মায়ের সামনেই ছোট্ট বাছুরের গলায় ফাঁস দিয়ে মারার চেষ্টা বিষধর কোবরার, দৌড়ে এসে যেভাবে বাঁচালো মা গরু, ভাইরাল ভিডিও

নিজস্ব প্রতিবেদন: আমাদের পৃথিবীতে যে সমস্ত ভয়ংকর প্রজাতি রয়েছে তার মধ্যে সবার প্রথমেই সাপের কথা উল্লেখ করা যেতে পারে। ভারত থেকে শুরু করে বিশ্বের প্রতিটি কোণাতেই কিন্তু বহু সাপের প্রজাতি লক্ষ্য করা যায়। এর মধ্যে অনেক সাপের বিষ রয়েছে আবার অনেকের হয়তো নেই। সমস্ত সাপের মধ্যে বিষধর হিসেবে আমরা সবার প্রথমেই যার নাম উল্লেখ করতে পারি সেটি হল কিং কোবরা সাপ। সাধারণত ভারত এবং বাংলাদেশে একে শঙ্খচুর বা সাপেদের রাজা নামে অভিহিত করা হয়ে থাকে।

অনেকেই আবার একে পদ্ম গোখরাও কিন্তু বলে থাকেন। সাধারণত গ্রামাঞ্চলের ক্ষেত্রে এই সমস্ত বিষধর সাপের আনাগোনা অনেকটাই বেশি হয়। আপনারা হয়তো অনেকেই জানেন না সব মিলিয়ে এই পৃথিবীতে ২৯০০ প্রজাতির সাপ দেখতে পাওয়া যায়। সবচেয়ে ছোট সাপের আকার ১০ সে.মি.। অন্যদিকে পৃথিবীর মধ্যে আকারে সব থেকে বড় সাপ হলো anaconda। এনাকোন্ডা সাপের দৈর্ঘ্য প্রায় ৭.৬ মিটার পর্যন্ত হয়ে থাকে। আফ্রিকার বিভিন্ন জঙ্গলাকীর্ণ জায়গায় এই অ্যানাকন্ডা সাপ প্রত্যক্ষ করা যায়। এই সাপ এতটাই ভয়াবহ যে একটি পূর্ণবয়স্ক মানুষকেও কিন্তু খুব সহজেই খেয়ে ফেলতে পারে। হয়তো এনাকোন্ডা সাপের উপর বিভিন্ন ভিডিও আর সিনেমা আপনারা দেখেছেন।

জানিয়ে রাখি সাপকে নিরীহ প্রাণী বলে উল্লেখ করা হলেও এই প্রজাতি কিন্তু কোন প্রাণীকে আক্রমণ করার সুযোগ ছাড়েনা। আসলে বাস্তুতন্ত্রের নিয়ম অনুযায়ী প্রত্যেক প্রাণীকেই নিজেদের খাবারের সংস্থান করতে হয়।। এই সরীসৃপ প্রজাতিটিও কিন্তু বাস্তুতন্ত্রের বাইরে নয়। সাপেরা প্রধানত বিভিন্ন ছোট পোকামাকড় ব্যাঙ অথবা ইঁদুরকে খাবার হিসেবে গ্রহণ করে থাকে।

আবার এমন কিছু বড় সাপ রয়েছে যেমন অজগর এবং অ্যানাকন্ডা তারা কিন্তু অনেক বড় বড় প্রাণী যেমন গরু-ছাগল প্রভৃতিকে ও খাওয়ার হিসেবে গ্রহণ করে। তবে খাবারের প্রয়োজনীয়তা ছাড়াও অনেক সময় কিন্তু রেগে গেলে বা বিপদ অনুভব করলেও সাপ অন্যান্য প্রাণীকে আক্রমণ করে থাকে যেমন মানুষ। এই কারণে আপনারা হয়তো আমাদের আশেপাশে প্রায় সময় সাপের দংশনে মানুষের মৃত্যুর খবর পেয়ে থাকবেন।

যেমন সম্প্রতি একটি দৃশ্য উঠে এসেছে সোশ্যাল মিডিয়ায়। ইন্টারনেট জগতে প্রায় সময় এই ধরনের নানান ভিডিও ভাইরাল হয়ে ওঠে। তবে এখানে কোন মানুষ নয় আক্রান্ত হয়েছে একটি বাছুর। সম্প্রতি ভাইরাল হওয়া ভিডিওটিতে দেখা যাচ্ছে, একটি গাভীর ছানাকে শিকার করতে উপস্থিত হয়েছে ভয়াবহ কিং কোবরা।ভয়াবহ বিষধর এই শঙ্খচূড় অন্য গোখরার তুলনায় আকৃতিতে বেশ লম্বা।

এই সাপের বিষ মূলত নিউরো টক্সিক হয়ে থাকে। গাভীর ছানাকে যখন কিং কোবরা সাপটি আক্রমণ করে ঠিক তখনই ভিডিওর পরবর্তী দৃশ্যে দেখা যায় গাভিটির মা অর্থাৎ গরুটি চলে আসে সাপের হাত থেকে নিজের সন্তানকে রক্ষা করার জন্য। এরপর বেশ কিছুক্ষণ সময় ধরে সাপের সঙ্গে এই গরুটি লড়াই চলতে থাকে। মানুষ হোক বা জীবজন্তু সকলের মধ্যেই মায়ের ভালোবাসা বর্তমান। এই গরুটির ক্ষেত্রেও কিন্তু তার ব্যতিক্রম হয়নি।

নিজের সন্তানকে বাঁচানোর জন্য প্রাণপণ চেষ্টা চালিয়ে গিয়েছে গরুটি। শেষের দিকে দেখা যায় সাপটি কিন্তু তাকে অনেকটাই কাবু করে নিয়েছিল। ভয়াবহ এই দৃশ্যটি নেট মাধ্যমে ঝড়ের গতিতে ভাইরাল হয়েছে। অনেকেই ওই বাছুর টির জন্য দুঃখ প্রকাশ করেছেন। তবে বাস্তুতন্ত্রের নিয়ম পরিবর্তন করা যাবে এরকম সাধ্য কারুর মধ্যেই নেই। তাই প্রকৃতির নিয়মকে মেনে নিয়েই এগিয়ে চলতে হবে এটাই স্বাভাবিক। প্রতিবেদনটি পড়ার পর ভালো লাগলে ভিডিওটি দেখে নিজেদের মতামত আমাদের সঙ্গে কমেন্টে ভাগ করে নিতে পারেন।

Back to top button