বাজারের থেকে একদম হাফ দামে পেয়ে যান জামদানি! এখান থেকে কিনে নিয়ে শুরু করুন ব্যবসা, লাভ হবে প্রচুর

নিজস্ব প্রতিবেদন: যে কোন মানুষের উন্নতির শিখরে পৌঁছে যাওয়ার জন্য বর্তমানে একটাই রাস্তা রয়েছে তাহলে ব্যবসা। একবার যদি আপনার ব্যবসা দাঁড়িয়ে যায় তাহলে কিন্তু ভুল করেও কোনদিনও চিন্তা করতে হবে না। ব্যবসা অনেক রকমের হয়ে থাকে তবে তার মধ্যে যে ব্যবসাটা সবথেকে বেশি জনপ্রিয় তা হল গার্মেন্টসের ব্যবসা। গার্মেন্টসের ব্যবসা বরাবর থেকেই দু’রকমের হয়ে থাকে তাহলে লেডিস গার্মেন্ট এবং জেন্টস গার্মেন্ট।

লেডিস গার্মেন্ট এর মধ্যে শাড়ির ব্যবসা থেকে সহজেই উপার্জন করা যেতে পারে। কারণ আমাদের দেশে দৈনন্দিন ব্যবহার থেকে শুরু করে যে কোন উৎসবের দিনগুলোতেও কিন্তু সকল বয়সীর মহিলাদের মধ্যে শাড়ির চাহিদা থাকে মারাত্মক রকমের। সুতরাং একবার যদি এই ব্যবসা শুরু করেন তাহলে কিন্তু কখনোই আপনাদের সমস্যার মুখোমুখি করতে হবে না।

এই ব্যবসায় কোনরকম ক্ষতি বা লোকশানের সম্ভাবনা নেই বললেই চলে। আজকের এই বিশেষ প্রতিবেদনে আমরা আপনাদের সাথে শেয়ার করে নিতে চলেছি এই শাড়ির ব্যবসার কিছু ভিন্ন দিক যার সাহায্যে সহজেই ব্যবসা দাঁড় করানো যেতে পারে।

শাড়ির ব্যবসা শুরু করার জন্য প্রথম ধাপে কি করতে হবে?

শাড়ির ব্যবসা শুরু করার জন্য প্রথম ধাপে আপনাদের একটা পাইকারি দোকানের ঠিকানা সংগ্রহ করে নিতে হবে। চাইলে আপনারা সেই দোকান থেকে ফ্রাঞ্চাইজিও নিয়ে নিতে পারেন হোলসেল রেটে মাল সংগ্রহ করার। সে ক্ষেত্রে অনেক কম দামে পণ্যগুলো আপনারা পেয়ে যাবেন ফলস্বরূপ লোকাল মার্কেটে প্রফিট রেখে বিক্রি করতে সমস্যার মুখোমুখি হতে হবে না।। দ্বিতীয় ধাপে আপনাকে পণ্য সিলেকশনের সময় কোয়ালিটির উপরে নজর রাখতে হবে।

যে ধরনের জিনিস আপনারা সিলেক্ট করছেন তার বাজার চাহিদা কেমন বা হাল ফ্যাশনের ক্রেতারা কতটা সেই শাড়িগুলোকে গ্রহণ করবে এটাও কিন্তু ভাবার বিষয়। চেষ্টা করবেন সমস্ত বয়সী মহিলাদের জন্যই একটা পছন্দের কালেকশন রাখার। তৃতীয় ধাপে আপনাকে দোকান অথবা অনলাইন প্লাটফর্মের উপর নজর দিতে হবে। আপনারা চাইলে খোলা মার্কেটের যে কোন জনসমাগম পূর্ণ স্থানেও দোকান করে এই ব্যবসা শুরু করতে পারেন। যদি আপনাদের কাছে দোকান করার মতো পুঁজি না থাকে সেক্ষেত্রে অনলাইন প্লাটফর্ম এর সাহায্য খুব সহজেই নেওয়া যেতে পারে।

ফেসবুক বা instagram এর মতন এপ্লিকেশনগুলোতে আজকাল লাইভ ভিডিও অথবা পোস্টের সাহায্য নিয়ে বহু গৃহবধূ মহিলারাই কিন্তু শাড়ি বিক্রির কাজ করে থাকেন। সুন্দরভাবে প্যাকেজিং করে এই শাড়িগুলোকে যদি আপনারা পছন্দ অনুযায়ী গ্রাহকদের বাড়িতে পার্সেল করে দিতে পারেন সে ক্ষেত্রে বেশ ভালো অংকের অর্থ আপনারা শুধুমাত্র ঘরে বসেই সামান্য কিছু ইন্টারনেট খরচ করে লাভ করবেন।

আজ আমরা আপনাদের সাথে এমন একটি ম্যানুফ্যাকচারিং ইউনিটের ঠিকানা শেয়ার করব যেখানে অসম্ভব সুন্দর জামদানির কালেকশন আপনারা পেয়ে যাবেন। যে কোন অকেশনের জন্যই কিন্তু এই জামদানি একেবারে সেরা কাজের শাড়ি হতে পারে। এছাড়াও রয়েছে মসলিন থেকে শুরু করে তাঁত, প্রিন্ট থেকে শুরু করে সিল্ক সবকিছুর অসাধারণ কালেকশন। আলাদা করে আর প্রত্যেকটা কালেকশনের দাম উল্লেখ করলাম না। যদি ভ্যারাইটিগুলো আপনাদের দেখার থাকে সেক্ষেত্রে প্রতিবেদনের সঙ্গে থাকা ভিডিওটা দেখে নিতে পারেন।

যারা ব্যবসা শুরু করতে আগ্রহী রয়েছেন তারা আর সময় নষ্ট করবেন না। দ্রুত নিচের দেওয়া ঠিকানায় যোগাযোগ করে প্রয়োজনীয় সমস্ত কথা বলে ফেলুন।

Shop Name : Sree guru sharee kuthir
Address : Gobindopur, Santipur,Nadia
Second address : sebok road, opposite Dadabhai hotel, siliguri.
Contact (call/whatsapp): 7001440234/9851313254.

Back to top button