ফুটন্ত দুধ উপচে পড়া ঠেকাতে ৮টি সহজ ও নির্ভরযোগ্য টিপস

নিজস্ব প্রতিবেদন :আপনি কি প্রায়ই দুধ গরম করতে গিয়ে তা উপচে পড়ার সমস্যার সম্মুখীন হন? তাহলে আজকের এই টিপসের সাহায্যে, আপনি সহজেই স্পিলওভারের জগাখিচুড়ি থেকে সময় বাঁচাতে পারেন। দুধ ফোটানোর সময় উপচে পড়লে ওভেনসহ কিচেন স্ল্যাপ নোংরা হয়ে জয়ায়। যা পরিষ্কার করতে সত্যি বিরক্ত লাগে। ফুটন্ত দুধ নিয়ন্ত্রণ করার সহজ কিছু কৌশল নিয়ে আজ হাজির। ফুটন্ত দুধ উপচে পড়া ঠেকাতে কিছু দ্রুত, সহজ, নির্ভরযোগ্য টিপস দেওয়া হল।

ফুটন্ত দুধ উপচে পড়া ঠেকাতে কি কি করবেনঃ
1.দুধ গরম করার পাত্রে জল ঢালুন
2.পাত্রের উপরের সাইডে মাখন ঘষুন
3.কেন্দ্রে একটি কাঠের স্প্যাচুলা বা হাতা রাখুন
4.ফুটলে আঁচ কমিয়ে রাখুন
5.পাত্র ঝাঁকানো
6.দুধের ফোমের উপর জল ছিটিয়ে দিন
7.সর্বদা স্টেইনলেস স্টিলের পাত্র ব্যবহার করুন
8.দুবার করে ফোটান

১. দুধ গরম করার পাত্রে জল ঢালুনঃ প্রথম টিপটি বেশ সহজ এবং সুবিধাজনক। যা করতে হবে তা হল একটি পাত্রে কিছু জল ঢালুন তা সামান্য ফোটান। তারপর পাত্রে দুধ যোগ করুন। এতে করে দুধ জলদি ফুটবে আর উপচে পড়ার হাত থেকে বাঁচবেন।

দুধের পরিমাণের তুলনায় একটি বড় পাত্রে দুধ গরম করার জন্যও বেছে নিতে পারেন। চাইলে দুধ ও জল একসাথে যোগ করুন। তবে সেক্ষেত্রে আঁচ সব সময় মিডিয়াম রাখবেন। এই টিপটি আপনাকে দুধে উপচে পড়া থেকে সাহায্য করবে।

২. পাত্রের উপরের সাইডে মাখন ঘষুনঃ একটি পাত্র নিন, পাত্রের উপরের সাইডে মাখন ঘষুন। তারপর এতে দুধ ফোটানোর জন্য ঢালুন। এটি করার ফলে দুধ গরম হওয়ার সময় ছিটকে বা উপচে পড়বে না। এটি একটি সহজ কৌশল যা দুধকে বেশি ফোটার হাত থেকে বাঁচায়।

৩. কেন্দ্রে একটি কাঠের স্প্যাচুলা বা হাতা রাখুনঃআরেকটি সহজ এবং নির্ভরযোগ্য টিপ হল দুধের পাত্রের উপর কাঠের স্প্যাচুলা বা হাতা রাখা। পাত্রের মাঝখানে এই কাঠের স্প্যাচুলা বা হাতা রাখুন, যা একটি সুরক্ষা ভালভ হিসাবে কাজ করে। যার ফলে দুধ ছিটকে যাওয়া থেকে বিরত থাকে। তবে এটা রাখলে মাঝে মাঝে নেড়ে দেবেন দুধ।

৪. ফুটলে আঁচ কমিয়ে রাখুনঃ দুধ গরম করার সময় একটা বলক চলে এলে গ্যাসের আঁচ কমিয়ে রাখুন। এটা সবচেয়ে ইজি উপায় দুধ উপচে পড়া ঠেকাবার। এটা করলে দুধ ফুটতে একটু বেশি সময় লাগে। কিন্তু একফোঁটাও দুধ উপচে পড়ার রিস্ক থাকে না।

৫. পাত্র ঝাঁকানোঃ দুধের পাত্র ঝাঁকানো একটু কঠিন হয়ে যায়। আসলে দুধ ফুটে উপরে উঠতে শুরু করলে গ্যাস থেকে পাত্র উঠিয়ে হালকা ঝাঁকিয়ে নিতে হয়। এতে করে উপরে উঠে আসা দুধ স্থির হয়ে যায়। তারপর গরম করতে বসালে উপচে পড়ে না। তবে এটা করলে খুব সাবধানে করতে হবে।

৬. দুধের ফোমের উপর জল ছিটিয়ে দিনঃ যদি দুধের পাত্র ঝাঁকানোর টিপটি কিছুটা কঠিন বলে মনে হয় তবে আপনি এর সহজ বিকল্প অবলম্বন করতে পারেন। দুধ থেকে ফেনা উপরে উঠতে শুরু করলে এতে কিছু জল ছিটিয়ে দিন। এটি আপনাকে দুধকে উপচে পড়ার হাত থেকে বাধা দেবে।

৭. সর্বদা স্টেইনলেস স্টিলের পাত্র ব্যবহার করুনঃ যখনই দুধ গরম করবেন বা ফোটাবেন একটি স্টেইনলেস স্টিলের পাত্র ব্যবহার করুন। আর কম থেকে মাঝারি আঁচে পাত্রটি রাখুন। উচ্চ শিখায় থাকলে দুধ চোখের নিমেষে উপচে পড়ে। আর দুধের বাটি পুড়ে গিয়ে কালচে দাগ হয়ে যায় নিচের থেকে। যা পরিষ্কার করা আরেকটি ঝামেলার কাজ।

৮. দুবার করে ফোটানঃ প্রথমে পাত্রে জল দিয়ে ফোটান। তারপর তাতে দুধ মেশান। একটা বলক এলে গ্যাস অফ করে দিন। আবার ৫ মিনিট পড়ে গ্যাস অন করে আরেকটা বলক আনুন দুধে। দুবার করে ফোটানোর ফলে দুধ সঠিক ভাবে ফোটে। উপচে পড়ার ভয় থাকে না। আর এই ভাবে দুধ ফুটিয়ে ঠাণ্ডা করে ফ্রিজে এক সপ্তাহ মত রাখা যায়।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button