“আমার সাথে রাত কাটাতে চায় বাবা!”, মহেশ ভাটের অশ্লীল ইঙ্গিত দেওয়া নিয়ে এবার প্রকাশ্যে বিস্ফোরক মেয়ে পূজা ভাট

নিজস্ব প্রতিবেদন: বলিউড ইন্ডাস্ট্রি মানেই কিন্তু রঙিন জগতের পেছনে লুকিয়ে থাকা একটা সাদা কালো দুনিয়া। এই ইন্ডাস্ট্রিতে কত রহস্য আর কত গল্প যে লুকিয়ে রয়েছে তা হয়তো আমাদের সকলেরই অজানা। আসলে ইন্ডাস্ট্রির বাইরে এই খবর খুব একটা কিন্তু জনসাধারণের সামনে আসে না। আগেকার দিনে ম্যাগাজিন বা সংবাদপত্রের টুকটাক খবর বেরোলেও এখন সেই জায়গা দখল করে নিয়েছে সোশ্যাল মিডিয়া।

লক্ষ্য করে দেখবেন এই নেট মাধ্যমের সাহায্যেই আমাদের সামনে তারকাদের নিয়ে এমন বহু তথ্য উঠে আসে যা হয়তো আমাদেরকে অবাক করে রেখে দেয়। আজকের এই বিশেষ প্রতিবেদনে আমরা আলোচনা করব বলিউডের সবথেকে বিতর্কিত পরিচালক মহেশ ভাটকে নিয়ে। দীর্ঘ সময়ের কেরিয়ারে বহু সুপারহিট চলচ্চিত্র নিয়ে কাজ করলেও তার ব্যক্তিগত জীবনে ছড়িয়ে রয়েছে একের পর এক জমকালো বিতর্ক। সম্প্রতি আবারো এক অভিনেত্রী মহেশ ভাটকে নিয়ে একটি চাঞ্চল্যকর তথ্য সামনে এনেছেন।

একটা সময় শোনা গিয়েছিল নিজের মেয়ে পূজা ভাটকে বিয়ে করতে চেয়েছিলেন মহেশ ভাট। কি শুনে অবাক হচ্ছেন? শুধুমাত্র বিয়ে নয় একটা ম্যাগাজিনের শ্যুটে পূজা ভাটকে কোলে বসিয়ে রীতিমতন ঠোঁটে চুমু খেয়েছিলেন মহেশ ভাট।তার বড়ো কন্যা পূজা ভাটের সাথে একসাথে অনেক সিনেমায় কাজ করেছেন তিনি। তাদের সম্পর্ক অনেকটাই ঘনিষ্ঠ ছিল। একটা সাক্ষাৎকারে এই কথা স্বীকার করে নিয়েছিলেন মহেশ ভাট। তিনি জানিয়েছিলেন, “পূজা যদি আমার মেয়ে না হতো তাহলে ওকে বিয়ে করতে কোনো সমস্যা ছিল না”।

সম্প্রতি আবারও প্রায় একই ধরনের একটি চাঞ্চল্যকর তথ্য সামনে নিয়ে এসেছেন পাকিস্তানের অভিনেত্রী মীরা। শুরুতেই জানিয়ে রাখি অভিনেত্রী মীরা বেশ কয়েকটি বলিউড ছবিতে কাজ করেছেন। মহেশ ভাট মীরাকে নিজের মেয়ে বলেই উল্লেখ করতেন। কিন্তু মীরা জানান, রাতের বেলায় মহেশ ভাট নাকি তাকে অনেক উল্টোপাল্টা কথা বলতেন এবং তার সঙ্গে রাত কাটানোর প্রস্তাব দিতেন।মীরার মতে কোন বাবা তার মেয়ের সাথে এরকমভাবে কথা বলেন? এই কারণেই অভিনেত্রী নাকি বলিউড ইন্ডাস্ট্রি ছেড়ে চলে গিয়েছিলেন এবং আর এখানে কাজ করতে পারেননি।।মহেশ ভাটের জীবনে কিন্তু এই ধরনের বিতর্ক নতুন নয়।

মহেশ ভাটের প্রথম স্ত্রীর নাম ছিল কিরণ। তিনি ছিলেন তার স্কুল জীবনের বন্ধু।কিরণ আর মহেশের দুই সন্তান মেয়ে পূজা ভাট এবং ছেলে রাহুল ভাট। কিন্তু কিরণের সঙ্গে মহেশের বিবাহিত জীবন সুখের ছিল না বলেই বলিউডে গুঞ্জন।সে সময় বলিউডের সুপার হিট নায়িকা পারভিন ববির সঙ্গে সম্পর্কে জড়িয়ে পড়েন মহেশ ভাট। পারভিন ববি পরে মানসিকভাবে অসুস্থও হয়ে পড়েছিলেন। এরপর তাদের মধ্যে সম্পর্ক সম্পূর্ণরূপে নষ্ট হয়ে যায়। এই সময় মহেশ ভাট প্রেমে পড়েন তৎকালীন এক নায়িকা সোনি রাজদানের।

সেই সোনি রাজদানের মেয়েই বর্তমান সময়ের সুপারহিট নায়িকা আলিয়া ভাট।গত বছর ৭০ বছর বয়সী মহেশের সঙ্গে ২৬ বছর বয়সী অভিনেত্রী রিয়া চক্রবর্তীর সম্পর্ক নিয়ে প্রচুর সমালোচনা হয়। অভিনেত্রী রিয়া দুজনের একটা অন্তরঙ্গ ছবি শেয়ার করে ক্যাপশনে লিখেছিলেন, ‘শুভ জন্মদিন আমার বুড়ো, মহেশ স্যার।

তুমি ভালোবেসে আমাকে জড়িয়ে ধরেছো, তুমি আমার চিরকালের মতো গুটিয়ে রাখা ডানা খুলে দিয়েছো, আমাকে উড়তে শিখিয়েছো। আর কোনো শব্দ আসছে না, তোমাকে ভালোবাসি।’রিয়া চক্রবর্তী তাকে নিজের শিক্ষক বা মেন্টরের মতন জানালেও বিতর্ক বন্ধ হয়নি। বরং রিয়ার প্রেমিক তথা জনপ্রিয় অভিনেতা সুশান্ত সিং রাজপুত এর মৃত্যুতে এই বিতর্ক আরো কয়েকগুণ বেশি বেড়ে ওঠে।

Back to top button