দর্শকদের জন্য দুঃসংবাদ! এবার বন্ধ হওয়ার পথে কি সুদীপার ‘রান্নাঘর’? জল্পনা তুঙ্গে

নিজস্ব প্রতিবেদন: বর্তমান সময়ে দাঁড়িয়ে জি বাংলার অন্যতম জনপ্রিয় নন ফিকশন শো হল সুদীপা চ্যাটার্জি পরিচালিত ‘রান্নাঘর’। সম্প্রতি কিছু সময় আগেই এই অনুষ্ঠানটি নিজের ৫০০০ পর্ব পূর্ণ করেছে। অতএব আপনারা বুঝতেই পারছেন দর্শকদের মধ্যে এই অনুষ্ঠানটির জনপ্রিয়তা কতখানি ছিল বা রয়েছে! এখনো পর্যন্ত টেলিভিশন ইন্ডাস্ট্রির ইতিহাসে কোন নন ফিকশন শো এতদিন পর্যন্ত কিন্তু চলেনি।

নিঃসন্দেহে সুদীপা চ্যাটার্জির ভালো সঞ্চালনা এবং টিমের অন্যান্য সদস্যদের অক্লান্ত পরিশ্রমের কারণেই এটা সম্ভব হয়ে উঠেছে। একজন সঞ্চালিকা হিসেবে এই অনুষ্ঠানকে বরাবর থেকেই দর্শকদের মনের কাছে নিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করেছেন সুদীপা। তবে বিগত বেশ কিছু সময় ধরেই বিভিন্ন বিতর্কের কারণে সুদীপা চ্যাটার্জির জনপ্রিয়তায় খামতি লক্ষ্য করা গিয়েছে। পান থেকে চুন খসলেই এখন তাকে আক্রমণ শুরু করে দিয়েছেন নেটিজেনরা।

কিছু সময় আগেই সোনার গয়না নিয়ে অহংকার করায় বিতর্কে জড়ান সুদীপা। তারপর গত আগস্ট মাসে আবারো আচমকাই ডেলিভারি বয়দের কেন্দ্র করে একটি খারাপ মন্তব্য করে বসে ছিলেন সঞ্চালিকা সুদীপা চ্যাটার্জী। সব মিলিয়ে বিতর্ক ছড়িয়ে পড়েছে তার জীবনে। আসলে একজন জনপ্রিয় ব্যক্তিত্ব তথা রান্নাঘরের মতন অনুষ্ঠানের সঞ্চালিকা সোশ্যাল মিডিয়ায় এরকম বেপরোয়া ভক্ত রাখবেন তাও আবার মানুষের পেশাকে কেন্দ্র করে এটা যেন কেউ ভাবতেই পারছেন না! যদিও নিজের আত্মপক্ষ সমর্থন করে সোশ্যাল মিডিয়ার পোস্ট করা ছাড়াও বেশ কিছু কথা বলেছিলেন সুদীপা। কিন্তু সাধারন মানুষের মনে তাতে খুব একটা কাজ হয়নি।

সুদীপার এই বিতর্কের প্রভাব পড়েছে রান্নাঘরের শোতে। বিগত বেশ কিছু সময় ধরেই ক্রমশ এই শো নিজের টিআরপি হারিয়ে ফেলছে।স্লটলিড করা তো দূরের কথা নিজের টিআরপি ধরে রাখতেই সক্ষম হচ্ছে না এই শো। এমতাবস্থায় এই নন ফিকশন শোটিকে ঘিরে কিছু নতুন তথ্য সামনে এসেছে। জানা যাচ্ছে, টিআরপি পতনের কারণে শেষ পর্যন্ত এই শো এর স্লট আবারো বদল করা হয়েছে। প্রসঙ্গত উল্লেখ্য,এই শো যখন শুরু হয় তখন এই শো জি বাংলার পর্দায় সম্প্রচারিত হতো বিকেল ৫টায়। জি বাংলার একটি জনপ্রিয় ধারাবাহিক ‘বধূবরণ’ শুরু হলে,আরও একটি শো “দিদি নাম্বার ওয়ান” সন্ধ্যে ৬টার স্লট হারিয়ে ফেলে।তখন “রান্নাঘর”কে দিয়ে দেওয়া হয় বিকেল ৪:৩০ তে।

এরপরে আবার “দিদি নাম্বার ওয়ান” আরো একটি ধারাবাহিক “ইচ্ছে নদী”র কাছে বিকেল ৫:৩০টার স্লট হারায়। তখন আবার “রান্নাঘর” ৪:৩০ এর বদলে বিকেল ৪ টের সময় সম্প্রচারিত হয়। এরপর চ্যানেলে আরো অনেক নতুন ধারাবাহিক আসলেও রান্নাঘরের স্লট কিন্তু পরিবর্তন করা হয়নি। কিন্তু এবারে টিআরপি পতনের কারণে সম্ভবত এটাকে দুপুরের বা বিকেল চারটের আগের স্লটে পাঠিয়ে দেওয়া হতে পারে বলেই মনে করা হচ্ছে। সূত্রের খবর দুপুর ১২ টা, দুপুর ২টো কিংবা বিকেল ৪টের স্লটে সম্প্রচারিত হবে সুদীপা চ্যাটার্জি সঞ্চালিত এই জনপ্রিয় নন ফিকশন শো ‘রান্নাঘর’।

Back to top button