। ঠিক তেমনই আজকে নিয়ে চলে এসেছি আরও একটি জমির ঠিকানা। আগ্রহী থাকলে অবশ্যই এই জমিটির ক্রেতা হিসেবে আপনারাও এগিয়ে আসতে পারেন। তবে তার আগে চলুন জমিটির সম্পর্কে কিছু বিস্তারিত জেনে নেওয়া যাক।

আজ যে বিজ্ঞাপনটির কথা বলব তা অনুযায়ী রামনগর রেলওয়ে স্টেশন থেকে মাত্র ৪.৫ কিলোমিটার দূরত্বে রয়েছে একটি ১০ শতকের জমি। বিখ্যাত মৎস্যবন্দর শংকরপুরের ৪০ ফুট পিচ রাস্তার পাশে রয়েছে এই জমিটি। যদিও এটা ঠিক বসবাসযোগ্য জমি নয় ‌।

হোটেল বা রেস্টুরেন্ট তৈরি করতে চাইলে অথবা ভবিষ্যৎ ইনভেসমেন্টের জন্য আপনারা এটা কিনতে পারেন। পিচ রাস্তা বরাবর এই জমিটির ফ্রন্ট পেয়ে যাবেন ৮০ ফুট। মাত্র ৭ কিলোমিটার দূরেই আপনারা এখান থেকে পেয়ে যাবেন দীঘা সি বিচ। এই জমির যোগাযোগ ব্যবস্থাও কিন্তু বেশ ভালো। কারণ কমবেশি ১৫ মিনিট দূরত্বের মধ্যেই রয়েছে এখানকার রামনগর রেলওয়ে স্টেশন।

পাশাপাশি হাতের মুঠোয় পেয়ে যাচ্ছেন ব্যাংক, এটিএম, বাজার থেকে শুরু করে সবকিছুই। জমিটির লোকেশন সম্পর্কে শুনে আপনারা নিশ্চয়ই ধারণা করতে পেরেছেন যেখানে হোটেল বা রেস্টুরেন্ট করলে ঠিক কতটা লাভবান হবেন ভবিষ্যতে! সমস্ত দিক বিবেচনা করে প্রতি ডেসিমেল এই জমির দাম রাখা হয়েছে ৬.৫০ লক্ষ্য টাকা। আগ্রহী থাকলে দেরি না করে আজই যোগাযোগ করে নিন নিচের দেওয়া নম্বরে।
Contact : 9073145145

Back to top button