বাড়িতে টবেই মাটি ছাড়া খুব সহজ এই ঘরোয়া উপায়ে করুন ধনেপাতার চাষ, ফলনও হবে দুর্দান্ত!

strong>নিজস্ব প্রতিবেদন: বাড়িতে একটি ছোট্ট বাগান করার শখ কিন্তু মানুষের বহু দিনের। কিন্তু অনেক ক্ষেত্রেই কি হয় যদি বাড়ির সামনে বড় উঠুন বা বাগান না থাকে সেক্ষেত্রে এই শখ পূরণ হয়ে ওঠে না। তবে আজকাল অনেক আধুনিক প্রযুক্তির সাহায্যে কিন্তু ছাদ বাগানে গাছপালা লাগানো থেকে শুরু করে শাকসবজি চাষবাস সবকিছুই শুরু করেছে সাধারণ মানুষ। সময়ের পরিবর্তনের সাথে সাথেই ক্রমাগত সাধারণ কৃষি ক্ষেত্রেও অনেক বড় বড় নতুন প্রযুক্তি আসছে।

আজকে আমরা এই বিশেষ প্রতিবেদনে আলোচনা করতে চলেছি কিভাবে মাটি ছাড়াই সারা বছর টবে ধনেপাতা চাষ করা যেতে পারে! ধনেপাতা এমন একটি সবজি যা অত্যন্ত সহজেই রান্নার স্বাদ পরিবর্তন করে দেয়। গরমকাল হোক বা শীতকাল সবসময়ই কিন্তু এই সবজির চাহিদা অত্যন্ত বেশি। মাটি ছাড়া বাড়িতে ধনেপাতা চাষ করার কিন্তু বিশেষ কিছু পদ্ধতি রয়েছে। তার মধ্যে অত্যন্ত বেশি রকমের উল্লেখযোগ্য হাইড্রোপোনিক পদ্ধতি।

মাটি ছাড়াই ধনেপাতা চাষ করার পদ্ধতি:

১) ধনেপাতা চাষ করার জন্য কিন্তু আপনাদের মাটি ব্যবহার করতে হবে এরকম কোন মানে নেই। আজকের এই বিশেষ প্রতিবেদনে আমরা আপনাদের দেখাবো মাটি ছাড়া কিভাবে ধনেপাতা সহজেই চাষ করতে পারেন। এর জন্য আপনাদের প্রথমেই একটা বড় বালতি নিয়ে নিতে হবে এবং তার মধ্যে নিতে হবে কিছুটা পরিমাণ জল।

এরপর সেই বালতির মধ্যে আপনাদের একটি ছিদ্রযুক্ত পাত্র অথবা ঝুড়ি বসিয়ে দিতে হবে। এবার আপনাদের নিয়ে নিতে হবে পর্যাপ্ত পরিমাণে কোকোপিট। এই কোকোপিট কিন্তু আপনারা বাড়িতেও খুব সহজে তৈরি করে নিতে পারেন আবার বাজার থেকেও কিনে নিয়ে আসতে পারেন।

২) বালতিতে এমন ভাবে জল রাখবেন যাতে গাছের শিকড় গুলি এর মধ্যে মোটামুটি কিছুটা হলেও যেতে পারে। এবার কোকোপিট দিয়ে ধনেপাতার বীজগুলিকে আপনাদের এখানে রোপন করে দিতে হবে।। অবশ্যই বীজ কিন্তু আপনারা বেশ কিছুক্ষণ সময় ভিজিয়ে রাখার চেষ্টা করবেন যাতে এর জার্মিনেশন অনেকটাই বেড়ে যায়।

বীজ ছড়িয়ে দেওয়ার পরে তার উপর দিয়ে আপনাদের কিছুটা পরিমাণ কোকোপিট ছড়িয়ে দিতে হবে,ঠিক যেমনভাবে বীজ লাগানোর পরে মাটি ছড়িয়ে দেওয়া হয়। বীজ ছড়িয়ে দেওয়ার মোটামুটি পাঁচ থেকে সাত দিনের মধ্যেই কিন্তু দেখবেন ধীরে ধীরে গাছের চারা বেরিয়ে গিয়েছে।

৩) প্রসঙ্গত যখন ধীরে ধীরে গাছের চারা বেরোতে শুরু করবে তখন কিন্তু আপনাদেরকে সানলাইটের পরিমাণ অনেকটাই বাড়িয়ে দিতে হবে। আর অবশ্যই এই সময় গাছের পরিচর্যা আর পরিমাণ মতন জল দিতে ভুলবেন না।

৪) ধনেপাতা গাছে কিন্তু সাধারণত পোকামাকড়ের উপদ্রব দেখা যায় না। তবুও গাছের সুরক্ষা বাড়ানোর জন্য আপনারা মাঝেসাজে নিম তেল স্প্রে করতে পারেন এবং এর বৃদ্ধির জন্য খোল পচা তথা তরল জৈব সার ব্যবহার করতে পারেন।। এটি একটি খুবই কার্যকরী উপাদান। এছাড়াও গাছের জন্য সার তৈরিতে আপনারা রান্না ঘরে ব্যবহৃত বিভিন্ন সবজি দিয়ে একটি জৈব সার তৈরি করে নিতে পারেন।

যেহেতু ধনেপাতা খাওয়ার কাজে ব্যবহার করবেন আপনারা তাই অবশ্যই এর মধ্যে কোন রকমের রাসায়নিক উপাদান বা কীটনাশক কিন্তু দেবেন না। গাছপালা সংক্রান্ত অন্যান্য বিভিন্ন তথ্য জানতে হলে আপনারা আমাদের অন্যান্য প্রতিবেদন গুলির উপর নজর রাখতে থাকুন।

Leave a Comment