টবে থাকা গাছে রোজ ইনো দিলে কি হয় জানেন? জানলে দেওয়া শুরু করবেন আপনিও!

নিজস্ব প্রতিবেদন: আমাদের প্রত্যেকের বাড়িতেই কিন্তু কমবেশি এমন একজন মানুষ রয়েছেন যিনি বাগান করতে অত্যন্ত পছন্দ করে থাকেন। ঘনবসতীর এই যুগে যদিও বাগান করার খুব একটা খোলামেলা পরিবেশ পাওয়া যায় না। তবে বাড়ির ছোট্ট উঠোনে বা ছাদেই কিন্তু বিভিন্ন ফুল ফল আর সবজির চাষ করা যেতে পারে যদি একটু চেষ্টা করা যায়। কিন্তু এই গাছগুলোর ব্যাপকভাবে যত্ন নেওয়া প্রয়োজন। শুধুমাত্র বিভিন্ন দামি জিনিস ব্যবহার করলেই যে গাছের যত্ন হবে এমনটা কিন্তু নয়। আজকের এই প্রতিবেদনে আমরা আপনাদের সাথে শেয়ার করে নেব গাছে ইনোর প্রয়োগের কথা। এটি প্রয়োগ করলে গাছের কি কি সুবিধা হতে পারে চলুন জেনে নেওয়া যাক।

প্রথমেই এক প্যাকেট ইনো এবং দুটি চা পাতা সংগ্রহ করে নিন। এরপর একটা পাত্রের মধ্যে বা গ্লাসের মধ্যে ২০০ মিলি পরিমান জল নিয়ে নেবেন। দুটি টি ব্যাগ থেকে চা পাতাগুলোকে কেটে বের করে পাত্রের জলে দিয়ে দিন। একটা চামচ দিয়ে খুব ভালোভাবে আপনাদের চা পাতার সাথে জল মিশিয়ে নিতে হবে। এবার এই পাত্রের মধ্যে হাফ চামচের একটু বেশি ইনো যোগ করে দেবেন। ভালোভাবে মিশিয়ে ফেনা তৈরি হয়ে গেলে দুই থেকে তিন ঘন্টা এটাকে কোন একটা ঠান্ডা জায়গায় রেখে দেবেন।

নির্ধারিত সময় পরে ফেনা চলে গেলে এটাকে একটা অন্য পাত্রের মধ্যে ছেঁকে নেবেন। এবার এই দ্রবণের মধ্যে আরও হাফ লিটার পরিমাণ জল যোগ করুন। ভালোভাবে মিশিয়ে এই দ্রবণ টাকে একটা কোন স্প্রে বোতলে ভরে ফেলুন। বিকেলের দিকে এটি গাছের স্প্রে করতে পারেন আবার গাছের গোড়াতেও কিন্তু সরাসরি দিতে পারেন। ছোট কাছেই কিন্তু এই দ্রবণের প্রয়োগে প্রচুর লাউ ধরবে,যে সমস্ত গাছের বৃদ্ধি আটকে গেছে সেগুলোও কিন্তু ঠিক হয়ে যাবে ‌।

ভিডিওটি দেখতে এই লিঙ্কে ক্লিক করুন – https://youtu.be/nZf66JhvcdQ

দ্বিতীয় পদ্ধতিতে আপনাদের আবারও একটা পাত্রের মধ্যে ২০০ মিলি জল নিয়ে নিতে হবে। এবার দুইটি রসুন নিয়ে ভালো করে ব্লেন্ডারে ব্লেন্ড করে নেবেন। এবার এই রসুন বাটা পাত্রের জলে যোগ করুন। এক ঘন্টা এই দ্রবনটা রেখে দেওয়ার পর ভালোভাবে ছেঁকে নিন। তারপর এই মিশ্রণের মধ্যে সামান্য পরিমাণে ইনো, এক চা চামচের একটু কম ভীম লিকুইড ভালোভাবে যোগ করে একটা স্প্রে বোতলে ভরে নিন। যে সমস্ত গাছের পাতা হলুদ হয়ে গেছে অথবা পাতা কুঁকড়ে গেছে, সেই সমস্ত গাছে খুব সহজেই এগুলো বিকেলের দিকে স্প্রে করে দিন।কয়েকদিনের মধ্যেই আপনারা পরিবর্তন লক্ষ্য করবেন।

Back to top button