বাড়িতে বেকার বসে না থেকে খুবই অল্প ইনভেস্টে শুরু করুন এই দুর্দান্ত ব্যবসা, লাভ থাকবে সারাবছর

নিজস্ব প্রতিবেদন: জীবিকা নির্বাহের জন্য কম-বেশি সকলেই আজকাল বিভিন্ন ধরনের ব্যবসা শুরু করার কথা চিন্তা-ভাবনা করছেন। লকডাউনের পর থেকেই আমাদের দেশের আর্থিক পরিস্থিতি অনেকটা দুর্বল হয়ে গিয়েছে। তাই সাধারণ মানুষ এখন ব্যবসা শুরু করার দিকেই ঝুঁকে পড়েছেন। কিন্তু যারা নতুন ব্যবসায়ী রয়েছে তাদের মনের স্বাভাবিকভাবেই প্রশ্ন আসছে যে কি ধরনের ব্যবসা শুরু করলে তারা লাভবান হতে পারবেন?

সব ধরনের ব্যবসাতেই কিন্তু যে বিশাল উপার্জন হবে এমনটা নয়। গ্রাম শহর নির্বিশেষে বা বাজার চাহিদার উপর নির্ভর করে এমন অনেক ব্যবসা রয়েছে যা আপনাকে লোকসানের মুখে ফেলতে পারে। সুতরাং একজন ব্যবসায়ী হিসেবে আপনাকে এমন বিজনেস বেছে নিতে হবে যেখানে বিনিয়োগ কম আর উপার্জন অনেকটাই বেশি।

আর সব থেকে যেটা বড় ব্যাপার তাহলে বাজার চাহিদা।সেটির যেন কোন রকমের অভাব না থাকে। আজ আমরা আপনাদের বলবো জুতো তৈরির ব্যবসার কথা। দৈনন্দিন জীবনে এই জুতো অথবা চটির চাহিদা বাচ্চা থেকে বড় সকল মানুষের মধ্যেই রয়েছে। তবে আপনাকে অবশ্যই একটু স্টেপ বাই স্টেপ এই ব্যবসা কিভাবে শুরু করবেন সেপ্রসঙ্গে জেনে নিতে হবে।

জুতোর ব্যাবসা শুরু করার জন্য কি করবেন?

যদি আপনারা জুতোর ব্যবসা শুরু করতে চান সেক্ষেত্রে আপনাদের প্রাথমিকভাবেই কিন্তু মেশিন দিয়ে কাজ করতে হবে। আপনারা যখন হয়তো আগেই ব্যবসার ব্যাপারে শুনেছেন সেক্ষেত্রে দেখবেন কাটিং করা বা ফিনিশিং দেওয়ার জন্য আলাদা আলাদা করে মেশিন ব্যবহার করা হতো। তবে আজকের এই বিশেষ প্রতিবেদনে একই মেশিনের মধ্যে কাটিং থেকে শুরু করে ফিনিশিং আর ফিতে লাগানো সমস্ত কাজ আপনাদের বলবো।

জুতো তৈরির ব্যবসা শুরু করার জন্য যদি আপনারা এই মেশিনটি কিনে থাকেন, তাহলে কিন্তু লিভারের সাহায্যে কাটিং ফিনিশিং আর ফিতে লাগানো আপনারা একসাথেই করতে পারেন। সম্পূর্ণ সেটাপটি তৈরি করতে আপনাদের খরচ হবে প্রায় ১ লক্ষ ২০ হাজার টাকা। এই মেশিনের সাথে বেশ কিছুটা কাঁচামাল আর চাইনিজ ডাইস কিন্তু আপনারা পেয়ে যাবেন।। যে মাপে জুতো কেটে তৈরি করা হবে সাধারণত সেটাকেই ডাইস বলা হয়ে থাকে।

খুব সহজেই আপনারা জুতো তৈরি করার পর সেগুলোকে বাজারজাত করতে পারবেন। এই প্রোডাক্টের কিন্তু মার্কেট চাহিদার অর্থাৎ বাজার চাহিদার কোন রকমের অভাব নেই।যেখনো লোকাল মার্কেটে বা পাইকারি দোকানে আপনারা এগুলো বিক্রি করতে পারবেন। যদি আপনাদের নিজেদের দোকান থাকে সেখান থেকেও কিন্তু আপনারা বিক্রি করার কাজ শুরু করতে পারেন।

কোথা থেকে মেশিন কিনবেন?

জুতো তৈরির ব্যবসা শুরু করার জন্য আপনাদের মোটামুটি সবমিলিয়ে প্রায় ১ লক্ষ ৫০ হাজার টাকার কাছাকাছি খরচ হবে। যদি আপনার এই ব্যবসা শুরু করতে আগ্রহী থাকেন সেক্ষেত্রে আর সময় নষ্ট না করে নিচের দেওয়া নম্বরে যোগাযোগ করে ফেলুন।
Al-rafi engineering works.
Hemayetpur,savar,Dhaka.
Contact – 01798-443769/01620-593577.

Back to top button