২২ বছর আগে চার হাত হয়েছিল এক! এতো বছর পর সেই সম্পর্কের ঘটলো ইতি, বিচ্ছেদের পথে টলিউডের এই বিখ্যাত অভিনেতা

নিজস্ব প্রতিবেদন: বলিউড থেকে শুরু করে টলিউড সব জায়গাতেই কিন্তু বিয়ে এবং বিচ্ছেদ যেন রোজকার ঘটনা। বিবাহ বিচ্ছেদের ক্ষেত্রে সম্পর্ক যেন বয়স আর সময় কোনটাই দেখতে চায় না। এমন বহু তারকা দম্পতি রয়েছেন যারা বিয়ের মাত্র কয়েক মাসের মধ্যেই একে অপরের থেকে আলাদা হওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন; আবার এমন কিছু তারকাও রয়েছেন যারা একসঙ্গে বহু বছর থাকার পরেও নিজেদের এক করতে পারেননি।

সম্প্রতি আবারও বাংলা চলচ্চিত্র জগতে একটি বিচ্ছেদের খবর আমাদের সামনে উঠে এসেছে। আজ সেই প্রসঙ্গেই আমরা আপনাদের এই প্রতিবেদনে জানাবো। বিনোদন জগৎ সম্পর্কিত এই ধরনের আপডেট আরো পেতে চাইলে আমাদের অন্যান্য প্রতিবেদন গুলির উপর নজর রাখতে থাকুন।।

সূত্রের খবর অনুযায়ী জানা গিয়েছে সম্প্রতি নিজের বিবাহিত জীবনের ইতি টানতে চলেছেন অভিনেতা বিধায়ক হীরণ চট্টোপাধ্যায়। সম্প্রতি একটি সোশ্যাল মিডিয়ার পোস্ট থেকে এই জল্পনা আরো বেশি করে ঘনীভূত হয়ে উঠেছে। কিছুদিন আগেই অভিনেতার স্ত্রী অনিন্দিতা চট্টোপাধ্যায় নিজের একটি সোশ্যাল মিডিয়ার পোস্টে লিখেছিলেন,“ বাবা তার সদ্যজাত সন্তানকে রেখে চলে যেতে পারে।২২ বছর পরে তার মেয়ে বউকে অপ্রয়োজনীয় মনে করতে পারে। নিজের সন্তানের মানসিক অবস্থার প্রতি উদাসীন হতে পারে”। এই পোস্ট থেকেই কিন্তু সমস্ত জল্পনা বিতর্কে পরিণত হয়েছে। কারণ অত্যন্ত কাকতালীয়ভাবে অভিনেতা হীরণ চট্টোপাধ্যায় এবং তার স্ত্রী অনিন্দিতার বিয়ের বয়স ২২ বছর।

যদিও এই গোটা ব্যাপারটি জানার পরে রীতিমতন ক্ষোভে ফেটে পড়েছেন হিরন চট্টোপাধ্যায়। এক সংবাদমাধ্যমকে তিনি গোটা ব্যাপারটাই ভুল ধারণা বলে জানিয়েছেন। পাশাপাশি তার দাবি এই সমস্ত মিথ্যে খবর পরিবেশন করে সকলে যে কি আনন্দ পায় সেটাই তার জানা নেই। সঙ্গে হিরন আরো জানিয়েছেন, তার বউ সোশ্যাল মিডিয়া একটি সাধারন পোস্ট লিখেছেন এর সাথে তাদের দাম্পত্য জীবনের সম্পর্কের কোন যোগাযোগ নেই।

১৬ বছরের অভিনয়ে জীবনে আজ পর্যন্ত কখনো কোন নায়িকা বা পরিচালকের সাথে কিন্তু হিরনের নাম জড়ায়নি। তাই এই ধরনের খবর ছড়ানোর পেছনের কারণ কিন্তু কারোর জানা নেই। অভিনেতা আরো দাবি করেছেন যে তার মেয়ে একাদশ শ্রেণির ছাত্রী। এই ধরনের ভুল খবর তার জীবনে অনেক খারাপ প্রভাব ফেলতে পারে। মেয়েকে যখন তার বন্ধুরা প্রশ্ন করবে তখন সে কি উত্তর দেবে! তবে হিরনের এই স্পষ্ট বক্তব্য রাখার পরেও কিন্তু অনুরাগীদের মধ্যেকার জল্পনা থামছে না।

Back to top button