“এটা আমি কি দেখলাম! দেবীর পরনে স্পোর্টস ব্রা!”, জি বাংলায় শিশু ভোলানাথ সিরিয়াল দেখে চটলো নেটনাগরিকরা

নিজস্ব প্রতিবেদন: বাংলা ধারাবাহিকগুলি দর্শকদের মধ্যে বেশ জনপ্রিয় হলেও এই ধারাবাহিক গুলি নিয়ে কিন্তু প্রায় সময় নানান ধরনের অভিযোগ দেখা যায়। প্রথমত ধারাবাহিকের গল্প প্রথমদিকে একটা প্লট নিয়ে শুরু হলেও পরবর্তীতে তা অন্য ধারা গ্রহণ করে নেওয়াতে কিন্তু অনেকটাই বিরক্ত হয়ে পড়েন মানুষ। আবার কিছু ধারাবাহিকে তো সম্পূর্ণ একঘেয়ে গল্প যেমন একটা নায়কের চারটে নায়িকা বা পাঁচবার বিয়ে দেখানো হয়। তবে সব থেকে যে ব্যাপারটি ধারাবাহিকের সম্প্রচারের ক্ষেত্রে খারাপ সেটা হল বিভিন্ন ঘটনার অতিরঞ্জন।

পুরান কেন্দ্রিক ধারাবাহিক গুলিকে অত্যন্ত অতিরঞ্জিত করে পর্দায় সম্প্রচার করা হয়ে থাকে। প্রধানত টিআরপি বাড়ানোর জন্যই এই কাজ করে থাকেন নির্মাতারা।এই নিয়ে নানান রকম সমালোচনা , ট্রোলিং হয় এবং নানান রকম মিম তৈরি হয়। বিষয়টা এতটাই জলভাত হয়ে গেছে যে কোন ধারাবাহিকে কোন অবাস্তব কোন কিছু দেখলে বা একেবারেই অকল্পনীয় কোন কিছু দেখলে মানুষ সেটাকে স্বাভাবিক বলে ধরে নিয়েছে। সবথেকে মজার ব্যাপার যারা ধারাবাহিক দেখেন না, তারাও কিন্তু এই সমস্ত ট্রলিং বা মিমে অংশগ্রহণ করে থাকেন।।

সম্প্রতি দুর্গাপুজোর প্রাক্কালে বিভিন্ন চ্যানেলের মহালয়া নিয়েও কিন্তু ব্যাপকভাবে ট্রোল হতে দেখা গিয়েছিল। কোন চ্যানেলের দেবী দুর্গার রূপ আবার কোন চ্যানেলের মহিষাসুরের রূপ নিয়ে শুরু হয়েছিল ব্যাপক সমালোচনা। আবার কিছু কিছু ক্ষেত্রে মহালয়ার গল্প নিয়েও নানান ধরনের বিতর্ক তৈরি হয় ‌। মানুষের মনে যেহেতু দেব-দেবী আর ধর্ম নিয়ে একটা আলাদা জায়গা রয়েছে তাই তাদের জামা কাপড় থেকে শুরু করে মেকআপ সবকিছুই কিন্তু বিশেষ ভাবে হওয়া দরকার।

নয়তো স্বাভাবিকভাবেই কিন্তু মানুষের মনে নানান ধরনের ক্ষোভ চলে আসতে পারে।এর অন্যটা হলে মানুষ সেই ধারাবাহিকটিকে আর আধ্যাত্মিক পর্যায়ে ফেলেন না। সেই ধারাবাহিক নিয়ে ট্রোলিং করতে শুরু করেন। সম্প্রতি আবারো এই ঘটনা ঘটেছে একটি পুরান সম্পর্কিত ধারাবাহিককে কেন্দ্র করে।

জি বাংলার একটি জনপ্রিয় ধারাবাহিক হলো গৌরী এলো। ধারাবাহিকটি প্রথমদিকে অন্যভাবে শুরু হলেও বর্তমানে এই ধারাবাহিকে গৌরীকে দেবী কালীর অংশ হিসেবে দেখানো হচ্ছে এবং নানান ধরনের অবাস্তব ঘটনা দেখানো হচ্ছে। এই ব্যাপারটা কিন্তু একেবারেই মেনে নিতে পারছেন না ভক্তরা। এরই মাঝে শিশু ভোলানাথ ধারাবাহিক নিয়েও প্রশ্ন উঠতে শুরু করল।

এমনিতেই গৌরী এলো ধারাবাহিকের গল্পকে কেন্দ্র করে একেবারে বাক্রুদ্ধ হয়ে রয়েছেন দর্শকেরা। তারই মাঝে দিন কয়েক আগে শিশু ভোলানাথ ধারাবাহীকে একটি দৃশ্য দেখানো হয়। সেই দৃশ্যে দেখা গিয়েছে যে, যোগিনীকে একটি স্পোর্টস ব্রা পরানো হয়েছে যা দেখে নেটিজেনেরা বলছেন এটি হিন্দু ধর্মের অবমাননা।

একজন নেটিজেন সোশ্যাল মিডিয়ার সরাসরি সেই দৃশ্যের স্ক্রিনশট দিয়ে ক্যাপশনে লিখেছেন যে,“এটা আমি কি দেখলাম! স্পোর্টস ব্রা! একজন যোগীনির সাজসজ্জা এটা? জী বাংলা হিন্দু ধর্ম কে আর কত অপমান করবে? “গৌরি এলো” তে তো প্রায়ই করছে, “শিশু ভোলানাথ” এ আরও বেশি করছে! একজন যোগীনির এক্সপ্রেসন, পোশাক -আশাক এরকম?দেখে তো শ্রদ্ধার বদলে হাসি পায়!
ধিক্কার Zee Bangla!”

সোশ্যাল মিডিয়ায় যখন একটি ঘটনা ঘটতে শুরু করে তখন সব মানুষই কিন্তু সেটাতে অংশগ্রহণ করে থাকেন ‌। এই ক্ষেত্রেও তার ব্যাতিক্রম ঘটেনি। ওই নেটিজেন এই পোস্টটি করার পরে তা ঝড়ের গতিতে রীতিমতন ছড়িয়ে পড়েছে নেট মাধ্যমে। অনেকেই কিন্তু ওনার বক্তব্যকে সমর্থন জানিয়ে নিজেদের মতামত প্রকাশ করেছেন এবং ধারাবাহিকটি বয়কটের দাবি জানিয়েছেন।

এই প্রসঙ্গে আপনাদের কি মতামত তা আমাদের সঙ্গে কমেন্ট বক্সে শেয়ার করে নিতে পারেন। বিনোদন জগৎ সম্পর্কিত সমস্ত ধরনের তাজা আপডেট পেতে চাইলে আমাদের অন্যান্য প্রতিবেদন গুলির উপর নজর রাখতে থাকুন।

Back to top button