মাত্র ৭৫০ টাকায় পেয়ে যান কাতান বেনারসি! এখান থেকে কিনে শুরু করুন ব্যবসা, লাভ হবে প্রচুর

নিজস্ব প্রতিবেদন: শাড়ির ব্যবসা হল এমন একটি ব্যবসা যার সাহায্যে খুব সহজেই কিন্তু নিজেদের প্রতিষ্ঠিত করা যেতে পারে। কারণ দেশের প্রত্যেকটা বাজারেই এই পণ্যটির চাহিদা রয়েছে ব্যাপক পরিমাণে। কম বয়সী থেকে শুরু করে বেশি বয়সী সকল মহিলারাই কিন্তু শাড়ি পড়তে খুব পছন্দ করে থাকেন। তাই এই পণ্যটি নিয়ে যারা ব্যবসা শুরু করবেন তাদের কিন্তু কোন রকম চিন্তার কারণ নেই।।

আজকের এই বিশেষ প্রতিবেদনে আমরা আপনাদের সাথে এমন একটি ব্যবসার আইডিয়া শেয়ার করে নেব যার সাহায্যে আপনারা খুব সহজেই শাড়ির ব্যবসা কে নিজেদের মতন করে দাঁড় করাতে পারবেন। চলুন তাহলে সময় নষ্ট না করে আজকের এই বিশেষ প্রতিবেদনটা শুরু করা যাক।

শাড়ির ব্যবসা শুরু করতে গেলে যে জিনিসটা আপনাদের সবার প্রথমে মাথায় রাখতে হবে তা হল আপনাকে একটা পাইকারি মার্কেটের ঠিকানা খুঁজে নিতে হবে। কারণ পাইকারি মার্কেট এর ঠিকানা ছাড়া আপনারা কখনোই শাড়ি বিক্রি করে প্রফিট অর্জন করতে পারবেন না। যদি রিটেল দামে আপনারা পণ্য কেনেন সে ক্ষেত্রে কিন্তু অনেকটাই লোকসান হয়ে যাবে।

পশ্চিমবঙ্গের বুকে বিভিন্ন জায়গাতে বহু পাইকারি মার্কেট এর ঠিকানায় আপনারা পেয়ে যাবেন। যেখানে অত্যন্ত কম দামে শাড়ি বিক্রয় করা হয়ে থাকে। এখান থেকে বিভিন্ন পণ্য কিনে নিয়ে এসে আপনারা খুব সহজেই লোকাল মার্কেটে অথবা অনলাইন প্লাটফর্মের সাহায্যে বিক্রি করতে পারেন। তবে অবশ্যই খেয়াল রাখবেন যে ধরনের শাড়ি আপনারা বিক্রি করছেন তার যেন বাজার চাহিদা থাকে।

আজকের এই প্রতিবেদনে আমরা এমন একটি পাইকারি দোকানের কথা শেয়ার করে নেব যেখানে ৩১০ টাকা থেকে বিভিন্ন ডিজাইনার ঢাকাই জামদানি আপনারা পেয়ে যাবেন। মাত্র ৭৫০ টাকায় আপনারা পেয়ে যাবেন দুর্দান্ত কিছু কালেকশন সহকারে কাতান বেনারসি। আপনাদের মধ্যে অনেকেই কিন্তু বিয়ের জন্য একটু কম দামের মধ্যে শাড়ি খোঁজেন। তারা এই ধরনের কালেকশন ট্রাই করে দেখতে পারেন।

যখন দোকান সাজাচ্ছেন চেষ্টা করবেন একটু বেশি সিল্কের শাড়ি রাখার। কারণ সিল্কের শাড়ি হল এমন একটা জিনিস যার উপর প্রায় ৫০ শতাংশের বেশি লাভ করা যায়। সাউথ ইন্ডিয়ান সাউথ থেকে শুরু করে সানা সিল্ক সবকিছুর চাহিদায় কিন্তু রয়েছে বাজারে ব্যাপক পরিমাণে। এই শাড়িগুলো ছাড়াও দোকানের কালেকশনে আপনারা হ্যান্ডলুম, বালুচরী, তসর বা তাত‌ জাতীয় শাড়ি রাখতে পারেন।

বিস্তারিত প্রত্যেকটা শাড়ির রং এবং ভ্যারাইটি দেখতে চাইলে আপনারা প্রতিবেদনের সঙ্গে থাকা ভিডিওটি দেখে নিতে পারেন। একেবারে শেষে আমরা আপনাদের সাথে দোকানে ঠিকানা শেয়ার করে নিচ্ছি। এখানে কিন্তু হোলসেল রেট আর রিটেল রেট দুই দামি জিনিস পেয়ে যাচ্ছেন আপনারা। আগ্রহী থাকলে এবং ব্যবসার কাজ দ্রুত শুরু করতে চাইলে এখানে যোগাযোগ করে নিন।

ADI GOPAL & SON.
(Since 1947)
Contact : 6289008356.

Back to top button